শিরোনাম

মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - সিটিআইটি ফেয়ার-২০১৭ কম্পিউটার মেলা শুরু বৃহস্পতিবার | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - চালু হল ঘড়ি বিক্রয়ের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান টাকশাল | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - আরও দ্রুত ডাউনলোড অপেরা মিনিতে | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - স্মার্ট স্টুডেন্টস অ্যাপ বানালো ডিআইইউ’র শিক্ষার্থীরা | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - সিইবিআইটি মেলায় ডিজিটাল রূপান্তরের অংশীদার হুয়াওয়ে | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - বাংলাদেশে উন্মুক্ত হলো অপো সেলফি এক্সপার্ট এফ৩ প্লাস | শনিবার, মার্চ 25, 2017 - ঢাকায় রোজেন বারগার টেকনোলজিষ্টের পার্টনার্স নাইট | বৃহস্পতিবার, মার্চ 23, 2017 - উভয় পাশ স্ক্যান সুবিধার স্ক্যানার আনলো ইপসন | বৃহস্পতিবার, মার্চ 23, 2017 - প্রপার্টি ভাড়া ও কেনা-বেচায় বিপ্রপার্টি ডটকম | বুধবার, মার্চ 22, 2017 - স্বল্পমূল্যের ল্যাপটপ কিনতে সাবধান ! |
প্রথম পাতা / টেলিকম / বিডিক্যাবস দেশের প্রথম ট্যাক্সি অ্যাপ
বিডিক্যাবস দেশের প্রথম ট্যাক্সি অ্যাপ

বিডিক্যাবস দেশের প্রথম ট্যাক্সি অ্যাপ

ট্যাক্সিক্যাব বা ট্যাক্সি বা ক্যাব, হচ্ছে একপ্রকার যানবাহন যা পরিবহনের জন্য গাড়ীচালকসহ ভাড়া করা করা হয় এবং যেখানে একজন অথবা একদল যাত্রী নিজেদের ও সাথে থাকা মালামাল পরিবহন এবং যাতায়াতের জন্য এটি ব্যবহার করে। একটি ট্যাক্সিক্যাব মিটারের অথবা নির্দিষ্ট ভাড়ার বিনিময়ে যাত্রীর পছন্দমত যায়গায় তাকে বা তাদেরকে পৌছে দেওয়া ব্যবস্থা করে। বিভিন্ন দেশে ট্যাক্সিক্যাব চেনার জন্য এগুলো সাধারনত হলুদ রঙের হয়ে থাকে। তবে বিভিন্ন জায়গা এবং অঞ্চলভেদে এই রঙের তারতম্য হয়। যাত্রী পরিবহনে উন্নত বিশ্বের মত বাংলাদেশেও ট্যাক্সিক্যাবের প্রচলন আছে।

বাংলাদেশে প্রথম ট্যাক্সিক্যাব নামানো হয় ১৯৯৭ সালে। সে সময় কালো রঙের নন-এসি এবং হলুদ রঙের এসি ক্যাব চালু করা হয়। একাধিক কোম্পানি ট্যাক্সিক্যাব আমদানি করে যাত্রী চাহিদার সাথে মিল রেখে । এরপর আবার, ২০০২ সালে ট্যাক্সিক্যাব আমদানি করা হয় যাত্রী সেবায়।

দীর্ঘ বিরতির পর ২০১৪ সালে ট্যাক্সিক্যাব আমদানি করা হয় । যদিও এখন সারা বাংলাদেশে চলাচল করা ট্যাক্সিক্যাব যাত্রী চাহিদার তুলনায় অনেক বেশী অপর্যাপ্ত।

কাজীর গরু খাতাপত্রে থাকলেও বাস্তবে দেখা মেলে না। ট্যাক্সিক্যাবের অবস্থাও ঠিক তেমনি। খাতাপত্রে যাই হোক বাস্তবে রাজধানীতে এখন ট্যাক্সিক্যাবের অস্তিত্ব নেই বললেই চলে। আর যাও বা আছে ,সেটা নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে চলে তুমুল কাড়াকাড়ি।
IMG_5235
ঢাকার মতো নেতৃস্থানীয় মেগাসিটিতে ট্যাক্সিক্যাব থাকবে না কিংবা থাকলেও তার দেখা পাওয়া ডুমুরের ফুলের মতো অসম্ভব হয়ে উঠবে এটি আশা করা যায় ঢাকায় চলাচলকারী ট্যাক্সিক্যাবগুলো অবশ্য কানেক্টিভিটি হিসেবে রাজধানী ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলা নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, নরসিংদী ও গাজীপুর এ চলাচল করতে পারে।

