শিরোনাম

বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডে চ্যাম্পিয়ন ‘প্রিজম ইআরপি’ | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ডিজিটাল পেমেন্ট সার্ভিস ইউপের যাত্রা শুরু | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হুয়াওয়ে মেট ১০ এ যা আছে | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - শাওমির নতুন ফোন রেডমি ৫এ | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ফাঁস হয়ে গেল নোকিয়া ৯ এর গোপন সমস্ত তথ্য | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হ্যাকারদের লক্ষ্য বাংলাদেশসহ অন্যান্য এশিয়ার দেশগুলোর ব্যাংকগুলো | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - এডিএন ইডু সার্ভিসেস এর উদ্দেগে এজাইল বিষয়ক কর্মশলা অনুষ্ঠিত | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - প্রথম ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ডসে গ্রামীণফোনের ব্যাপক সাফল্য | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - গুগলের এই এয়ারপড হেডফোন যখন ট্রান্সলেটর | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - কম্পিউটার গেমের আসক্তিতে হতে পারে ভয়াবহ পরিণতি |
প্রথম পাতা / অফবিট / ক্যান্সার চিকিৎসায় যুগান্তকারী আবিষ্কার
ক্যান্সার চিকিৎসায় যুগান্তকারী আবিষ্কার

ক্যান্সার চিকিৎসায় যুগান্তকারী আবিষ্কার

penটেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা এমন একটি কলম তৈরি করেছেন যা সার্জারির সময় মাত্র ১০ সেকেন্ডের মধ্যে ক্যান্সার আক্রান্ত কোষকে সনাক্ত করতে সক্ষম। টিউমারকে পুরোপুরি নির্মূল করতে কোন টিস্যুগুলো কাটা উচিত তা দ্রুত নির্ধারণ করার জন্য এই কলম ব্যবহার করা যেতে পারে।

‘মাসস্পেক পেন’ নামে পরিচিত এই যন্ত্রটি অবশ্য এখনও পুরোপুরি তৈরি নয়। এখনও এতে কিছু ত্রুটি রয়েছে। তবে এটি বর্তমানে প্রায় ৯৬ শতাংশ নির্ভুলভাবে ক্যান্সার আক্রান্ত কোষ ও সুস্থ কোষের মধ্যে পার্থক্য করতে পারে।

‘মাসস্পেক পেন’ তৈরির সঙ্গে জড়িত টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক দলটি চলতি সপ্তাহে ইউরোপের এক বিজ্ঞান সাময়িকীকে জানায়, আগামী বছরের শুরুতে এই কলমটির পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু হতে পারে।

বর্তমানে এ কাজে একজন সার্জেনকে বিশ্লেষণের জন্য কোষের নমুনা একটি ল্যাবে পাঠাতে হয়। ল্যাবে পরীক্ষার ফল পেতে অনেক সময় লেগে যায়। তবে সার্জারির সময় টিস্যু হিমায়িত করেও বিশ্লেষণ করা যায়, এতে সময় লাগে ১৫ থেকে ২০ মিনিট।

তবে এই কলমটি উদ্ভাবনের ফলে ১০ কিংবা ১৫ মিনিটও নয়, মাত্র ১০ সেকেন্ডের মধ্যেই এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করা সম্ভব হবে। এই ক্ষেত্রে দ্রুততর কিন্তু নির্ভুল টুলস অনুসন্ধানের অভিপ্রায়েই গবেষকরা এই হ্যান্ডহেল্ড কলম তৈরি করেছেন । প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে অল্প পরিমাণ জলের প্রয়োজন হয়।

গবেষকরা ২৫ জন ক্যান্সার আক্রান্ত স্তন, ফুসফুস, থাইরয়েড ও ডিম্বাশয়ের টিস্যুর পাশাপাশি ভালো টিস্যুর নমুনা কলম দিয়ে পরীক্ষা করেন। এতে কলমটি (৯৬ শতাংশ সময়) সঠিক ফল দেয়। গবেষকরা ২০১৮ সালেই এটির ব্যবহার শুরু করতে চান।  এখন দেখার কত দ্রুত তাঁরা এর ব্যবহার শুরু করতে পারেন।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top