শিরোনাম

বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - পোক ফিচারটি ফিরিয়ে আনছে ফেসবুক | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - গ্রামীণফোনের প্যানেল আলোচনায় ডিজিটাল চট্টগ্রামের রূপরেখা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - দেশের সবচেয়ে বড় গেমিং প্লাটফর্ম ‘মাইপ্লে’ চালু করলো রবি | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - রাজধানীতে টেকনোর আরও নতুন দুইটি ব্র্যান্ড শপের শুভ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে ল্যাপটপ মেলা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - জরুরি সেবা ৯৯৯ এর উদ্বোধন করলেন জয় | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - নতুন অ্যাপ ‘ফাইলস গো’ চালু করেছে গুগল | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বাজারে এলো শাওমির নতুন দুই ফোন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বিশ্ব বিখ্যাত পাঁচ রাঁধুনি রোবট |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / ঢাকায় শুরু হচ্ছে ‘আ্যপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭’
ঢাকায় শুরু হচ্ছে ‘আ্যপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭’

ঢাকায় শুরু হচ্ছে ‘আ্যপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭’

apictaআইসিটি অস্কার খ্যাত অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ বাংলাদেশে আয়োজন উপলক্ষে গত ০২ ডিসেম্বর (শনিবার) ২০১৭ তারিখ বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর সম্মেলন কক্ষে একটি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এছাড়াও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক, বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার, বেসিস এর উপদেষ্টা ও অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ এর প্রধান বিচারক আবদুল্লাহ এইচ কাফি এবং বেসিস এর জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ও অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭-এর আহ্বায়ক রাসেল টি আহমেদ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মালিহা নার্গিস, বেসিস এর সহ-সভাপতি এম রাশিদুল হাসান, পরিচালক উত্তম কুমার পাল প্রমুখ। উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস এর ট্রফি উন্মোচন করা হয়।

মাননীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, অ্যাপিক্টার সদস্য দেশ হওয়ার মাত্র দুই বছরের মধ্যে আমরা অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ড এর আয়োজক দেশ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছি। সিঙ্গাপুর এবং মালয়েশিয়ার উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, কোনো দেশের এগিয়ে যাওয়ার জন্য একজন স্বপ্নবাজ নেতা, সঠিক পরিকল্পনা ও যথাযথ পরিবেশ দরকার হয়। বঙ্গবন্ধু আমাদের আমাদের সেই নেতা ছিলেন, তিনি আমাদের দেশ দিয়ে গেছেন, ভাষা দিয়ে গেছেন, স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। কিন্তু অর্থনৈতিক মুক্তি আসার আগেই দেশি বিদেশি চক্রান্তের শিকার হয়ে তাঁকে প্রাণ দিতে হলো। একটা আত্মবিশ্বাসহীন এবং স্বপ্নহীন মানুষ কখনো এগিয়ে যেতে পারে না। আমাদের তরুন প্রজন্মের সামনে কোনো স্বপ্ন বা আশা আকাক্সক্ষা ছিল না। ২০০৮ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘোষণার মধ্য দিয়ে তরুণ প্রজন্মকে স্বপ্ন দেখাতে পেরেছেন। তাদের মনে আশার সঞ্চার করতে পেরেছেন। যে কারণে মাত্র ১৩ বছরের মধ্যে ব্যবধানে দেশকে একটি প্রযুক্তি নির্ভর অর্থনীতির দিকে নিতে সক্ষম স্বপ্ন দেখেছি আমরা। ২৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে ৮০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও অধিক রপ্তানি আয় করতে সক্ষম হয়েছি। তবে ২০১৮ সাল নাগাদ বেসিস এর ওয়ান বাংলাদেশ ভিশন এর অন্যতম লক্ষ্য ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি আয় করতে চাই। আমরা ক্রমান্বয়ে ৪র্থ শিল্প বিল্পবের ইমারজিং টেকনোলজির মূলধারার অংশ হতে চাই। এজন্য আমাদের দরকার ফিউচার স্কিল সেট, ইনোভেশন ইকো সিস্টেম, উদ্যোক্তাদের একটা সাপ্লাই চেইন তৈরি করতে হবে। এজন্য আমাদের দরকার তরুণ বুদ্ধিদীপ্ত উদ্যোক্তা, নেটওয়ার্কিং এবং কান্ট্রি ব্রান্ডিং। অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস এর আয়োজন আমাদের এ ক্ষেত্রে বিরাট একটা সুযোগ তৈরি করে দেবে। অ্যাপিক্টার সদস্য ১৭টি ইকোনমি থেকে যারা আসছেন তারা প্রত্যেকেই এক একজন সফল আইটি উদ্যোক্তা এবং উদ্ভাবক। তাদের সাথে আমাদের তরুণ উদ্যোক্তাদের মতবিনিময়ের একটা সুযোগ ঘটবে। অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস এর মাধ্যমে আমরা একটি বড় আন্তর্জাতিক প্লাটফরমে প্রবেশ করতে যাচ্ছি।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক বলেন “এশিয়া প্যাসিফিক তথ্যপ্রযুক্তি খাতের শীর্ষ সংগঠন এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স বা অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের সহ-আয়োজক হতে পেরে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর গর্বিত। এ আয়োজনের মধ্য দিয়ে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তির ইতিবাচক প্রভাব পড়বে, যা পারস্পরিক ব্যবসা সম্প্রসারণে সহায়ক হবে।” তিনি সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের কাছে এ আয়োজনের সংবাদ দেশে বিদেশে ছড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানান।বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, গত বছর তাইওয়ানের তাইপেতে অনুষ্ঠিত অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে ২০১৭ সালের আয়োজক হিসেবে বাংলাদেশের নাম ঘোষণা করা হয়। সেই থেকে আইসিটি অস্কার খ্যাত আ্যপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ ঢাকায় আয়োজনের লক্ষ্যে বেসিস সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সাথে কাজ করেছে। বাংলাদেশে এই প্রথম ৪ শতাধিক বিদেশি অতিথি নিয়ে এ ধরনের একটি বিশাল আইসিটি ইভেন্ট আয়োজন করা হচ্ছে যা বাংলাদেশের জন্য সত্যিই এক বিশাল গর্বের বিষয়। তিনি অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ড ও ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ এর আয়োজন যথাযথ গুরুত্বের সাথে তুলে ধরার জন্য সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিবৃন্দকে অনুরোধ জানান।
বেসিস এর জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ও অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭-এর আহ্বায়ক জনাব রাসেল টি আহমেদ অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ আয়োজনে গৃহিত পরিকল্পনা তুলে ধরেন। তিনি জানান, এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত বিদেশী অতিথিদের বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। কয়েক স্তরের নিরাপত্তার পাশাপাশি তাদের আবাসনের জন্য নির্ধারিত হোটেলগুলোতেও বিশেষ নিরাপত্তা ও হেল্পডেস্ক এর ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া আয়োজনকে উৎসবমুখর করতে বিশেষ পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে। এছাড়া আগামী ৭-১০ ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত অনুষ্ঠেয় এই ইভেন্টটির অংশ হিসেবে আমন্ত্রিত প্রতিযোগিদের নিয়ে ওয়েলকাম রিসেপশন, বাংলাদেশ নাইট অনুষ্ঠিত হবে। ১০ ডিসেম্বর ২০১৭ অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং বেসিস এর যৌথ উদ্যোগে আগামী ৭-১০ ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত অ্যাপিক্টা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ অনুষ্ঠিত হবে। অ্যাপিকটার সদস্যভুক্ত ১৬টি দেশের মধ্যে স্বাগতিক বাংলাদেশসহ অস্ট্রেলিয়া, ব্রুনেই দারুসসালাম, চীন, চীনা তাইপে, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, ম্যাকাও, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, পাকিস্তান, সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম এবং নেপাল অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। মোট ১৫ টি দেশ থেকে ৪ (চার) শতাধিক বিদেশি প্রতিযোগী এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করবে বলে জানা যায়। এছাড়া ১৭টি ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন দেশ থেকে মোট ১৭৭টি প্রকল্প এই প্রতিযোগিতায় বিচারকের সামনে উপস্থাপন করা হবে। বিভিন্ন দেশ থেকে মোট ৬৬জন বিচারক ২ দিন ব্যাপি আয়োজিত প্রকল্প বাছাই প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করবে। আগামী ১০ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখ রবিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র (বিআইসিসি)- তে এই ইভেন্টটির পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস্ ২০১৭ ঢাকা এর সমাপ্তি হবে।

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top