সাধারণ যাত্রীরা ট্যাক্সিক্যাব ডাক দিয়েই সেবা পান না সহজে। এর কিছু কারণ রয়েছে , কারণগুলো হলো—

যাত্রীর তুলনায় ট্যাক্সিক্যাবের স্বল্পতা

এক সময় ঢাকার রাস্তায় ১২ হাজার ট্যাক্সিক্যাব চলাচল করলেও এর সংখ্যা কমে এখন চার ভাগের এক ভাগ, অর্থাত্ তিন হাজারে ঠেকেছে। ক্যাব-মালিকরা বলছেন, প্রশাসনিক ‘জটিলতায়’ এবং কর্তৃপক্ষের ‘উদাসিনতার’ কারণেই রাজধানীর রাজপথ থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে ট্যাক্সিক্যাব। এদিকে ট্যাক্সিক্যাবের সংখ্যা কমে যাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। মূল ভাড়ার দ্বিগুণ টাকা গুণে তাদের গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের হিসাবে, ২০০৭ সালে রাজধানীতে প্রায় ১২ হাজার ট্যাক্সিক্যাব চলাচল করতো। এখন যেগুলো সচল রয়েছে, সেগুলোর মেয়াদও ২০১৩ সালের মধ্যে শেষ হয়ে গেছে।

ভাড়া সংক্রান্ত জটিলতা

সরকার ও ট্যাক্সিক্যাব মালিক বা অপারেটরদের নির্ধারিত একটি ভাড়ার তালিকা আছে। কিন্তু ট্যাক্সিক্যাব স্বল্পতার কারণে সেটা মানা সম্ভব হয় না। এছাড়া উন্নত বিশ্বে নির্ধারিত ভাড়ার পাশাপাশি ট্যাক্সিক্যাব চালকদের টিপস/বখশিশ দেওয়ার একটি রীতি আছে ,যা বাংলাদেশে নেই। তাই যাত্রীর সাথে ট্যাক্সিক্যাব চালকদের ভাড়া সংক্রান্ত জটিলতা একটি নিয়মিত ব্যাপার।

ট্যাক্সিক্যাব চালক যাত্রীর মধ্যে যোগাযোগের অব্যবস্থাপনা

সত্যিকথা বলতে কি ট্যাক্সিক্যাব চালক ও যাত্রীর মধ্যে যে আন্তঃযোগাযোগ এর নূন্যতম ব্যবস্থাই নেই। যাত্রীর যখন প্রয়োজন তখন রাস্তা বা মহল্লার মোড়ে দাড়িয়েই ট্যাক্সিক্যাব এর অপেক্ষা করছেন, হাত তুলে ডাকছেন। দরকারের সময় দেখা গেল যে, যাত্রী যে রাস্তায় অপেক্ষা করছে ট্যাক্সিক্যাবের জন্য, সেখানে কোন ট্যাক্সিক্যাব নেই, অথছ তার পাশের রাস্তাতেই ভাড়ার অপেক্ষায় ট্যাক্সিক্যাব বসে আছে। শুধুমাত্র ট্যাক্সিক্যাব চালক ও যাত্রীর মধ্যে যোগাযোগের অব্যবস্থাপনার কারনেই এমন হচ্ছে।

এসকল সমস্যার সমাধান একেবারে চোখের পলকেই না হলেও, আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে অনেকটা সমাধান করা সম্ভব। আর এই সমাধান দিতে এশিয়ান ইনফর্মেশন টেকনোলজি লিঃ বাজারে এনেছে “বিডিক্যাবস” অ্যাপটি, যা ২০১৫ ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড মেলাতে প্রথম উদ্বোধন করা হয়।

বিস্তারিত জানতে দেখুন: www.bdcabs.com

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top