শিরোনাম

মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ডিজিটাল পেমেন্ট সার্ভিস ইউপের যাত্রা শুরু | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হুয়াওয়ে মেট ১০ এ যা আছে | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - শাওমির নতুন ফোন রেডমি ৫এ | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ফাঁস হয়ে গেল নোকিয়া ৯ এর গোপন সমস্ত তথ্য | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হ্যাকারদের লক্ষ্য বাংলাদেশসহ অন্যান্য এশিয়ার দেশগুলোর ব্যাংকগুলো | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - এডিএন ইডু সার্ভিসেস এর উদ্দেগে এজাইল বিষয়ক কর্মশলা অনুষ্ঠিত | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - প্রথম ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ডসে গ্রামীণফোনের ব্যাপক সাফল্য | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - গুগলের এই এয়ারপড হেডফোন যখন ট্রান্সলেটর | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - কম্পিউটার গেমের আসক্তিতে হতে পারে ভয়াবহ পরিণতি | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - ওটিসি ড্রাগ বিষয়ে সচেতনতা জরুরি |
প্রথম পাতা / অর্থনীতি / ডিজিটাল বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনে বাধা ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট : অ্যামটব
ডিজিটাল বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনে বাধা ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট : অ্যামটব

ডিজিটাল বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনে বাধা ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট : অ্যামটব

amtobbমোবাইল ফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটবের মহাসচিব ও প্রধান নির্বাহী এ টি এম নুরুল কবীর বলেছেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্য অর্জনে বাধা।বুধবার স্থানীয় একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

অ্যামটব মহাসচিব আরও বলেন, ‘বাজেট-পূর্ব আলোচনায় মোবাইল অপারেটরদের পক্ষ থেকে যেসব প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছিল তার কোন প্রতিফলন প্রস্তাবিত বাজেটে ঘটেনি। বরং স্মার্টফোন ও নেটওয়ার্ক সংক্রান্ত যন্ত্রপাতি আমদানিতে কর বৃদ্ধির মাধ্যমে ইন্টারনেট সেবার সম্প্রসারণকে সংকুচিত করার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে; যা সার্বিকভাবে মোবাইল টেলিযোগাযোগ সেবার ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন গ্রামীণফোনের চিফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন, রবির চিফ করপোরেট অ্যান্ড পিপলস অফিসার মতিউল আলম নওশাদ এবং বাংলালিংকের চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তৈমুর রহমান।সংবাদ সম্মেলনে টেলিটকের উপ-মহাব্যবস্থাপক (রেগুলেটরি অ্যান্ড করপোরেট রিলেশন) সাইফুর রহমান খান উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে অ্যামটব মহাসচিব বলেন, ‘দেশে বর্তমানে ১৩ কোটি সিমকার্ড সক্রিয় থাকলেও প্রকৃতপক্ষে মোট জনসংখ্যার ৫৪ শতাংশ মানুষ মোবাইল নেটওয়ার্কে সংযুক্ত রয়েছেন। বাকি ৪৬ শতাংশ মানুষ এখনও সংযোগের বাইরে রয়েছেন। ১০০ টাকা সিমট্যাক্স সঙ্গে নতুন ১৫ শতাংশ ভ্যাট সংযোগের বাইরের জনগোষ্ঠীকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্য ব্যাহত করবে।’ তিনি এ ট্যাক্স প্রত্যাহারের দাবি জানান।

তিনি আরও বলেন, ‘স্মার্টফোন আমদানিতে ৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক বৃদ্ধি এবং বিক্রয় পর্যায়ে ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপের সমালোচনা করে বলেন, দেশে হ্যান্ডসেট সংযোজনকে উৎসাহিত করার যে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা প্রশংসনীয়, কিন্তু এখন পর্যন্ত হ্যান্ডসেট শতভাগ আমদানিনির্ভর হওয়ার এবং সংযোজন শিল্প গড়ে উঠতেও এক থেকে দু’বছর সময় লাগবে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে স্মার্টফোন ব্যবহারের ঘনত্ব ২৭ শতাংশ, কিন্তু থ্রিজি ইন্টারনেট ব্যহার করছেন মাত্র ১৮ শতাংশ গ্রাহক। অন্যদিকে বাজারে ফোরজি হ্যান্ডসেট ব্যবহারের ঘনত্ব মাত্র ৪ শতাংশ। যে মুহূর্তে মোবাইল শিল্প বিকাশের জন্য স্মার্টফোন ব্যবহারের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য চেষ্টা করা উচিত সে মুহূর্তে আমদানি শুল্ক বৃদ্ধি পুরো মোবাইল শিল্পকেই দুর্বল করবে।’

এটিএম নুরুল কবীর বলেন, ‘টেলিযোগাযোগ শিল্পের ওপর নির্ধারিত ৪৫ শতাংশ করপোরেট ট্যাক্স এই খাতে বিদেশি বিনিয়োগের প্রধান অন্তরায়। সরকার তাৎক্ষণিক ক্ষুদ্র লাভের আশায় দীর্ঘমেয়াদি বৃহৎ স্বার্থ বিসর্জন দিয়েছে। এর ফলে সার্বিকভাবে টেলিযোগাযোগ খাতে বিনিয়োগ সংকুচিত হয়ে পড়ছে এবং অ্যামটব মনে করে প্রস্তাবিত বাজেট ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্য অর্জনের প্রতিবন্ধক।’

গ্রামীণফোন, রবি এবং বাংলালিংকের কর্মকর্তারা বলেন, সরকারের উচিত বাজেটে যে সব ক্ষেত্রে করারোপ মোবাইল টেলিযোগাযোগ শিল্পের অগ্রগতিতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে সেসব ক্ষেত্র পুনর্বিবেচনা করা।

তারা আরও বলেন, নেটওয়ার্ক যন্ত্রপাতি আমদানিতে আমদানি শুল্ক বৃদ্ধি অদূর ভবিষ্যতে ফোরজি নেটওয়ার্ক তৈরিতে বিরূপ প্রভাব ফেলবে এবং বর্ধিত করের বোঝার কারণে মানসম্পন্ন সেবা যেমন ব্যাহত হবে তেমনি গ্রাহকদের ওপরও নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top