শিরোনাম

রবিবার, জুলাই 23, 2017 - ‘স্টাডি ইন ইন্ডিয়া’ এর উদ্বোধন | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - শক্তিশালী ব্যাটারির সাশ্রয়ী স্মার্টফোন আনল ওয়ালটন | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - তথ্যপ্রযুক্তি খাতে দক্ষ জনবল তৈরী করছে বর্তমান সরকার -জুনাইদ আহমেদ পলক | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - হুয়াওয়ে লাকি ডে | রবিবার, জুলাই 23, 2017 - দারাজে এখন সম্পূর্ণ ইন্টারেস্ট বিহীন ইএমআই পেমেন্ট | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - লিংকসীস এর ১৯০০ এমবিপিএস গতির ডুয়াল-ব্যান্ড ওয়্যারলেস রাউটার | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - আগামী মাসে স্যামসাং আনছে নতুন ডিভাইস | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - আইটি খাতে কর্মসংস্থান আগামী বছর আরও কমবে:নাসকম | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - সনির ২৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরার স্মার্টফোন | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - ঢাকায় অনুষ্ঠিত হলো সিগেট ডিলার মিট |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / ই-স্বাস্থ্যসেবা বাস্তবায়নে সমঝোতা স্মারক
ই-স্বাস্থ্যসেবা বাস্তবায়নে সমঝোতা স্মারক

ই-স্বাস্থ্যসেবা বাস্তবায়নে সমঝোতা স্মারক

e-health-1207

তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে নাগরিকদের স্বল্প সময়ে ও খরচে অধিকতর স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের লক্ষ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক নাগরিক কেন্দ্রিক ই-সেবা চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এই উদ্যোগ বাস্তবায়নে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং ইউএনডিপি ও ইউএসএইড এর অর্থায়নে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম যৌথভাবে কাজ করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব ব্লকের সভাকক্ষে আজ ১২ জুলাই একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয় । নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম এনডিসি এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব সৈয়দ মন্জুরুল ইসলাম ।

এই সমঝোতা স্বাক্ষরের মাধ্যমে এটুআই ই-সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান করবে এবং এর ফলে নাগরিকদের ক্ষমতায়ন, বিশেষত পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য স্বাস্থ্য খাতে প্রবেশাধিকার সহজীকরন এবং সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে আন্তঃখাত সমন্বয় এর উন্নয়ন সাধন করা সম্ভব হবে। স্বাস্থ্য সেবা প্রদানকারীর বিভিন্ন পর্যায়ের সেবা প্রদানকারীদের মধ্যে সক্ষমতা সৃষ্টি করার লক্ষ্যে এটুআই সহযোগিতা প্রদান করবে। এই চুক্তির আলোকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণে উদ্ভাবনকে উৎসাহিত করার পাশাপাশি প্রণোদনা প্রদান , সেবা প্রদানকারীদের সংস্থা সমূহের মধ্যে স্বাস্থ্য তথ্য ব্যবস্থা, ই-স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পর্কিত উদ্ভাবনের জন্য উৎসাহিতকরণ , ইন্টার অপারেবিলিটি এর জন্য প্রযুক্তির যথাযথ মান নিশ্চিত করণ , স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পর্কিত সেবা প্রদানকারীদের সক্ষমতা তৈরিকরণ, স্বাস্থ্য তথ্য ব্যবস্থা, ই – স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পর্কিত সেবার মান পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ণ এবং স্বাস্থ্য তথ্য ব্যবস্থা, ই-স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পর্কিত সেবার জন্য সহায়ক নীতি এবং আইনি কাঠামো প্রণয়নের উদ্যোগ নেয়া হবে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top