শিরোনাম

শুক্রবার, মে 26, 2017 - স্থগিত হয়ে গেছে বেসিস ২০১৭-১৮ টার্মের ৩ পদে নির্বাচন | শুক্রবার, মে 26, 2017 - রবি’র লোকসান ১৭০ কোটি টাকা | শুক্রবার, মে 26, 2017 - ডোমেইন এবং হোস্টিং এ বিশেষ অফার | শুক্রবার, মে 26, 2017 - তোশিবার অফিস ইকুপমেন্ট দিচ্ছে বিএমই | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - জিপি অ্যাক্সেলারেটরের চতুর্থ ব্যাচের জন্য আবেদন গ্রহণ শুরু | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - বিসিএস-এ ‘ব্যবসা সাফল্যে প্রচার এবং প্রসার’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে দারাজের ফিউচার লিডারশীপ প্রোগ্রাম | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ফাঁস হল নকিয়া ৯ এর ফিচার | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ এর সেরা পাঁচে বাংলাদেশের দুই প্রকল্প | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - স্মার্টফোনে চার্জ না থাকার জন্য দায়ী যে সকল অ্যাপ |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিদেশিদের বিনিয়োগের আহ্বান জয়ের
তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিদেশিদের বিনিয়োগের আহ্বান জয়ের

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিদেশিদের বিনিয়োগের আহ্বান জয়ের

joy-dw-2016দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ করতে  বিদেশিদের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।
এই খাতে বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশে অবকাঠামো প্রস্তুত রয়েছে জানিয়ে জয় বলেন, আমরা দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অবকাঠামো উন্নয়ন অব্যাহত রেখেছি। এজন্য ইতোমধ্যে সিস্টেম ডেভেলপ করা হয়েছে। যে কারণে স্বাভাবিক ভাবেই ডিজিটাল সেবা বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের এখানে সবকিছুই প্রস্তুত। আসুন এখানে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আপনারা বিনিয়োগ করুন। বুধবার চতুর্থবারের মতো দেশে সবচেয়ে বড় তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনী ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৬-তে ৭টি দেশের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীদের নিয়ে সম্মেলনে সজীব ওয়াজেদ এসব কথা বলেন।
গতকাল রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনসন সেন্টারে আয়োজিত ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৬’ সম্মেলনের প্রথম দিনে মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্স নামের এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
মূল প্রবন্ধে সজিব ওয়াজেদ জয় জানান,  দেশে এখন প্রায় ৪০ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। আর মোবাইল ফোন ব্যবহারের পরিমাণ ১৩ কোটি ছাড়িয়েছে। ইন্টারনেট ব্যবহার করে দেশের জনগণ দুই শতাধিক ই-সেবা পাচ্ছে। ২০২১ সালের মধ্যে ৯০ শতাংশ মানুষ এই ই-সেবার অন্তর্ভুক্ত হবে। সেই সঙ্গে দেশের ৯০ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেটের আওতায় আসবে। জয় জানান, ২০২১ সাল নাগাদ প্রযুক্তি খাতে ২০ লাখের বেশি মানুষ কাজ করবে আর এই সময়ে তথ্যপ্রযুক্তির আয় ৫ বিলিয়ন ছাড়িয়ে যাবে। দেশের ই-কমার্স খাতের অগ্রগতি নিয়ে বিদেশি গবেষণার উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, ‘দেশের মধ্যবিত্ত মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বেড়েছে, ফলে দ্রুত এগিয়ে যাবে ই-কমার্স সেক্টর। ২০২৫ সাল নাগাদ এ খাতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি মানের অনেক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠবে।
তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশ তথ্যপ্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আমাদের তরুণ তরুণীরা ফ্রিল্যান্সিংএ বিশ্বের ৩য় বৃহত্তম আউটসোসিং দেশ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। আমরা ইতোমধ্যে প্রমাণ করতে পেরেছি যে আমরা চাইলে কিছু করতে পারি। তথ্যপ্রযুক্তিতে অগ্রসর দেশগুলোর মধ্যে আমরা ৫ম তালিকায় রয়েছি। পৃথিবীব্যাপী আমাদের সুনাম ছড়িয়ে পড়েছে। আমরা  অনেকগুলো পুরস্কার জিততে সক্ষম হয়েছি । সম্প্রতি আমরা তথ্যপ্রযুক্তিতে ‘আইসিটি ফর ডেভেলপমেন্ট’ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছি। এ ছাড়াও নানা ভাবে তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন সূচকে  ক্রমেই এগিয়ে যাচ্ছি।
 অনুষ্ঠিত মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্সে সভাপতিত্ব করেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। পলক জানান, ‘দেশের বেশ কয়েকটি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশ করেছে। এরমধ্যে টাইগার আইটি, রিভ সিস্টেম, ডাটা সফটসহ প্রতিষ্ঠানগুলো যে বিদেশি কাজ করছে তাই আমাদের তথ্যপ্রযুক্তির সক্ষমতার উদাহরণ। আর এরফলেই বিদেশিরা এখন বাংলাদেশের কাছ থেকে তথ্যপ্রযুক্তির জনবলের দিকে আগ্রহ হচ্ছে।
সেশন সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ।
‘মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্স’ নামে ওই সম্মেলনে বাংলাদেশসহ ৭টি দেশের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী ছাড়াও দেশি-বিদেশি তথ্যপ্রযুক্তি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। এরা হলেন- নেপালের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী সুরেন্দ্র কুমার কারকি, উগান্ডার স্টেট ফর আইসিটি অ্যান্ড ন্যাশনাল গাইডেন্স মন্ত্রী নানতাবা আইদা এরিওস, ভুটানের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী লিওনপো ডি এন দুঙেল, সৌদি আরবের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্লানিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের ডেপুটি মিনিস্টার ড.খালিদ এফ.আলওতাইবি, সুরিনামের ট্রান্সপোর্ট, তথ্য ও ট্যুরিজম মন্ত্রী আনদোজো রাসল্যান্ড, ভিয়েতনামের তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক ভাইস মিনিস্টার হোয়াং ভিন ভাও, মালদ্বীপের ফিন্যান্স ও ট্রেজারি প্রতিমন্ত্রী মোহামেদ আসমালি।
সম্মেলনে বেশ কয়েকটি দেশের মন্ত্রী বাংলাদেশকে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে অনুকরণীয় হিসেবে উল্লেখ করেন। সম্মেলন শেষে সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠান আলরাজি এবং বাংলাদেশ হাইটেক কর্তৃপক্ষের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top