শিরোনাম

বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - পোক ফিচারটি ফিরিয়ে আনছে ফেসবুক | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - গ্রামীণফোনের প্যানেল আলোচনায় ডিজিটাল চট্টগ্রামের রূপরেখা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - দেশের সবচেয়ে বড় গেমিং প্লাটফর্ম ‘মাইপ্লে’ চালু করলো রবি | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - রাজধানীতে টেকনোর আরও নতুন দুইটি ব্র্যান্ড শপের শুভ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে ল্যাপটপ মেলা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - জরুরি সেবা ৯৯৯ এর উদ্বোধন করলেন জয় | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - নতুন অ্যাপ ‘ফাইলস গো’ চালু করেছে গুগল | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বাজারে এলো শাওমির নতুন দুই ফোন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বিশ্ব বিখ্যাত পাঁচ রাঁধুনি রোবট |
প্রথম পাতা / অফবিট / এসএমএস এর শুরুটা হয়েছিল যেভাবে
এসএমএস এর শুরুটা হয়েছিল যেভাবে

এসএমএস এর শুরুটা হয়েছিল যেভাবে

smsবর্তমান সময়ে বিভিন্ন রকম মেসেজিং অ্যাপ ব্যাবহার করে  মানুষ মেসেজ আদান প্রদান করছে। মানুষ এখন যোগাযোগের জন্য সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করে এসএমএস বা শর্ট মেসেজ সার্ভিস।জানেন, এসএমএস এর শুরুটা তাহলে কবে হয়েছিল?

আজ থেকে ২৫ বছর আগে প্রথম পাঠানো হয়েছে টেক্সট মেসেজ। ১৯৯২ সালের ৩ ডিসেম্বর প্রথম টেক্সট মেসেজ পাঠানো হয়েছিল।নেইল প্যাপওর্থ নামের ব্রিটিশ প্রকৌশলী রিচার্ড জারভিস এর কাছে এই টেক্সট মেসেজ পাঠিয়েছিলেন। মেসেজে লেখা ছিল ‘মেরি ক্রিসমাস’। রিচার্ড জারভিস ছিলেন ব্রিটিশ টেলিকম ভোডাফোনের একজন কর্মকর্তা। কিন্তু জারভিস সেসময় ওই মেসেজের কোনো রিপ্লাই দিতে পারেননি। কারণ ওই সময় ফোন থেকে টেক্সট পাঠানোর কোনো উপায় ছিল না।

এরপর ১৯৯৩ সালে নোকিয়া তাদের হ্যান্ডসেটে ১৬০ বর্ণের এসএমএস ফিচারের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়। এবং ১৯৯৪ সালে নোকিয়া ২০১০ মডেলের ফোনের মাধ্যমে মানুষ প্রথম সহজেই মেসেজ পাঠানোর সুবিধা পায়। এরপর ১৯৯৯ সালে বিভিন্ন টেলিকম অপারেটরের নেটওয়ার্কে টেক্সট মেসেজ আদান প্রদানের সুবিধা পাওয়া শুরু হয়।

পিউ রিসার্চ অনুযায়ী, বর্তমানে ৯৭ শতাংশ স্মার্টফোন গ্রাহক টেক্সট মেসেজ ব্যবহার করে থাকে। ২০১৪ সালের জুন মাস পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ৫৬১ বিলিয়নের বেশি টেক্সট মেসেজ এবং প্রতিদিন ১৮.৭ বিলিয়ন টেক্সট পাঠানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে ফোন কলের চেয়ে টেক্সট বেশি জনপ্রিয়। দেশটিতে ফোনে কল দেওয়ার চাইতে তুলনামূলকভাবে ৫ গুণ বেশি মেসেজ আদান প্রদান করে থাকে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top