শিরোনাম

বুধবার, অক্টোবর 18, 2017 - বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডে চ্যাম্পিয়ন ‘প্রিজম ইআরপি’ | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ডিজিটাল পেমেন্ট সার্ভিস ইউপের যাত্রা শুরু | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হুয়াওয়ে মেট ১০ এ যা আছে | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - শাওমির নতুন ফোন রেডমি ৫এ | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - ফাঁস হয়ে গেল নোকিয়া ৯ এর গোপন সমস্ত তথ্য | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - হ্যাকারদের লক্ষ্য বাংলাদেশসহ অন্যান্য এশিয়ার দেশগুলোর ব্যাংকগুলো | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - এডিএন ইডু সার্ভিসেস এর উদ্দেগে এজাইল বিষয়ক কর্মশলা অনুষ্ঠিত | মঙ্গলবার, অক্টোবর 17, 2017 - প্রথম ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাওয়ার্ডসে গ্রামীণফোনের ব্যাপক সাফল্য | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - গুগলের এই এয়ারপড হেডফোন যখন ট্রান্সলেটর | সোমবার, অক্টোবর 16, 2017 - কম্পিউটার গেমের আসক্তিতে হতে পারে ভয়াবহ পরিণতি |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / বাংলাদেশকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বাজার ধরতে হবে :মোস্তাফা জব্বার
বাংলাদেশকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বাজার ধরতে হবে :মোস্তাফা জব্বার

বাংলাদেশকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বাজার ধরতে হবে :মোস্তাফা জব্বার

egenerationবেসিস সভাপতি জনাব মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ হয়েও বিশ্বের সব দেশের আগেই দেশকে ডিজিটাল করার কার্যক্রম নিতে পেরেছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন বাস্তবে রুপ পেয়েছে। কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তির অগ্রযাত্রার সাথে তাল মেলাতে আমাদেরকে আধুনিক প্রযুক্তি যেমন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, আইওটি, রোবটিক্স ইত্যাদি বিষয়গুলোকে কাজে লাগাতে হবে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিষয়গুলো আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়ানো হয় না, বিদেশে গিয়ে পড়তে হয়। আমাদের অনেক তরুণ এ বিষয়ে খুবই ভালো করছে। বর্তমানে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানই মূলত মানসিক কিংবা কায়িক শ্রমের ওপর নির্ভরশীল, যে অবস্থা খুব দ্রুতই পরিবর্তিত হবে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মতো বিষয়গুলোতে আমাদের তরুণদের এসব বিষয়ে দক্ষ করতে হবে। ধরতে হবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিশাল বাজার।

জনাব মোস্তাফা জব্বার আরও বলেছেন, বেসিস তার নীতিগত জায়গা থেকে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে আইওটি, এআই, রোবটিক্স এবং অনেক সর্বশেষ প্রযুক্তি বাস্তবায়নের পরিকল্পনা নিয়েছে। সরকারের সহযোগিতায় আমরা প্রকল্পগুলোর উদ্যোগ গ্রহণ করবো।

তিনি গত ১১ সেপ্টেম্বর (সোমবার) ২০১৭ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ই-জেনারেশন আয়োজিত ‘আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স: দি নেক্সট বিগ থিং ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক একটি আলোচনা সভার প্রধান অতিথি হিসেবে এসব কথা বলেন। রাজধানীর কাওরান বাজারের জনতা টাওয়ারের সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে আয়োজিত এই সভায় উপস্থিত ছিলেন ই-জেনারেশনের চেয়ারম্যান জনাব শামীম আহসান, ই-জেনারেশনের এক্সিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ ক¤িপউটার কাউন্সিল (বিসিসি)-এর সাবেক নির্বাহী পরিচালক জনাব এসএম আশরাফুল ইসলাম, এনভিডিয়ার ডিপ লার্নিং সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার এবং আইবিএমের সাবেক মেশিন লার্নিং ডেভেলপার শেহজাদ নূর তাউস প্রমুখ।

জনাব শামীম আহসান বলেন, ই-জেনারেশনে আমরা বাংলার জন্য ন্যাচারাল ল্যাংগুয়েজ প্রসেসর (এনএলপি) প্রস্তুত করছি, যা মেশিন লার্নিং ও এআইয়ের সঙ্গে সমন্বিত। আমাদের জনগণকে এআই স¤পর্কিত বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিতে হবে, যা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পাঠ্যক্রমে অনুপস্থিত।

জনাব এসএম আশরাফুল ইসলাম বলেন, জনস্বাস্থ্য, কৃষি, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা, জাতীয় নিরাপত্তা, উৎপাদন কার্যক্রম ও সেবা খাতে এআই ব্যবহারের ব্যাপক সুযোগ রয়েছে। সরকার, একাডেমিয়া ও ইন্ডাস্ট্রিগুলোর সমন্বিত সহযোগিতায় বাংলাদেশকে এআইয়ের গ্রহণযোগ্য ক্ষেত্র হিসেবে প্রস্তুত করা প্রয়োজন।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে এআই ব্যবহার করে কীভাবে সমস্যার সমাধান করা যায় আলোচনা সভায় বক্তারা তা নিয়ে কথা বলেন। এছাড়া ডিপ লার্নিং ভিত্তিক নতুন প্রযুক্তিসমূহ, আইওটি ও সেন্সর নিয়েও তারা আলোচনা করেন।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top