শিরোনাম

সোমবার, জানুয়ারী 16, 2017 - নতুন নম্বর সিরিজ ০১৩ পাচ্ছে না জিপি | সোমবার, জানুয়ারী 16, 2017 - সিওরক্যাশের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করতে পারবে পেইজা গ্রাহকেরা | সোমবার, জানুয়ারী 16, 2017 - সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফ্রি ওয়াই-ফাই দেওয়া হবে : পলক | সোমবার, জানুয়ারী 16, 2017 - ডিজিটাল শিক্ষা বিস্তারে কাজ করবে টেন মিনিট স্কুল | সোমবার, জানুয়ারী 16, 2017 - ডিজিটাল এন্টারপ্রেনারশিপ ইকোসিস্টেম সম্পর্কিত কর্মশালা অনুষ্ঠিত | বুধবার, জানুয়ারী 11, 2017 - আফতাব-উল-ইসলাম বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন পরিচালক | বুধবার, জানুয়ারী 11, 2017 - কিশোর-কিশোরীদের মেধা বিকাশে আসছে কানেক্ট ডটবাংলা | বুধবার, জানুয়ারী 11, 2017 - ডয়েচে ভেলের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিভিত্তিক অনুষ্ঠান আরটিভিতে | বুধবার, জানুয়ারী 11, 2017 - ‘র‍্যাংকসটেলের ইন্টারনেটের জন্য চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে বিটিসিএল’ | বুধবার, জানুয়ারী 11, 2017 - এবার ভিডিওতে বিজ্ঞাপন আনছে ফেসবুক |
প্রথম পাতা / অর্থনীতি / অনলাইন পেমেন্ট সমাধানে চালু হলো ডিবিবিএল এর ভার্চুয়াল কার্ড
অনলাইন পেমেন্ট সমাধানে চালু হলো ডিবিবিএল এর ভার্চুয়াল কার্ড

অনলাইন পেমেন্ট সমাধানে চালু হলো ডিবিবিএল এর ভার্চুয়াল কার্ড

ভার্চুয়াল কার্ড চালুর বিষয়ে সম্প্রতি দেওয়া বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে ইন্টারন্যাশনাল ভার্চুয়াল ক্রেডিট কার্ড চালু করেছে ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড(ডিবিবিএল )। গতকাল বেসিস ও ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই ভার্চুয়াল কার্ডের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

dbbl

বেসিস সভাপতি শামীম আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান সায়েম আহমেদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে.এস. তাবরেজ ও বেসিসের পরিচালক সানি মো. আশরাফ খান। নির্দেশনা অনুযায়ী এই কার্ড গ্রহণের জন্য আবেদনকারীকে প্রোগ্রামার, ডেভেলপার বা ফ্রিল্যান্সার হিসেবে প্রমাণ দেখাতে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) থেকে অনুমোদন নেওয়া যাবে।

এই কার্ড পেতে হলে বেসিস বা আইসিটি ডিভিশনের দেওয়া মোবাইল অ্যাপ, গেম, হ্যাকাথন ইত্যাদির সার্টিফিকেট প্রমাণ হিসেবে দেখাতে হবে ও ডাচ-বাংলা ব্যাংক থেকে নির্দিষ্ট ফরমে আবেদন করতে হবে। এ কার্ড ব্যবহার করে বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেসে (উইন্ডোজ, অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস, ব্ল্যাকবেরি, ফায়ারফক্স ইত্যাদি) গেমস, সফটওয়্যার লাইসেন্স, মোবাইল কিংবা গেমস অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, ভেন্ডর সার্টিফিকেশন পরীক্ষার ফি, যেকোনো ডোমেইন নিবন্ধন, হোস্টিং, ক্লাউড সেবা, হ্যাকাথন ইত্যাদি ক্ষেত্রে বছরে সর্বোচ্চ ৩০০ ডলার অর্থ পরিশোধ করা যাবে। ফলে আন্তর্জাতিক লেনদেনে ডেভেলপার বা প্রোগ্রামারদের দীর্ঘদিনের সমস্যার সমাধান মিলবে এই ভার্চুয়াল কার্ডের মাধ্যমে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top