শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - জিপি অ্যাক্সেলারেটরের চতুর্থ ব্যাচের জন্য আবেদন গ্রহণ শুরু | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - বিসিএস-এ ‘ব্যবসা সাফল্যে প্রচার এবং প্রসার’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে দারাজের ফিউচার লিডারশীপ প্রোগ্রাম | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ফাঁস হল নকিয়া ৯ এর ফিচার | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ এর সেরা পাঁচে বাংলাদেশের দুই প্রকল্প | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - স্মার্টফোনে চার্জ না থাকার জন্য দায়ী যে সকল অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ফেসবুকে ভিডিও আপলোডে পুরস্কার | বুধবার, মে 24, 2017 - গ্রাহকের হাতে পণ্য তুলে দিতে সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় মাধ্যম বিক্রয় ডট কম | বুধবার, মে 24, 2017 - জেডটিই এবং বাংলালিংক নিয়ে এলো বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভার্চুয়াল এসডিএম | বুধবার, মে 24, 2017 - ৩৩১০ সহ নকিয়ার তিনটি স্মার্টফোন জুন থেকে দেশের বাজারে পাওয়া যাবে |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / পাকিস্তানের বাজারে থাকবে ব্ল্যাকবেরি
পাকিস্তানের বাজারে থাকবে ব্ল্যাকবেরি

পাকিস্তানের বাজারে থাকবে ব্ল্যাকবেরি

পাকিস্তান থেকে সব ধরনের ব্যবসায় ঘুটিয়ে নেওয়ার কথা থাকলেও তেমনটি আর হচ্ছে না; বরং ২০১৬ সাল থেকে দেশটিতে ব্যবসা পরিচালনার কথা জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

blackberry-corporateব্যবহারকারীদের ডেটা নিয়ে পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে বিবাদ মেটার পর শেষ পর্যন্ত আর দেশটি ছাড়তে হচ্ছে না কানাডিয়ান স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ব্ল্যাকবেরিকে।

ব্ল্যাকবেরি নিজস্ব সেবা ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত ডেটা চেয়ে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে বিবাদে জড়িয়েছিল পাকিস্তান সরকার। বিবাদ না মিটলে ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে পাকিস্তানের বাজার ত্যাগ করতে হত ব্ল্যাকবেরিকে জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

এক বিবৃতিতে ব্ল্যাকবেরির চিফ অপারেটিং অফিসার মার্টি বিয়ার্ড বলেন, “ফলপ্রসু আলোচনার পর পাকিস্তান সরকার সেবা বন্ধের আদেশ তুলে নিয়েছে আর ব্ল্যাকবেরি পাকিস্তানের বাজারে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”

২০১৫ সালের জুলাইয়ে ‘নিরাপত্তা অজুহাত’ দিয়ে ব্ল্যাকবেরির সার্ভারের এনক্রিপটেড ট্রাফিকে প্রবেশাধিকার চায় পাকিস্তান সরকার। কিন্তু ওই আদেশ মানতে অস্বীকৃতি জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

প্রতিষ্ঠানটির ব্ল্যাকবেরি এন্টারপ্রাইজ সার্ভিস (বিইএস)-এর ইমেইল আর মেসেজ সেবা সাধারণত করপোরেট গ্রাহক, সরকারী ও সামরিক কর্মকর্তারা ব্যবহার করে থাকেন।

বিয়ার্ড বলেন, “আমাদের বিইএস সার্ভারে প্রবেশাধিকার বা আমাদের গ্রাহকদের কনটেন্ট আমরা সরবরাহ করতে পারবো না, ব্ল্যাকবেরির এমন অবস্থান মেনে নেওয়ায় পাকিস্তান টেলিকমিউনিকেশন অথরিটি আর পাকিস্তান সরকারের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।”

এর আগে ২০১১ সালে ভারতেও ব্ল্যাকবেরিকে এমন ইসু মোকাবেলা করতে হয়। এ নিয়ে কয়েক বছর লড়াই করতে হয়েছিল প্রতিষ্ঠানটিকে। প্রথমদিকে গ্রাহকদের ডেটা সরবরাহের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ২০১৩ সালে নিজেদের অবস্থান থেকে সরে এসে গ্রাহকদের ব্ল্যাকবেরি মেসেঞ্জার (বিবিএম)-এর মেসেজ আর ইমেইলে প্রবেশাধিকার দেয় তারা। কিন্তু বিইএস ইমেইল আর মেসেজ-এর প্রবেশাধিকার কারও হাতে দিতে কখনোই রাজি হয়নি প্রতিষ্ঠানটি।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top