শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - বাংলাদেশেই তৈরি হবে সকল ডিজিটাল ডিভাইস : মোস্তাফা জব্বার | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - যে কারণে অনলাইন অ্যাকাউন্টে কঠিন পাসওয়ার্ড দিবেন | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - ফিশিং জালিয়াতির শিকার হচ্ছেন জিমেইল ব্যবহারকারীরা | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - দেশের বাজারে লেনোভোর এইচডি ডিসপ্লের ল্যাপটপ | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - হিটাচি প্রজেক্টরে ম্যাজিক অফার | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - বাংলাদেশে ডি-লিংক কাস্টমার কেয়ার সেন্টারের অংশীদার কম্পিউটার সোর্স | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - অপ্পোর নতুন ২ স্মার্টফোনে গ্রামীণফোনের ফ্রি ইন্টারনেট | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - ওয়েস্টার্ন ডিজিটাল এর পার্টনার মিট | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - ইউটিউবের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে পর্নগ্রাফি ভিডিও | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - আসছে স্বল্প মূল্যের অ্যান্ড্রয়েড ওয়ান ফোন |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / ক্যামেরা না স্মার্টফোন?কোনটি আপনার দরকার-দেখে নিন
ক্যামেরা না স্মার্টফোন?কোনটি আপনার দরকার-দেখে নিন

ক্যামেরা না স্মার্টফোন?কোনটি আপনার দরকার-দেখে নিন

স্মার্টফোন আর ট্যাবলেট পিসির এই যুগে এসে ডিজিটাল ক্যামেরা অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে বাজারে। তবে এর আগ পর্যন্ত ডিজিটাল ক্যামেরা ছিল অনেকেরই খুব পছন্দের একটি গ্যাজেট। আধুনিক স্মার্টফোনগুলোতেই উচ্চ রেজ্যুলেশনের ক্যামেরা ব্যবহূত হওয়ায় সেই পছন্দের জায়গাটি পরিবর্তন হয়ে গেছে নিভৃতেই। এখন আবার এন্ট্রি-লেভেলের ডিএসএলআর ক্যামেরাও দামের দিক থেকে চলে এসেছে হাতের নাগালে। তবু দাম এবং নানা ফিচারের কারণে অনেকেই এখনও ডিজিটাল ক্যামেরাকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। আপনার মধ্যেও যদি ‘স্মার্টফোন না ক্যামেরা?’—এই প্রশ্নটি থাকে, তাহলে দেখে নিন স্মার্টফোন এবং ক্যামেরার মধ্যেকার মৌলিক পার্থক্যের জায়গাগুলো। জানাচ্ছেন সানজিদা সুলতানা
smartphone-camera-corporate

ডিজিটাল ক্যামেরা :অপটিকস ও সেন্সর

ডিজিটাল ক্যামেরার অন্যতম সুবিধার জায়গা হলো এর অপটিকস ও সেন্সরের আকার। একদম প্রাথমিক পর্যায়ের ডিজিটাল ক্যামেরাগুলোতেও ফাইভএক্স অপটিক্যাল জুম সুবিধা পাওয়া যায়। একটু দামি ক্যামেরাগুলোতে থার্টিএক্স পর্যন্ত অপটিক্যাল জুমও পাওয়া যায়। তাছাড়া ডিজিটাল ক্যামেরার সেন্সরের আকার প্রায় সব স্মার্টফোনের ক্যামেরা সেন্সরের চাইতে বড়। তাই ছবির মানে ভালো ডিজিটাল ক্যামেরা এগিয়ে থাকবে, তা বলাই যায়।

