শিরোনাম

বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - পোক ফিচারটি ফিরিয়ে আনছে ফেসবুক | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - গ্রামীণফোনের প্যানেল আলোচনায় ডিজিটাল চট্টগ্রামের রূপরেখা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - দেশের সবচেয়ে বড় গেমিং প্লাটফর্ম ‘মাইপ্লে’ চালু করলো রবি | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - রাজধানীতে টেকনোর আরও নতুন দুইটি ব্র্যান্ড শপের শুভ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে ল্যাপটপ মেলা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - জরুরি সেবা ৯৯৯ এর উদ্বোধন করলেন জয় | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - নতুন অ্যাপ ‘ফাইলস গো’ চালু করেছে গুগল | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বাজারে এলো শাওমির নতুন দুই ফোন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বিশ্ব বিখ্যাত পাঁচ রাঁধুনি রোবট |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / বন্ধ হয়ে যাচ্ছে নোকিয়া ভারতের চেন্নাই কারখানা
বন্ধ হয়ে যাচ্ছে নোকিয়া ভারতের চেন্নাই কারখানা

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে নোকিয়া ভারতের চেন্নাই কারখানা

ভারতের চেন্নাইয়ে অবস্থিত ফিনল্যান্ডভিত্তিক সেলফোন নির্মাতা কোম্পানি নকিয়ার শ্রীপেরুমবুদুর কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। মাইক্রোসফটের কাছে নকিয়ার মোবাইল বিভাগ হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর থেকেই কারখানাটির উত্পাদন বন্ধ রয়েছে। নকিয়ার অন্যতম বৃহত্ এ সেলফোন উত্পাদন কারখানায় কয়েক হাজার শ্রমিক কাজ করতেন বলে জানা যায়। কয়েক দিন ধরে উত্পাদন বন্ধ থাকায় অনিশ্চয়তায় পড়েছে কারখানার বিপুলসংখ্যক কর্মী। 

nokia-india
নকিয়া ইন্ডিয়া এমপ্লয়ি ইউনিয়নের অবৈতনিক প্রেসিডেন্ট ও ট্রেড ইউনিয়নের নেতা এ সুন্দরারাজন বলেন, নকিয়া কারখানাটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছে। শ্রীপেরুমবুদুর কারখানা বর্তমানে অনাথ। কেউই চায় না এটি চালু থাকুক।
তিনি জানান, বিগত ৪০ বছরের ইতিহাসে তিনি কখনো এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হননি। একদিকে কারখানাটির বিষয়ে নকিয়ার ভূমিকা নীরব। অন্যদিকে কারখানাটির ব্যাপারে রাজ্য সরকারের নাটকীয় ভূমিকার মুখে অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে পাঁচ হাজারের অধিক শ্রমিক।
ভারতে নকিয়া কর্মী ইউনিয়নের অন্য এক কর্মকর্তা জানান, কর্মীরা বেশ কয়েক দিন ধরেই আন্দোলন করে যাচ্ছেন শ্রীপেরুমবুদুর কারখানায় উত্পাদন প্রক্রিয়া স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য। কিন্তু নকিয়ার পক্ষ থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি বলে উল্লেখ করেন তিনি। এ কারণেই শেষ পর্যন্ত কর্মীরা কারখানাটি স্ট্রাইক করে রাখে।
জানা যায়, মাইক্রোসফটের ২০ লাখ ইউনিট সেলফোন উত্পাদনের একটি অর্ডার নকিয়ার কাছে রয়েছে। যা ভারতের চেন্নাইয়ের ওই কারখানা থেকে সরবরাহ করার কথা। কিন্তু ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কোনো নির্দেশনা না থাকায় কারখানাটির কর্মীরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে পারছেন না বলে জানা যায়।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক শীর্ষস্থানীয় সফটওয়্যার নির্মাতা কোম্পানি মাইক্রোসফটের কাছে নকিয়ার মোবাইল বিভাগ বিক্রির পর পরই শ্রীপেরুমবুদুর কারখানার বেশকিছু যন্ত্রাংশ অন্য দেশে স্থানান্তর করেছে বলে প্রতিষ্ঠান থেকে জানা যায়। সুন্দরারাজান জানান, নকিয়া মূলত নীরবে কর্মীদের বিকল্প কাজ নিয়ে ভাবতে বাধ্য করছে। নকিয়ার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, তারা চেন্নাই কারখানার কর্মীদের কথা বিবেচনা করেই জব সেপারেশন স্কিম চালু করেছে। এ প্রকল্পের আওতায় কর্মীদের অর্থনৈতিকভাবে সাহায্যের পাশাপাশি অন্য প্রতিষ্ঠানে চাকরি পেতে সহায়তা করা হবে। এছাড়া সংশ্লিষ্ট অন্য কোনো সেক্টরে চাকরির জন্য দক্ষতা অর্জনে পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণেরও ব্যবস্থা করবে নকিয়া। এছাড়া যেসব কর্মী ছয় বছরের অধিক সময় ধরে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে যুক্ত আছেন, তারা সেপারেশন প্যাকেজের সঙ্গে ৬ লাখ রুপি অর্থ সাহায্য পাবেন।
গত বছরের সেপ্টেম্বরে নকিয়া ৭৫০ কোটি ডলারের বিনিময়ে প্রতিষ্ঠানটির চেন্নাইয়ের শ্রীপেরুমবুদুর কারখানাসহ মোবাইল বিভাগ বিক্রির ঘোষণা দেয় মাইক্রোসফটের কাছে। তখন থেকেই কারখানাটিতে বিভিন্ন নাটকীয় ঘটনা ঘটে চলেছে বলে জানা যায়। এর মধ্যে বিপুল পরিমাণ কর ফাঁকির অভিযোগে আদালতের দ্বারস্থ হয় রাজ্য সরকার। তবে সব আইনি ঝামেলা মিটিয়ে গত মাসের ২৫ তারিখ চেন্নাইয়ের শ্রীপেরুমবুদুর কারখানা বাদেই মোবাইল বিভাগ মাইক্রোসফটের কাছে হস্তান্তর করে নকিয়া।
নকিয়ার মোবাইল বিভাগের দায়িত্ব নেয়ার পর পরই নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে রাজিব সুরির নাম ঘোষণা করে মাইক্রোসফট। এছাড়া নকিয়ার মোবাইল বিভাগের ব্যবসা পূর্বের সম্মানজনক পর্যায়ে নিতে সম্প্রতি ৫ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে মাইক্রোসফট।
বিশ্লেষকদের মতে, নকিয়ার চেন্নাই কারখানার ভাগ্য নির্ধারণ করছে মাইক্রোসফটের হাতে। এদিকে বিপুল বিক্রীত নকিয়া ‘আশা’ সিরিজের উত্পাদন সংশ্লিষ্ট সরঞ্জাম এরই মধ্যে ভিয়েতনামে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলেও জানান ট্রেড ইউনিয়নের এক কর্মকর্তা।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top