শিরোনাম

শুক্রবার, মে 26, 2017 - স্থগিত হয়ে গেছে বেসিস ২০১৭-১৮ টার্মের ৩ পদে নির্বাচন | শুক্রবার, মে 26, 2017 - রবি’র লোকসান ১৭০ কোটি টাকা | শুক্রবার, মে 26, 2017 - ডোমেইন এবং হোস্টিং এ বিশেষ অফার | শুক্রবার, মে 26, 2017 - তোশিবার অফিস ইকুপমেন্ট দিচ্ছে বিএমই | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - জিপি অ্যাক্সেলারেটরের চতুর্থ ব্যাচের জন্য আবেদন গ্রহণ শুরু | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - বিসিএস-এ ‘ব্যবসা সাফল্যে প্রচার এবং প্রসার’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে দারাজের ফিউচার লিডারশীপ প্রোগ্রাম | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ফাঁস হল নকিয়া ৯ এর ফিচার | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ এর সেরা পাঁচে বাংলাদেশের দুই প্রকল্প | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - স্মার্টফোনে চার্জ না থাকার জন্য দায়ী যে সকল অ্যাপ |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / দেশেই তৈরি শুরু হচ্ছে স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ
দেশেই তৈরি শুরু হচ্ছে স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ

দেশেই তৈরি শুরু হচ্ছে স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ

কালিয়াকৈর হাইটেক পার্কে দেশের প্রথম হাইটেক ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটের নির্মাণ কাজ শুরু করেছে সামিট টেকনোপলিস। এ কারখানায় স্মার্টফোন, ট্যাব ও ল্যাপটপের মতো প্রযুক্তি পণ্য তৈরি হবে।

সামিট গ্রুপ ও শ্রীলঙ্কার প্রতিষ্ঠান ইডব্লিউআইএস কলম্বো এ ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটে প্রযুক্তি পণ্য উৎপাদন করবে।

রোববার পার্কের ২ ও ৫ নম্বর ব্লকের অবকাঠামো উন্নয়নে কাজ শুরু করে সামিট ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড মার্চেন্টিয়াল কর্পোরেশন (এসআইএমসিএল) এবং ভারতীয় কোম্পানি ইনফিনিটির যৌথ কনসোর্টিয়াম সামিট টেকনোপলিস।

কাজ শুরু উপলক্ষে গ্রাউন্ড-ব্রেকিং অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বাংলাদেশে এই প্রথমবারের মতো স্মার্টফোন ও ট্যাব তৈরির কার্যক্রম শুরু হলো। হাইটেক পার্কের এক একর জমিতে এই স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ তৈরি হবে। এতে লক্ষাধিক তরুণ- তরুণীর কর্মসংস্থান হবে।

laptop-hitech

পলক বলেন, দেশে প্রচুর পরিমানে স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ কম্পিউটার প্রয়োজন। বছরে তিন লাখ ল্যাপটপ ও ৫ কোটি মোবাইল ফোন আমদানি করতে হয়। এসব পণ্য আমদানি করতে অনেক টাকা বিদেশে চলে যায়।

রোববার ২ নম্বর ব্লকের ফার্স্ট সিগনেচার বিল্ডিং এবং ৫ নম্বর ব্লকে হাইটেক ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটের নির্মাণ কাজ শুরু করে টেকনোপলিস।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন হাইটেক পার্ক অথরিটির এমডি হোসনে আর বেগম ও সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান।

এর আগে ২০১৫ সালের ২৮ জুন হাইটেক পার্ক অথরিটির সাথে ব্লক উন্নয়ন নিয়ে চুক্তি করে সামিট টেকনোপলিস। রাজধানীর হোটেল র‌্যাডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে ওই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যুৎ, খনিজ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। সেখানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পলক।

চুক্তি অনুযায়ী টেকনোপলিস হাইটেক পার্কের অবকাঠামো উন্নয়নে ১ হাজার ৬৩৮ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে। তারা পার্কের ২ এবং ৫ নম্বর ব্লকের অবকাঠামো উন্নয়নের পর ৪০ বছর এর ব্যবস্থাপনায় থাকবে।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ১৫ অক্টোবর বাংলাদেশ টেকনোসিটি লিমিটেড এই কালিয়াকৈর হাইটেক পার্কের উন্নয়ন কাজ শুরু করে। টেকনোসিটির ওই কনসোর্টিয়ামে ফাইবার অ্যাট হোমের সাথে রয়েছে টেকনোলজি পার্ক মালেশিয়া ও আইরিশ কর্পোরেশনের জয়েন ভেঞ্চার, এমএসসি টেকনোলজি সেন্টার এবং আলফা ইনফরমেটিকস লিমিটেড।

পার্কের ৩ নাম্বার বাণিজ্যিক ব্লকটির উন্নয়ন কাজ করছে তারা। এটি ৪০ একর জায়গার। চুক্তি অনুয়ায়ী এই ব্লকে ২০০ কোটি টাকা (প্রায় ২ কোটি ৫৮ লাখ ডলার) বিনিয়োগ করছে টেকনোসিটি।

প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার পর জুনাইদ আহমেদ পলক দেশের সবচেয়ে বড় এই হাইটেক পার্ক নির্মাণে ১৪ বছর ধরে জমে থাকা নানা জটিলতা মিটিয়ে নতুন করে নির্মাণ কাজ শুরুর উদ্যোগ নেন।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top