স্মার্টফোন :দ্রুত সম্পাদনা
স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে আবার সবচেয়ে বড় সুবিধা পাওয়া যায় ছবি সম্পাদনার ক্ষেত্রে। ডিজিটাল ক্যামেরায় ছবি তুলে সেটা কম্পিউটারে নিয়ে তার পরে সম্পাদনা করতে হয়। কিন্তু স্মার্টফোনে ছবি তুলে ফেলার সাথে সাথেই সম্পাদনা করার সুযোগ পাওয়া যায়। আবার স্মার্টফোনের ছবি সম্পাদনার অ্যাপগুলোও দ্রুত কাজ করার সুবিধা দেয়।
ডিজিটাল ক্যামেরা :হার্ডওয়্যার নিয়ন্ত্রণ
ছবি তোলার জন্য আইএসও, এক্সপোজার, শাটার স্পিডের মতো বিষয়গুলোর ওপর নিয়ন্ত্রণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ডিজিটাল ক্যামেরার মতো স্মার্টফোনে এই বিষয়গুলো খুব নিখুঁতভাবে নিয়ন্ত্রণ করার সুবিধা নেই। ফলে ছবির মানের ক্ষেত্রে এদিকেও এগিয়ে থাকবে ডিজিটাল ক্যামেরা।
smartphone-backup
স্মার্টফোন :সহজে শেয়ারিং ও ব্যাকআপ
ছবি তোলার পর তার ব্যাকআপ এবং শেয়ারিং গুরুত্বপূর্ণ। ডিজিটাল ক্যামেরায় এ ক্ষেত্রেও সরাসরি ব্যাকআপ এবং শেয়ারিংয়ের সুযোগ নেই। কিন্তু স্মার্টফোনে এখন ছবি তোলার সাথে সাথেই তা ক্লাউডে সংরক্ষণ করা যায়। আর সরাসরি ফেসবুক, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তা শেয়ার করার সুযোগ তো রয়েছেই।
ডিজিটাল ক্যামেরা :ম্যাক্রো
ম্যাক্রো লেভেলে ছবি তোলার সুবিধা এখন কিছু স্মার্টফোনে যুক্ত হয়েছে। কিন্তু সেগুলোর দাম সাধারণতই সাধারণ ক্রেতাদের নাগালের বাইরে। সেক্ষেত্রে প্রায় সব পর্যায়ের ডিজিটাল ক্যামেরাতেই রয়েছে ম্যাক্রো সুবিধা। তাছাড়া ফিজিক্যাল অ্যাপারচার থাকার কারণে ম্যাক্রো লেভেলে ছবি তোলার জন্য ডিজিটাল ক্যামেরা এগিয়ে থাকবে।
স্মার্টফোন :ডিসপ্লে
ছবি তোলার পর দেখার জন্য এগিয়ে থাকবে স্মার্টফোন। এখন অনেক বাজেট স্মার্টফোনেও সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি ডিসপ্লে পাওয়া যায়। তাছাড়া স্মার্টফোনের টাচস্ক্রিন সুবিধার কারণে ছবি জুম করে দেখা, ছবি রোটেট করাসহ ছবির সব কাজেই বাড়তি সুবিধা পাওয়া যায়। ডিজিটাল ক্যামেরার ডিসপ্লেতে এসব সুবিধা নেই বললেই চলে। কিছু ডিজিটাল ক্যামেরায় টাচস্ক্রিন থাকলেও সেগুলো আবার দামের দিক থেকে নাগালের বাইরে থাকে।
ডিজিটাল ক্যামেরা :ব্যাটারি
স্মার্টফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ নিয়ে অভিযোগ সব স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরই রয়েছে। বিশেষ করে ভিডিও ক্যাপচারিংয়ের ক্ষেত্রে স্মার্টফোনে প্রচুর ব্যাটারি খরচ হয়। এদিক থেকে ডিজিটাল ক্যামেরায় ব্যাটারি ব্যাকআপ নিয়ে অনেকটাই নিশ্চিন্ত থাকার সুযোগ রয়েছে। আর ডিজিটাল ক্যামেরার জন্য বাড়তি ব্যাটারি থাকলে তো কথাই নেই।
camera-pic
স্মার্টফোন :বহনযোগ্যতা
স্মার্টফোন তো এখন নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় গ্যাজেট। ফলে স্মার্টফোন সাথে থাকলে তা বাড়তি কোনো গ্যাজেট হিসেবে বিবেচিত হওয়ার সুযোগ নেই। কিন্তু ডিজিটাল ক্যামেরাকে সেভাবে দেখার সুযোগ নেই। এটি অবশ্যই একটি বাড়তি গ্যাজেট এবং একে আলাদা করেই বহন করতে হয়।
ডিজিটাল ক্যামেরা :ফ্ল্যাশ ও কম আলোতে ছবি
কম আলোতে ছবি তোলার ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো ক্যামেরা ফোনও পিছিয়ে থাকবে ডিজিটাল ক্যামেরার তুলনায়। সেন্সরের আকারের কারণেই এটি হয়ে থাকে। এখন অনেক স্মার্টফোনে লো-লাইট ফটো ফিচার থাকলেও তা ডিজিটাল ক্যামেরার সমান পারফরম্যান্স দিতে পারে না। আর ডিজিটাল ক্যামেরা ফ্ল্যাশ যেকোনো স্মার্টফোনের ফ্ল্যাশের চাইতেই শক্তিশালী
স্মার্টফোন :সেলফি
বর্তমানে সময়ে ছবি তোলার অন্যতম একটি অনুষঙ্গে পরিণত হয়েছে সেলফি। একা একাই হোক কিংবা দলবেঁধেই হোক, সেলফি না তুললে যেন মন ভরে না। সেলফি তোলার ক্ষেত্রে স্মার্টফোন নিঃসন্দেহেই প্রথম পছন্দ হিসেবে জায়গা করে নেবে। এখন অনেক স্মার্টফোনকেই সেলফি ফোন হিসেবে বিশেষায়িত আকারে তৈরি করা হচ্ছে। এসব ফোনের ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরার রেজ্যুলেশনও অনেক ভালো থাকে। সেলফি তোলার জন্য তাই স্মার্টফোন অনেক এগিয়ে ডিজিটাল ক্যামেরার তুলনায়।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top