শিরোনাম

মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - সিটিআইটি ফেয়ার-২০১৭ কম্পিউটার মেলা শুরু বৃহস্পতিবার | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - চালু হল ঘড়ি বিক্রয়ের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান টাকশাল | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - আরও দ্রুত ডাউনলোড অপেরা মিনিতে | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - স্মার্ট স্টুডেন্টস অ্যাপ বানালো ডিআইইউ’র শিক্ষার্থীরা | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - সিইবিআইটি মেলায় ডিজিটাল রূপান্তরের অংশীদার হুয়াওয়ে | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - বাংলাদেশে উন্মুক্ত হলো অপো সেলফি এক্সপার্ট এফ৩ প্লাস | শনিবার, মার্চ 25, 2017 - ঢাকায় রোজেন বারগার টেকনোলজিষ্টের পার্টনার্স নাইট | বৃহস্পতিবার, মার্চ 23, 2017 - উভয় পাশ স্ক্যান সুবিধার স্ক্যানার আনলো ইপসন | বৃহস্পতিবার, মার্চ 23, 2017 - প্রপার্টি ভাড়া ও কেনা-বেচায় বিপ্রপার্টি ডটকম | বুধবার, মার্চ 22, 2017 - স্বল্পমূল্যের ল্যাপটপ কিনতে সাবধান ! |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ঝুলন্ত তার অপসারণ করলে ইন্টারনেট ব্যাংকিং কার্যক্রম ক্ষতিগ্রস্ত হবে: আইএসপিএবি
ঝুলন্ত তার অপসারণ করলে ইন্টারনেট ব্যাংকিং কার্যক্রম ক্ষতিগ্রস্ত হবে: আইএসপিএবি

ঝুলন্ত তার অপসারণ করলে ইন্টারনেট ব্যাংকিং কার্যক্রম ক্ষতিগ্রস্ত হবে: আইএসপিএবি

ispab-dpdc-desa

রাজধানীর মতিঝিল-দিলকুশা ও ঢাকা শহরের প্রধান সড়কসহ শাখা সড়কসমূহের বৈদ্যুতিক খুঁটি হতে আগামী ২১ আগস্ট, ২০১৫ তারিখে ঝুলন্ত তার অপসারণের জন্য ডিপিডিসি ও ডেসকো সম্প্রতি যে বিজ্ঞাপন দিয়েছে, তার প্রতিবাদ জানিয়েছে ইন্টারনেট সংযোগদাতাদের সংগঠন আইএসপি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি)। ডিপিডিসি ও ডেসকোর এই সিদ্ধান্তের ফলে ইন্টারনেটের মাধ্যমে পরিচালিত ব্যাংকিং ও যাবতীয় কার্যক্রম বিঘ্নিত হওয়ার আশঙ্কাও প্রকাশ করেছে আইএসপিএবি। গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ বিষয়ে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরে আইএসপিএবি নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্তমানে ‘নেশনওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন লাইসেন্স (এনটিটিএন)’ সেবা দিচ্ছে সামিট কমিউনিকেশন এবং ফাইবার অ্যাট হোম। তবে প্রতিষ্ঠান দুটি আইএসপিএবির চাহিদা পূরণ করতে পারছে না। ফলে সংগঠনের সদস্যরা গ্রাহকদের সেবা দিতে নিজেরাই নেটওয়ার্ক তৈরি করছে। আর তাই ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়ার নির্দিষ্ট জায়গা অর্থাৎ এলডিপি বাড়ানো এবং সমস্যার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ঝুলন্ত তার না কাটার অনুরোধ জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

সম্মেলনে আইএসপিএবির সভাপতি এম এ হাকিম বলেন, ‘প্রতিবারই এ ধরনের পরিস্থিতি হলে ডিপিডিসি এবং বিদ্যুৎ বিভাগের দায়দায়িত্ব এনটিটিএন সেবাদাতাদের বদলে আইএসপি সেবাদাতাদের চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়।’ তিনি উল্লেখ করেন, মতিঝিল ও দিলকুশা এলাকা রাজধানীর অন্যতম বাণিজ্যিক এলাকা, যেখানে জয়েন্ট স্টক কোম্পানি, বিভিন্ন ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়, বিমা ও বড় বড় প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের বেশির ভাগই আইএসপি প্রতিষ্ঠানগুলোর মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযোগ নিচ্ছে। হঠাৎ করে এমন সিদ্ধান্তে এ এলাকায় ইন্টারনেট সেবা চরমভাবে ব্যাহত হবে।

আইএসপিএবির সাধারণ সম্পাদক মো. ইমদাদুল হক ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, মতিঝিল এলাকায় সামিট কমিউনিকেশনের আটটি এবং ফাইবার অ্যাট হোমের আটটি এলডিপি আছে, যা এই এলাকার ভবন ও প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য খুবই কম। তিনি এলডিপি বাড়ানোর আগ পর্যন্ত ঝুলন্ত তার না কাটার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেন।

এ ধরনের সমস্যা এর আগেও হয়েছে এবং আইএসপিএবি থেকে প্রতিবাদও করা হয়েছিল। এর স্থায়ী সমাধান কী হতে পারে, এমন প্রশ্নে আইএসপিএবি নেতারা বলেন, দুটি এনটিটিএন এ সেবা দেওয়ার জন্য যথেষ্ট নয়। ন্যূনতম চার-পাঁচটি এনটিটিএন হলে ভালো হয়। বিশেষ করে ঢাকায় বিভিন্ন এলাকা ভাগ করে এনটিটিএন বাড়ালে এ সেবাটি ভালোভাবে দেওয়া সম্ভব। সারা দেশে বর্তমানে আইএসপিগুলো ৩৭ হাজারের বেশি করপোরেট এবং দেড় লাখের বেশি ব্যক্তিগত গ্রাহকদের সেবা দিচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে আইএসপিএবির সাবেক সভাপতি মো. আক্তারুজ্জামান, সাইবার ক্যাফে ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম কামাল উদ্দিন আহমেদসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top