শিরোনাম

সোমবার, সেপ্টেম্বর 25, 2017 - রংতা ব্র্যান্ডের নতুন পিওএস প্রিন্টার | সোমবার, সেপ্টেম্বর 25, 2017 - নারীর নিরাপত্তা ও শরনার্থীদের শিক্ষা বিষয়ক ধারণা যাচ্ছে ওসলোর টেলিনর ইয়ুথ ফোরামে | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - উদ্বোধনের অপেক্ষায় শেখ হাসিনা সফটওয়্যার পার্ক | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - আপনারই কিছু ভুল হয়তো অজান্তে ফোনের পারফরম্যান্স খারাপ করছে | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - খুলনায় দুইদিনের বেসিক আরডুইনো কর্মশালা অনুষ্ঠিত | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - ঢাকা মহিলা পলিটেকনিককে স্যামসাং এর পক্ষ থেকে অত্যাধুনিক ল্যাব হস্তান্তর  | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - সিডস্টারস ঢাকায় দেশের সেরা স্টার্টআপ সিমেড হেলথ | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - অ্যান্ড্রয়েড ফোনকে মডেম হিসেবে ব্যবহারের উপায় | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - আসছে নকিয়ার আরও দুই ফোন | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - ফেসবুকের পাঁচ মজাদার অপশন যা জানেন না অনেকেই |
প্রথম পাতা / টেলিকম / টোল ফ্রি নম্বর চালু করতে বিটিআরসির নির্দেশনা
টোল ফ্রি নম্বর চালু করতে বিটিআরসির নির্দেশনা

টোল ফ্রি নম্বর চালু করতে বিটিআরসির নির্দেশনা

বাংলাদেশ টেলিকম নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক টোল ফ্রি নম্বর চালুর বিষয়ে বিশেষ নির্দেশনা জারি করেছে। ৪ ডিসেম্বর বিটিআরসির পরিচালক (সিস্টেম ও সার্ভিস) লে. কর্নেল রাকিবুল হাসানের স্বাক্ষরে এ নির্দেশনা জারি করা হয়।আন্তর্জাতিক ও স্থানীয় পর্যায়ে দুই ধরনের টোল ফ্রি নম্বরের জন্য আলাদা নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, দেশে জরুরি কিছু সেবায় টোল ফ্রি নম্বর চালু থাকলেও বাণিজ্যিক ভিত্তিতে এ সেবা চালু নেই। বিটিআরসির নির্দেশনার ফলে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন প্রতিষ্ঠানগুলো গ্রাহকদের আরো উন্নত সেবা দেয়ার জন্য এ সুযোগ নিতে পারবে। নির্দেশনা অনুযায়ী আন্তর্জাতিক পর্যায়ে টোল ফ্রি সেবার (আইটিএফএস) জন্য নির্ধারিত নম্বরগুলো ০৮৮৮ দিয়ে শুরু হবে। এরপর আরো ৭ ডিজিট কমিশন নির্ধারণ করে দেবে বা গ্রাহক তার পছন্দমতো নিতে পারবেন। আন্তর্জাতিক গেটওয়ে (আইজিডব্লিউ) প্রতিষ্ঠানগুলোর মাধ্যমে আইটিএফএস সেবা পাওয়া যাবে।
toll-free-mnumber

এ সেবার ট্যারিফ হবে মিনিটপ্রতি ন্যূনতম দশমিক ০৫ মার্কিন ডলার। আইটিএফএস নম্বর নিতে প্রাথমিকভাবে ১৫ হাজার টাকা ফি দিতে হবে। তবে গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী কোনো নির্দিষ্ট নম্বরের জন্য ফি দিতে হবে ৩০ হাজার টাকা। প্রতি বছর লাইসেন্স নবায়ন করতে পরিশোধ করতে হবে পাঁচ হাজার টাকা। এ ছাড়া একবার এ ধরনের নম্বর নিলে তা কমপে এক বছর চালু রাখতে হবে। না হলে তা বিটিআরসির কাছে ফিরিয়ে দিতে হবে। কোনো গ্রাহকসেবা বন্ধ করতে চাইলে তিন মাস আগে নোটিশ দিতে হবে।

অ্যাকসেস নেটওয়ার্ক সার্ভিস (এএনএস) কোম্পানিগুলো রাজস্ব আদায় করবে। তারা সে আয় থেকে নিজেদের অংশ রেখে বাকিটুকু সংশ্লিষ্ট আইজিডব্লিউ কোম্পানিকে সরবরাহ করবে। আন্তর্জাতিক ফোনকলের রাজস্ব সংশ্লিষ্ট প্রাপকদের দিতে হবে, যা থেকে বিটিআরসি পাবে ৫১ দশমিক ৭৫ শতাংশ, আন্তঃসংযোগ এক্সচেঞ্জ (আইসিএক্স) ১৫ শতাংশ ও বাকিটুকু পাবে আইজিডব্লিউ কোম্পানি।

অন্য দিকে স্থানীয় টোল ফ্রি সেবায় (এলটিএফএস) ০৮০০ দিয়ে শুরু ১১ সংখ্যার নম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে। এলটিএফএসের ন্যূনতম ট্যারিফ নির্ধারণ করা হচ্ছে মিনিটপ্রতি ৬০ পয়সা। এ নম্বর নিতে আগ্রহী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ হাজার টাকা দিতে হবে। তবে বিশেষ নম্বরের জন্য দিতে হবে আরো ১০ হাজার টাকা। প্রতি বছর লাইসেন্স নবায়নে ব্যয় হবে আড়াই হাজার টাকা।

বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, এসব নম্বর হস্তান্তরযোগ্য নয়। কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে আইটিএফএস বা এলটিএফএস নম্বর বরাদ্দ দেয়ার সাত দিনের মধ্যে তা চালু করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে সংশ্লিষ্ট গেটওয়ে প্রতিষ্ঠানগুলো।

প্রসঙ্গত, টোল ফ্রি নম্বর হলো সেই সুবিধা যেগুলোতে ফোন করলে গ্রাহককে বিল পরিশোধ করতে হয় না। রিভার্স ও স্পন্সরড বিলিং নামে দুই পদ্ধতিতে এ সেবা দেয়া হয়। রিভার্স বিলিং ব্যবস্থায় কলগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান বিল পরিশোধ করে। আর স্পন্সরড বিলিংয়ের ক্ষেত্রে তৃতীয় কোনো প্রতিষ্ঠান এ বিল পরিশোধ করে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top