শিরোনাম

বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - শুরু হলো বাংলাদেশ আইসিটি এক্সপো ২০১৭ | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - স্ক্রিন শেয়ার ফিচার যুক্ত হলো ফেসবুক লাইভে | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - সরকারি কর্মকর্তা এবং সাংবাদিকদের জন্য গুগল চালু করবে অ্যাডভান্সড জিমেইল সিকিউরিটি | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - বায়ার ক্রপসায়েন্স বাংলাদেশ এর ১৫তম বর্ষপূর্তি উৎযাপিত | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - অ্যান্ড্রয়েড ফোনে পর্নোগ্রাফি ব্লক করার উপায় | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - হোয়াটসঅ্যাপ দিবে রিয়েল টাইমে লোকেশন শেয়ারের সুবিধা | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - আইফােন ৮ এবং আইফােন ৮ প্লাস বাজারে আনছে গ্রামীণফােন | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - বাংলাদেশ আইসিটি এক্সপো’তে স্মার্ট এর অফার | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - এমএসআই এর পার্টনার মিট অনুষ্ঠিত | বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডে চ্যাম্পিয়ন ‘প্রিজম ইআরপি’ |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস না করার দাবি সাংবাদিক সংগঠনের
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস না করার দাবি সাংবাদিক সংগঠনের

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস না করার দাবি সাংবাদিক সংগঠনের

cpjডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস না করার আহ্বান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সাংবাদিক সংগঠনের  কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস (সিপিজে)। সংগঠনটির আশঙ্কা, সরকার তার সমালোচনার পথ বন্ধের হাতিয়ার হিসেবে আইনটি ব্যাবহার  করতে পারে।সিপিজের ওয়েবসাইটে গত বুধবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

গত ২২ আগস্ট মন্ত্রিসভা বিভিন্ন ধরনের সাইবার অপরাধের জন্য সর্বোচ্চ ১৪ বছর জেল এবং এক কোটি টাকা পর্যন্ত জরিমানার বিধান রেখে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে’র খসড়া নীতিগতভাবে অনুমোদন করে।

মুক্ত সাংবাদিকতার পরিবেশ তৈরি এবং সাংবাদিকদের সুরক্ষায় কাজ করে নিউইয়র্কভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংগঠন সিপিজে।

আইনটির বিষয়ে সিপিজের বিবৃতিতে বলা হয়, সন্ত্রাসবাদী প্রচার দমন কিংবা স্থিতিশীলতা রক্ষার উদ্দেশ্যের কথা বলা হলেও আইনটি কর্তৃপক্ষের সমালোচনা কিংবা যা তাদের জন্য বিব্রতকর, তা বন্ধের সুযোগ তৈরি করবে।

সংগঠনটি মনে করছে, অনলাইন কনটেন্টের বিষয়ে দ বিধি প্রয়োগ অনলাইন সাংবাদিকতার সাধারণ চর্চাকেও অপরাধ হিসেবে বিচারের সুযোগ তৈরি করা হয়েছে প্রস্তাবিত আইনে।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় সিপিজের জেষ্ঠ প্রতিনিধি শন ক্রিসপিনকে উদ্ধৃত করে বিবৃতিতে বলা হয়, এ আইন পাস হলে তা বাংলাদেশে গণমাধমের স্বাধীনতার ওপর প্রভাব ফেলবে। প্রস্তাবিত আইনে যে ভাষা ব্যাবহার করা হয়েছে, তাতে নির্দোষ সমালোচনাও সাইবার ক্রাইম হিসেবে ধরে নেওয়ার সুযোগ তৈরি করেছে।

আমরা পার্লামেন্টের কাছে জোরাল আহ্বান জানাব, তারা যেন এ আইন পাস না করে। সে সঙ্গে মুক্ত সাংবাদিকতা এবং মত প্রকাশের সুযোগের অন্তরায় হয়, এমন কোনো আইন ভবিষতে যেন না হয়, তা তারা নিশ্চিত করবেন।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top