শিরোনাম

শনিবার, জুলাই 22, 2017 - সনির ২৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরার স্মার্টফোন | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - ঢাকায় অনুষ্ঠিত হলো সিগেট ডিলার মিট | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - অনলাইন কর্মসংস্থানে দ্বিতীয় বাংলাদেশ | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - অলেফিন্সে পাওয়া যাচ্ছে ফুল হাইট টার্নস্টাইল গেট | শনিবার, জুলাই 22, 2017 - নিরাপত্তা বিষয়ক পণ্য ও সেবা নিয়ে এসেছে অলেফিন্স ট্রেড কর্পোরেশন | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - উইপ্রোর সঙ্গে চুক্তির কথা স্বীকার করল গ্রামীণফোন | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - লেনোভোর নতুন আর্কষন – আইডিয়াপ্যাড ৩২০ | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - হজ্ব রোমিং প্যাকেজ চালু করল রবি | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - অনলাইন প্রশিক্ষণ সেবা চালু করলো ক্রিয়েটিভ-ই-স্কুল | বৃহস্পতিবার, জুলাই 20, 2017 - ল্যাপটপের চার্জ বাড়ানোর উপায় সমূহ |
প্রথম পাতা / টেলিকম / গ্রাহক স্বার্থ বিবেচনার পর দেওয়া হবে টাওয়ার লাইসেন্স
গ্রাহক স্বার্থ বিবেচনার পর দেওয়া হবে টাওয়ার লাইসেন্স

গ্রাহক স্বার্থ বিবেচনার পর দেওয়া হবে টাওয়ার লাইসেন্স

IMG_6793গ্রাহক স্বার্থ বিবেচনা করে মোবাইল ফোন খাতের টাওয়ার ব্যবসা লাইসেন্স নীতিমালা চূড়ান্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

রাজধানীর একটি হোটেলে আজ শনিবার সকালে  টেলিযোগাযোগ খাতের প্রতিবেদকদের সংগঠন টেলিকম রিপোর্টার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ (টিআরএনবি) আয়োজিত ‘বাংলাদেশে টাওয়ার ব্যবসায় সম্ভবনা’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি বলেন,  নেটওয়ার্ক উন্নয়নে মোবা্ইফোনের টাওয়ারের সু্ষ্ঠ সমন্বয় করতে হবে।

তারানা হালিম বলেন, ”অনিয়ন্ত্রীত টাওয়ার পরিবেশের ক্ষতি করে, যারা বর্তমানে টাওয়ার করেছেন বা আগে যদি কেউ এই ব্যবসায় রয়েছে নতুনরা এসে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড থাকবে কি-না-এই সব বিষয় বিবেচনা করা হবে।”

টাওয়ার শেয়ারিং ব্যবসায় বিভিন্ন দেশে নানা রকমের মডেল রয়েছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের আর্থসামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে একটি মডেল গ্রহণ করতে হবে।”

টেলিযোগযোগ নিয়ন্¿ক সংস্থা বিটিআরসি প্রধান শাহজাহান মাহমুদ বলেন, ‘বিটিআরসি বিনিয়োগ উত্সাহিত করছে এবং বিনিয়োগ সুরক্ষাও নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর।”

তিনি বলেন, “কেউ যেন বাজারকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারে সে বিষয়ে বিবেচনা করেই এই খাতে লাইসেন্স দেওয়া হবে। বাজারের দাবি অনুযায়ী লাইসেন্স দেওয়া হবে। সেখানে ২৪ হাজার টাওয়ার হওয়ার কথা ছিল সেখানে দেশে ৩৬ হাজার টাওয়ার হয়েছে, সামনে ফোরজি প্রযুক্তি চালু হলে আরো টাওয়ার হবে। তবে এই টাওয়ারগুলো মধ্যে কোন শেয়ারিং নেই।”

টাওয়ার কোম্পানীর জন্য আমাদের দেশে ব্যবসা রয়েছে জানিয়ে মাহমুদ বলেন,“নতুন টাওয়ার কোম্পানী আমাদের প্রয়োজন রয়েছে। টাওয়ার ব্যবসা ও টেলিযোগাযোগ সেবা আলাদা হওয়া উচিত্। তবে এই কোম্পানীগুলোকে সয়ংসম্পূর্ণ কোম্পানী হতে হবে।”

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব শওকত মোস্তফা বলেন, “অপারেটর ও অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের সাথে আলোচনা করেই টাওয়ার শেয়ারিং লাইসেন্স নীতিমালা চূড়ান্ত করা হবে।”

গ্রামীণফোনের চিফ করপোরেট অ্যাফায়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন বলেন, ‘যোগ্য কোম্পানীকে টাওয়ার লাইসেন্স দেয়ার বিষয়টি নীতিমালায় থাকা উচিত্। এখানে মার্কেট ওপেন থাকা উচিত যাতে আগামীতে টাওয়ার স্থাপনে কোন বাঁধা না থাকে। কারণ যেখানে টাওয়ার কোম্পানী বা অন্যরাও নেটওয়ার্ক স্থাপনে যাবে না সেখানে অপারেটরদের টাওয়ার স্থাপন করার বিষয়টিও বিবেচনায় থাকতে হবে।”

 

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top