শিরোনাম

রবিবার, জানুয়ারী 21, 2018 - আকর্ষণীয় ফিচার নিয়ে বাজারে আসছে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৯ | রবিবার, জানুয়ারী 21, 2018 - বাংলালিংকের ‘হেলথলিংক ৭৮৯’ সার্ভিসে যুক্ত হল ‘ডক্টরস অ্যাপয়েন্টমেন্ট’ সুবিধা | রবিবার, জানুয়ারী 21, 2018 - গ্লোবাল ব্র্যান্ড নিয়ে এসেছে লেনোভো আউডিয়াপ্যাড ৩২০ ল্যাপটপ | রবিবার, জানুয়ারী 21, 2018 - ব্যবসায়ীদের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস | রবিবার, জানুয়ারী 21, 2018 - হ্যাকিংয়ের কাবলে ওয়ানপ্লাস | রবিবার, জানুয়ারী 21, 2018 - আসছে ইন্টেল কোর আই৯ প্রসেসর এর ল্যাপটপ | রবিবার, জানুয়ারী 21, 2018 - বাণিজ্য মেলায় অপো এফ৫ বিজয়ীদের নাম ঘোষণা | শনিবার, জানুয়ারী 20, 2018 - আরও কঠিন হচ্ছে ইউটিউব থেকে উপার্জন | শনিবার, জানুয়ারী 20, 2018 - ফেসবুক হ্যাকড হলে করনীয় | শনিবার, জানুয়ারী 20, 2018 - কর্মজীবি নারীদের মানহানি বন্ধে আহব্বান |
প্রথম পাতা / কর্পোরেট স্পেশাল / ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এর আয়-ব্যয় নিয়ে ধুম্রজাল !
ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এর আয়-ব্যয় নিয়ে ধুম্রজাল !

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এর আয়-ব্যয় নিয়ে ধুম্রজাল !

ই-এশিয়া’ নামে মেলার আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ২০১১ সাল থেকে দেশে শুরু হয় প্রযুক্তির বড় উৎসব।সেই আয়োজনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের একজন পরামর্শক কে নিয়ে অর্থ নিয়ে গড়মিলের কথা বলা হয় ।  পরবর্তী বছরে নাম বদলে হয় ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১২’। এরপর ২০১৪ সালের জুন মাসে তড়িঘড়ি করে অনুষ্ঠিত হয় ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড’। আগে এই মেলায় আয়োজন শুধু সরকারি উদ্যোগে হলেও চলতি বছরের মতো ২০১৫ সালেও ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড যৌথভাবে আয়োজন করবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ এবং সফটওয়্যার ব্যবসায় খাতের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)।

budget-dw

‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৫’ এ বিগত সময়ের চেয়ে বড় পরিসরে করা হবে। আগামী ৯ থেকে ১২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক চার দিনের আন্তর্জাতিক এই আয়োজন। এই আয়োজন সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) ভবনের অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আরো ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের পরিচালক কবির বিন আনোয়ার, বেসিসের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাসেল টি আহমেদ প্রমুখ।

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে ২০১৫ সালে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড নিয়ে নানা তথ্য তুলে ধরা হলেও বাজেট নিয়ে কোনো তথ্য দিতে পারিননি আয়োজকরা। এমনকি বিগত ২০১৪ সালের ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের আয়-ব্যয়ের হিসাব সম্পর্কে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে উত্তর দিতে পারেনি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)।

সংবাদ সম্মেলনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের কাছে ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত মেলায় কত টাকা আয়-ব্যয় হয়েছিল সেই তথ্য জানতে চান সাংবাদিকরা। জবাবে পলক বলেন, ‘মেলায় কত টাকা খরচ হয়েছে, অতিথিদের জন্য কত টাকা বিমান ভাড়া, হোটেল বাড়া দিতে হয়েছে এসবের বিস্তারিত তথ্য বেসিসের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাসেল টি আহমেদ বিস্তারিত দিতে পারবেন।’

কিন্তু বেসিসের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাসেল টি আহমেদ বলেন, ‘মেলায় খরচের একটা বিষয় ছিল সরকারি ক্রয় যা সরাসরি সরকার ক্রয় করে। সরকারের বাইরে আমরা (বেসিস) টেন্ডারের মাধ্যমে করি। টেন্ডারের মাধ্যমে আমারা নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে সেবা ক্রয় করি। সেক্ষেত্রে আমারা নিশ্চিত করি গুণগতমান। আপনারা বাজেট দেখতে হলে আলাদাভাবে বেসিসের সঙ্গে যোগাযোগ করলে জানাবো। বাজেট প্রেস কনফারেন্সে জানানো যায় না।’ অথচ জানা গেছে ২০১৪ সালের ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের কোন কাজই টেন্ডারের মাধ্যমে দেয়া হই নাই!

অর্থমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে পুরো দেশের বাজেটের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরতে পারলে কেন একটা মেলার আয়োজনের বাজেটের তথ্য সংবাদ সম্মেলনে জানানো যাবে না প্রশ্ন তুলেন সাংবাদিকরা। এর উত্তরে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘কোন খাতে কত টাকা খরচের হয়েছে, কে করেছে এটা জানতে চাওয়া অপরাধ না, জানানোও অপরাধ না।’

এ বছরে মেলার বাজেট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এবারের মেলার বাজেট নিয়ে আমরা অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠাবো, এখানো পাঠানো হয়নি। কিন্তু সেটার কতটুকু অর্থ মন্ত্রণালয় অনুমোদন দেবে তার ওপর নির্ভর করবে বাজেট। ফলে এখন আমারা টাকার অংক বলতে পারছি না। অর্থ মন্ত্রণালয় যদি আমাদের সম্পূর্ণ প্রস্তাব অনুমোদন দেয় তাহলে একরকম, অর্ধেক অনুমোদন দিলে খরচ অর্ধেক কমে আসবে। প্রাইভেট সেক্টর থেকে আমরা গ্যাপ ফিলাপের চেষ্টা করবো। বিভিন্ন পর্যায়ে স্পন্সর থাকবে তাদের কাছে আমরা অফার দেবো। তখন বলা যাবে আসলে মূল বাজেট কতোতে দাঁড়ায়।’

গতবারের মেলার বাজেট প্রসঙ্গে পলক বলেন, ‘গত বছরের সরকারের পক্ষ থেকে আনুমানিক ৭ কোটি টাকা এবং সম্ভবত বেসরকারি খাত থেকে ২ কোটি টাকায় পাওয়া যায়। বিস্তারিত তথ্য বেসিস বলতে পারবে।’

উল্লখ্যে, চলতি বছরের জুন মাসে অনুষ্ঠিত হয় ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড। ওই সময়ও শুরু আগে সাংবাদিকরা মেলার বাজেট সংক্রান্ত তথ্য জানতে চাইলে আইসিটি বিভাগ এবং বেসিস জানায়, এখনো মেলা শেষ হয়নি। মেলা শেষ হলে আমার সম্পূর্ণ আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে পারবো।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top