শিরোনাম

রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - খুলনায় দুইদিনের বেসিক আরডুইনো কর্মশালা অনুষ্ঠিত | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - ঢাকা মহিলা পলিটেকনিককে স্যামসাং এর পক্ষ থেকে অত্যাধুনিক ল্যাব হস্তান্তর  | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - সিডস্টারস ঢাকায় দেশের সেরা স্টার্টআপ সিমেড হেলথ | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - অ্যান্ড্রয়েড ফোনকে মডেম হিসেবে ব্যবহারের উপায় | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - আসছে নকিয়ার আরও দুই ফোন | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - ফেসবুকের পাঁচ মজাদার অপশন যা জানেন না অনেকেই | রবিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2017 - প্যাটার্ন লকও নাকি অনিরাপদ! | শনিবার, সেপ্টেম্বর 23, 2017 - ৭-১০ ডিসেম্বর বাংলাদেশে অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ | শনিবার, সেপ্টেম্বর 23, 2017 - ঢাকায় জাবরা করপোরেট নাইট অনুষ্ঠিত | শনিবার, সেপ্টেম্বর 23, 2017 - ২৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার সনি এক্সপেরিয়া এক্সএ১ প্লাস |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ই-লার্নিং নিয়ে বাংলা ভাষায় প্রথম বই
ই-লার্নিং নিয়ে বাংলা ভাষায় প্রথম বই

ই-লার্নিং নিয়ে বাংলা ভাষায় প্রথম বই

প্রকাশ হলো ই-লার্নিং নিয়ে বাংলা ভাষায় প্রথম বই। ই-লার্নিং: উম্মুক্ত এবং বিভাজিত শিখণ পরিবেশ’ নামে বইটি প্রকাশ করেছে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই)প্রকল্প ।

সোমবার বিকালে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসএসএফ ব্রিফিং কক্ষে বইয়ের মোড়ক উম্মোচন করা হয়।  বিশ্বে মডার্ন ই-লার্নিংয়ের পথিকৃৎ ড. বদরুল হুদা খানের এই বই দেশের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং পাঠকদের উপযোগী রেখে এটি বাংলায় অনুবাদ করেছে এটুআই।

elearning-a2iমোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালেয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, উম্মুক্ত বিশ্বদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এম এ মান্নান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন, শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের পরিচালক ড. মো. আবদুল আউয়াল খান, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিয়া ইনামুল সিদ্দিকী, এটুআইয়ের পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরী এবং শিক্ষাবিজ্ঞানী ও সঙ্গীত শিল্পী ড. সীমা খান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বাংলাদেশে ই-লার্নিং প্রবর্তন করার ক্ষেত্রে নীতি-নির্ধারকসহ মাঠ পর্যায়ের সকল কর্মকর্তাদের ই-লার্নিং বিষয়ক পরিকল্পনা গ্রহণ ও সফলভাবে বাস্তবায়ন করার জন্য বইটি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

ড. এম এ মান্নান বলেন, ই-লার্নিং শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে সরকার নীতিমালা করার উদ্যোগ নিয়েছে। বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় ইতোমধ্যে ই-লার্নিং নিয়ে উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে প্লাটফর্ম তৈরি করা হয়েছে। এই বই সেই উদ্যোগে দারুণ অবদান রাখবে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বর্তমানে বিভিন্ন দেশে আনুষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি ই-লার্নিং, এম-লার্নিং, দূরশিক্ষণ ইত্যাদির মাধ্যমে শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। ড. বদরুল হুদা খানের এই বইটিতে ই-লার্নিং কী, এর উপাদান ও বৈশিষ্ট্য, গতানুগতিক শিক্ষাদান ও ই-লার্নিং, শিক্ষার্থী-কেন্দ্রিক ই-লার্নিং, অনলাইন লার্নিং পরিবেশ সম্পর্কিত নীতিমালা, শিখন সামগ্রী ব্যবহার করে কোর্স পরিকল্পনা ও পরিচালনাসহ আরও মূল্যবান বিষয় আলোচিত হয়েছে। তাই এই বই শিক্ষক, শিক্ষার্থী, শিক্ষা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ নির্বিশেষে সকলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

বইটি প্রকাশের দায়িত্বে ছিলেন এটুআই প্রোগ্রামের ই-লার্নিং বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ফারুক আহমেদ।

ড. বদরুল হুদা খান বলেন, বইটি বাংলাদেশের আধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থায় এক দিগন্তের সূচনা করবে।

তিনি জানান, বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির আশীর্বাদে বিশ্বে কম খরচে বা বিনামূল্যে লেখাপড়ার সুযোগ ‘শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণ’ ক্ষেত্রে এক নতুন বিপ্লব। এটি আশির দশকে আমরা ভাবতেও পারিনি। আমি বাংলাদেশ থেকে আমেরিকায় আসি ১৯৮১ সালের জুলাই মাসে। এখনকার মত যদি তখন ইন্টারনেটের মাধ্যমে লেখাপড়া করার সুযোগ থাকত তবে আমাকে হয়ত এত কষ্ট করে বিদেশে আসতে হত না । আর এখন আমরা বাংলাদেশে বসে বিশ্বের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ক্লাস করতে পারি। অনলাইনে এই শিক্ষাব্যবস্থাই ‘ই-লার্নিং’ নামে এখন বিশ্বব্যাপী পরিচিত।

 

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top