শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং নিয়ে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির সংবাদ সম্মেলন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - বাংলাদেশে ডেলইএমসি এক্সপেরিয়েন্স সেন্টার চালু | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - চীনে স্কাইপ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - আসছে দুই সিমের আইফোন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের জন্য অসাধারণ অ্যাপ ফেসবুক-এর | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - ইয়োন্ডার মিউজিক বাংলাদেশের এক নম্বর মিউজিক অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - উদিয়মান ব্রান্ড হিসেবে লিনেক্স পেল ‘গ্লোবাল ব্রান্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৭’ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড ডিলার সেলিব্রেশন ২০১৭ | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 23, 2017 - এলো ডেলের নতুন ইন্সপাইরন এন৭৩৭০ ল্যাপটপ | বুধবার, নভেম্বর 22, 2017 - আবার স্মার্টফোনে ফিরছে ইন্টেল |
প্রথম পাতা / ইন্টারভিউ / নেটবুক তৈরি বন্ধ করছে আইটি কোম্পানিগুলো
নেটবুক তৈরি বন্ধ করছে আইটি কোম্পানিগুলো

নেটবুক তৈরি বন্ধ করছে আইটি কোম্পানিগুলো

পৃথিবীর সর্বপ্রথম ল্যাপটপ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান তোশিবা’র স্লোগান ‘লিডিং ইনোভেশন’।
তাদের স্লোগানের মতোই সবসময় নতুন উদ্ভাবন দিয়েই তোশিবা শীর্ষে থাকতে চায় বলে জানিয়েছেন সম্প্রতি ঢাকা প্রদর্শন করে যাওয়া তোশিবা সিঙ্গাপুরের সহকারি ব্যবস্থাপক হাইরুল বিন মোহাম্মদ ইব্রাহিম। সম্প্রতি ঢাকার বাজারে তোশিবার নতুন বারোটি মডেল অবমুক্ত করার সময় এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন। তার সাথে ছিলেন তোশিবা সিঙ্গাপুুরের আরেক প্রতিনিধি ম্যাক্স লী।
SAMSUNG DIGITAL CAMERA
হাইরুল জানান, বাংলাদেশের বাজারে এখন তোশিবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি বাজার। এই বাজারের মানুষের ক্রয়ক্ষমতার কথা চিন্তা করে বিশেষ বিশেষ মডেলগুলো তারা এখানে বাজারজাত করছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ৬০ ভাগ মানুষএখনও দরিদ্রসীমার নীচে বসবাস করে। তাদের কথা মাথায় রেখেই তোশিবা কাজ করছে। এজন্য সবার জন্য উপযোগী মডেলগুলোর দিকে বিশেষভাবে মনোনিবেশ করা হয়েছে। তবে উচ্চমূল্যের মডেলগুলো, যেমন, আল্ট্রাবুকের দিকেও গ্রাহকদের চাহিদা রয়েছে।
পরিবেশবান্ধব এবং কম বিদ্যুৎ খরচ করে, এমন মডেলের ল্যাপটপ তৈরি করছে তোশিবা। এর কারণ হিসেবে ম্যাক্স লী বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি বাংলাদেশের বাজারের উপযোগী করে কিছু মডেল তৈরি করতে। এখানে বিদ্যুৎ বড় একটি সমস্যা বলেই এমনভাবে ল্যাপটপগুলো ডিজাইন করা হচ্ছে, যাতে বিদ্যুৎ খরচ কম হয়।’ তিনি জানান, তোশিবার অনেকগুলো মডেল রয়েছে, যেগুলো হাত থেকে পড়ে গেলেও ভাঙবে না।
ক্রেতা সন্তুষ্টি ও বিক্রয়োত্তর সেবা প্রসঙ্গে হাইরুল জানান, তোশিবা গবেষণা ও উন্নয়নে অনেক অর্থ ব্যয় করে পণ্য তৈরি করে। আর ক্রেতা সন্তুষ্টি এবং নতুন প্রযুক্তি নিয়ে আসাই তাদের লক্ষ্য। তোশিবা’র ল্যাপটপে মডেলভেদে ১, ২ এবং এমনকি ৩ বছর পর্যন্ত ওয়ারেন্টি রয়েছে বলে জানান তিনি। এই বিষয়ে বাংলাদেশে তোশিবা’র পরিবেশক স্মার্ট টেকনোলজিসের তোশিবা ব্র্যান্ড ম্যানেজার এএসএম শওকম মিল্লাত বলেন, ‘তোশিবা সবসময়ই বিক্রয় বাড়ানোর চাইতে পণ্যের গুণগত মান এবং বিক্রয়োত্তর সেবার বিষয়েই বেশি গুরুত্ব প্রদান করে থাকে।’
তোশিবা’র নেটবুক মডেল দিন দিন কমছে কেনÑএমন প্রশ্নের জবাবে হাইরুল বলেন, ‘আগামী ছয় মাস পরে আর কোনো নোটবুক বাজারে ছাড়া হবে না। শুধু তোশিবা’ই নয়, সব ল্যাপটপ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানই এখন নেটবুক তৈরি বন্ধ করে দিচ্ছে। এখন সবাই ট্যাবলেট পিসি’র দিকে মনোনিবেশ করছে।’ উদাহরণ হিসেবে তিনি তোশিবা’র ১০ ইঞ্চি ডিসপ্লে’র ট্যাবলেট পিসির কথা উল্লেখ করেন। এছাড়া উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের সর্বশেষ সংস্করণ উইন্ডোজ৮ নেটবুক সমর্থন করবে না বলেও জানান তিনি।
বাংলাদেশে প্রতিদ্বন্দ্বী বিভিন্ন ল্যাপটপ ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে তোশিবা’র অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাইলে হাইরুল বলেন, ‘মাত্র ৩ বছর যাবৎ  যাত্রা শুরু করেও আমরা বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছি। শুরুতে লো-রেঞ্জ প্রোডাক্ট নিয়ে বাজারে এসে প্রাথমিক একটি অবস্থান তৈরি করেছি। সময়ের সাথে সাথে এখন লো রেঞ্জের পাশাপাশি হাই-রেঞ্জের প্রোডাক্টেরও চাহিদা তৈরি হয়েছে। বাংলাদেশে যেহেতু স্বাধীন কোনো প্রযুক্তি বিষয়ক গবেষণা বা প্রযুক্তি বাজার বিশ্লেষক সংস্থা নেই, কাজেই নিশ্চিত করে এখানকার বাজারের কোনো র‌্যাংক বলা কঠিন। তবে আমরা বাংলাদেশের বাজারে ৩ অথবা ৪ নম্বর অবস্থানে রয়েছি।’

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top