শিরোনাম

শনিবার, মে 27, 2017 - অ্যাপেল এর দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় স্টোর এখন সিঙ্গাপুর এ | শনিবার, মে 27, 2017 - নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে এলামনাইদের পুর্নমিলনী | শনিবার, মে 27, 2017 - ন্যাশনাল ডেমো ডে ও স্টার্টআপ এ্যাওয়ার্ড ২০১৭ | শনিবার, মে 27, 2017 - অনলাইন হোটেল বুকিং এ ৯০ শতাংশ ছাড়! | শনিবার, মে 27, 2017 - এখন ও উইন্ডোজ ১০ আপগ্রেড বিনামূল্যে | শনিবার, মে 27, 2017 - হার্ভার্ড থেকে ১৩ বছর পর  ডিগ্রি নিলেন জাকারবার্গ | শনিবার, মে 27, 2017 - দেশের গন্ডি পেরিয়ে পিএমঅ্যাস্পায়ার | শুক্রবার, মে 26, 2017 - স্থগিত হয়ে গেছে বেসিস ২০১৭-১৮ টার্মের ৩ পদে নির্বাচন | শুক্রবার, মে 26, 2017 - রবি’র লোকসান ১৭০ কোটি টাকা | শুক্রবার, মে 26, 2017 - ডোমেইন এবং হোস্টিং এ বিশেষ অফার |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / এসার-আসুস একত্রিত হওয়ার সম্ভবনা উড়িয়ে দিলেন এসার সিইও
এসার-আসুস একত্রিত হওয়ার সম্ভবনা উড়িয়ে দিলেন এসার সিইও

এসার-আসুস একত্রিত হওয়ার সম্ভবনা উড়িয়ে দিলেন এসার সিইও

acer-ceoকয়েকদিন আগেই নিজে থেকেই এসারের বিক্রি হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়ে প্রযুক্তিবিশ্বকে চমকে দিয়েছিলেন এসারের সিইও স্ট্যান শিহ। তার মন্তব্যের সূত্র ধরেই গত কিছুদিন হলো প্রযুক্তিবিশ্বে এসারের বিক্রি হয়ে যাওয়া নিয়ে চলছে নানা ধরনের গুঞ্জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গুজব ছড়িয়েছে তাইওয়ানের আরেক কোম্পানি আসুসের কাছে এসারের বিক্রি হয়ে যাওয়ার খবর।

অনেকেই তাইওয়ানের এই দুই পিসি নির্মাতার একত্রিত হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছিলেন। প্রযুক্তি বাজার বিশ্লেষকরাও এই সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দেননি। তবে এই সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দিলেন এসারের সিইও স্ট্যান শিহ। আসুসের সাথে এসারের একীভূত হওয়া প্রসঙ্গে তিনি জানান, আসুস এবং এসার—এই দুই কোম্পানি মিলিয়ে তাইওয়ানের ৭০ শতাংশ বাজার দখলে রেখেছে। ফলে এই দুই প্রতিষ্ঠান একীভূত হয়ে গেলে তা তাইওয়ানের বাজারের ‘ফেয়ার ট্রেড’ নীতির লঙ্ঘন হবে। ফলে এই দুই প্রতিষ্ঠানের একীভূত হয়ে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তাই বলে অন্য প্রতিষ্ঠানের কাছে নিজেদের বিক্রি হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাকে তিনি উড়িয়ে দিচ্ছেন না।

সেক্ষেত্রেও অবশ্য অন্য কোনো কোম্পানি এসারকে বর্তমান অবস্থায় কিনে নিতে রাজি হবে কি না, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তিনি। কেননা, গত এপ্রিল মাস থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত পুঁজিবাজারে এসারের প্রায় ৫০ শতাংশ দরপতন ঘটেছে। চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসের হিসাবে এসার লাভ করেছে ৫.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। গত বছরের একই সময়ে এসারের লাভ ছিল ১৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। তাছাড়া চলতি বছরের জুলাই মাসে আগের বছরের তুলনায় রাজস্ব আয় কমেছে প্রায় ৩৩ শতাংশ। এসব তথ্য থেকেই এসারের সঙ্গীন অবস্থার প্রমাণ পাওয়া যায়। তাই এসারকে কিনে নিয়ে কোনো কোম্পানি লাভের মুখ দেখবে, এমন হিসাবে আস্থা নেই স্ট্যান শিহর।

তাছাড়া স্ট্যান শিহ এক মাসেরও বেশি সময় আগে এসারকে বিক্রির বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করলেও এখন পর্যন্ত সেই প্রস্তাবনায় আগ্রহ দেখায়নি অন্য কোনো কোম্পানি। তাই এসারকে হয়তো নিজের মতো করেই পথ চলতে হবে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top