শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - গাড়ি চালাতে এবার থেকে আর কোনও চাবির প্রয়োজন নেই! | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিজয়ী কাস্টমারদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে সিম্ফনি ঈদ অফার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিশ্বব্যাপী সাইবার হামলায় ৬ মাসেই ক্ষতি ৪০০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - এইচটিসি স্মার্টফোন ব্যবসা কিনতে গুগলকে গুনতে হবে ১১০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - টাকা না পেলে টেলিটক মারা যাবে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড পরিদর্শনে হিটাচি এক্সক্লুসিভ টিম | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী’র ‘অ্যাসোসিও ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ারটেল’র ‘ইয়োলো ফেস্ট’ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় নতুন দেশি অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ড্যাফোডিলে ‘সমন্বিত শিক্ষণ পদ্ধতিতে গুগল ক্লাসরুমের ব্যবহার’ শীর্ষক লেকচার সেমিনার অনুষ্ঠিত |
প্রথম পাতা / স্থানীয় খবর / অন্য অপারেটরের গ্রাহককে ফোন করে সিম বিক্রি করছে বাংলালিংক
অন্য অপারেটরের গ্রাহককে ফোন করে সিম বিক্রি করছে বাংলালিংক

অন্য অপারেটরের গ্রাহককে ফোন করে সিম বিক্রি করছে বাংলালিংক

নিজেদের নেটওয়ার্কের বাইরে অন্য অপারেটরের গ্রাহকদের কল করে সংযোগ বিক্রি শুরু করেছে বাংলালিংক।

গ্রাহক সংখ্যার দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে থাকা অপারেটরটি গত কিছু দিন থেকে গ্রাহক বাড়াতে নতুন এই কৌশল চালাচ্ছে বলে জানিয়েছে সূত্র।

অপারেটরটির একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, নিজেদের কল সেন্টার থেকে অন্য অপারেটরের গ্রাহককে ফোন করে গ্রাহকের ব্যবহৃত নম্বরের অবিকল নম্বরে বাংলালিংক সংযোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে। সঙ্গে থাকছে নানা অফার।

backup_sim-banglalink

এক্ষেত্রে হয়তো গোটা এগারো ডিজিটের নম্বরের মধ্যে একটি বা দুটি ডিজিটের পরিবর্তন হবে। আর এসব সংযোগ পাঁচশ থেকে হাজার টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছে সূত্র।

সূত্র বলছে, সাম্পতিক সময়ে নতুন গ্রাহক পাওয়া অনেকটাই দুসাধ্য হয়ে পড়েছে। গত ছয় মাসেরও বেশি সময় ধরে বাংলালিংক দুই কোটি ৯০ লাখের ঘরে আটকে আছে। কিন্তু তারা তিন কোটির ঘরে পৌঁছাতে পারছে না।

এ সব কারণে নতুন গ্রাহক বাড়াতে নানান উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে যার মধ্যে এটি একটি।

এ বিষয়ে বাংলালিংকের মার্কেটিং বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, নতুন এই কৌশলে গুণগত গ্রাহক পাওয়া যাচ্ছে। এসব গ্রাহক সাধারণত একটি নম্বর নেওয়ার পর তা বাদ দেন না। বরং তারা একটি নম্বর থেকে আরেকটিতে সুইচ করতে যেমন সময় নেন, তেমনি সুইচ করলেও তা ধরে রাখেন। আর মাসে মোবাইলের পেছনে তাদের খরচও বেশ।

অপারেটরটির ফেইসবুক পেইজ থেকে জানা গেছে, গ্রাহক বাড়াতে তারা নেটওয়ার্ক সংক্রান্ত বিজ্ঞাপনসহ নতুন সংযোগের পেছনে অনেক বেশি সুবিধা দেওয়ার অফার দিচ্ছেন।

নতুন সংযোগে অন্য অপারেটরে সেকেন্ড প্রতি এক পয়সা এবং বাংলালিংক নম্বরে আধা পয়সাসহ এসএমএস-এমএমএস এবং নির্দিষ্ট পরিমান ব্যান্ডউইথ ফ্রি দেওয়ার ঘোষণা দিচ্ছে।

এর আগে অপারেটরটি তাদের নেটওয়ার্ক সম্পর্কে জানতে গ্রাহকদের কাছ থেকে ফিডব্যাক নিয়েছে। যেখানে গ্রাহক শূন্য থেকে ১০ এর মধ্যে নম্বর দিয়ে নেটওয়ার্কের বিষয়ে তার সন্তুষ্ঠি বা অসন্তুষ্ঠির কথা জানতে পেরেছেন।

এর বাইরে টেলিকম সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সুনির্দিস্ট ব্যক্তিদের কাছ থেকে টেলিফোনেও সাক্ষাৎকারভিত্তিক তথ্য নিয়েছে অপারেটরটি। যার মাধ্যমে তারা বুঝতে চেষ্টা করেছে দেশের টেলিকম বাজারে তাদের গুণগত অবস্থান কোথায়।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top