শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং নিয়ে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির সংবাদ সম্মেলন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - বাংলাদেশে ডেলইএমসি এক্সপেরিয়েন্স সেন্টার চালু | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - চীনে স্কাইপ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - আসছে দুই সিমের আইফোন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের জন্য অসাধারণ অ্যাপ ফেসবুক-এর | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - ইয়োন্ডার মিউজিক বাংলাদেশের এক নম্বর মিউজিক অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - উদিয়মান ব্রান্ড হিসেবে লিনেক্স পেল ‘গ্লোবাল ব্রান্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৭’ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড ডিলার সেলিব্রেশন ২০১৭ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - এলো ডেলের নতুন ইন্সপাইরন এন৭৩৭০ ল্যাপটপ | বুধবার, নভেম্বর 22, 2017 - আবার স্মার্টফোনে ফিরছে ইন্টেল |
প্রথম পাতা / অফবিট / কে করবে অস্ত্রোপচার ?
কে করবে অস্ত্রোপচার ?

কে করবে অস্ত্রোপচার ?

robotজটিল অস্ত্রোপচারের কাজে চিকিৎসকেরা এখন রোবটের ব্যবহার করেন। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের গবেষকেরা অস্ত্রোপচারের কাজে ব্যবহারের উপযোগী বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষুদ্র রোবট তৈরি করেছেন। এ রোবট তৈরি করতে মুঠোফোন ও মহাকাশযান তৈরিতে ব্যবহৃত সাশ্রয়ী খরচের প্রযুক্তি ব্যবহার করেছেন তাঁরা।

রোবটটির নাম ভারসিয়াস। এটি মানুষের হাতের অনুকরণ করতে পারে। প্রচলিত ওপেন সার্জারির ক্ষেত্রে নানা ধরনের ছোট ছিদ্র থেকে শুরু করে বিভিন্ন কাজে এটি ব্যবহার করা যায়। এর মধ্যে আছে হার্নিয়া মেরামত, কলোরেক্টাল অপারেশন, প্রোস্টেট, নাক, কান, গলার সার্জারি প্রভৃতি।এ প্রক্রিয়ায় জটিলতা ও অস্ত্রোপচারের পর ব্যথা কম হয়। অপারেশনের সময় অপারেশন থিয়েটারে থ্রিডি স্ক্রিনে এর নিয়ন্ত্রণ করেন সার্জন।বর্তমান বিভিন্ন সার্জারি-পদ্ধতির চেয়ে এটি ব্যবহার সহজ। এ ছাড়া আকার ছোট হওয়ায় বর্তমানে যেসব বড় যন্ত্র ব্যবহার হয়, তার চেয়ে অপারেশন থিয়েটারে জায়গা কম লাগে।

অস্ত্রোপচারের ক্ষেত্রে রোবটিক বিপ্লব ঘটাতে হলে রোবটকে বহুমুখী কাজে পারদর্শী, ব্যবহারবান্ধব ও ছোট হতে হবে, যাতে চিকিৎসকেরা একে সহজে সরাতে পারেন বা কাজে ব্যবহৃত না হলে প্যাকেটের মধ্যে তুলে রাখতে পারেন। কেমব্রিজ মেডিকেল রোবোটিকসের প্রধান নির্বাহী মার্টিন ফ্রস্ট বলেন, ওই সব কাজ ভারসিয়াসকে দিয়ে করানো যায়। এটাই প্রথম রোবটিক বাহু, যা নির্দিষ্ট করে ল্যাপারোস্কোপিক সার্জারির জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর প্রধান সুবিধা হলো এটি মানুষের মতো কাজ করে। এতে এমন প্রযুক্তি আছে, যা রোগীর শরীরের ভেতর কতটুকু চাপ দিতে হবে, তা ঠিক করতে পারে। গবেষকেরা মুঠোফোনে ব্যবহৃত প্রযুক্তি ব্যবহার করেছেন, ফলে এ রোবট চিন্তা করতে ও তথ্য প্রক্রিয়াজাত করতে পারে। এ ছাড়া মহাকাশে ব্যবহৃত গিয়ারবক্স প্রযুক্তি এতে ব্যবহৃত হয়েছে, যাতে এটি নড়াচড়া করতে পারে। আগামী বছর রোবটটি পাওয়া যাবে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top