শিরোনাম

বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - জেমসক্লিপ এবং অ্যাডকম লিমিটেড-এর সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - টানলেই ইলাস্টিকের মতো বাড়বে এই ব্যাটারি,দাবি গবেষকদের | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - টাকার চিন্তায় ডুবে থাকা মানুষই ফেসবুকে বেশি অ্যাক্টিভ:গবেষণা | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - হোয়াটস অ্যাপে নতুন ফিচার,গ্রুপ থেকেই ব্যক্তিগত মেসেজ | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - পোক ফিচারটি ফিরিয়ে আনছে ফেসবুক | বুধবার, ডিসেম্বর 13, 2017 - গ্রামীণফোনের প্যানেল আলোচনায় ডিজিটাল চট্টগ্রামের রূপরেখা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - দেশের সবচেয়ে বড় গেমিং প্লাটফর্ম ‘মাইপ্লে’ চালু করলো রবি | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - রাজধানীতে টেকনোর আরও নতুন দুইটি ব্র্যান্ড শপের শুভ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে ল্যাপটপ মেলা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম |
মহারণে নতুন তারকা

মহারণে নতুন তারকা

সম্প্রতি  আত্মপ্রকাশ করল স্মার্টফোন-মহাযুদ্ধের অন্যতম প্রতিযোগী Samsung Galaxy S4। যদিও বিশ্ব এই ফোনকে দেখেছে কিছু আগেই।এ বার আমাদের দেখার পালা।

আইফোন ৫-এর সঙ্গে লড়াইয়ে স্যামসাঙের ঘোড়া এই ফোন। অনেক বিশেষজ্ঞের মতে এই যুদ্ধে তিনি এগিয়ে আছেন কয়েক কদম। Galaxy S4-এর রয়েছে ৫ ইঞ্চির ক্যাপটিভ টাচ্ স্ক্রিন। এতে ১৯২০ x ১০৮০ পিক্সেল বা ৪৪১পিপিআই পুরোপুরি এইচডি ‘Super AMOLED’ ডিসপ্লে দেখা যাবে। এটি আইফোন থেকে প্রায় ৫৬ শতাংশ বড়। আগের Galaxy থেকে হালকা ও সরু। ওজন প্রায় ১৩০ গ্রাম এবং বেধ ৭.৯ মিলিমিটার। এই ফোনের ভিতরে থাকছে ১৬ জিবির মেমোরি। তবে মাইক্রো এসডি কার্ড-এ মেমোরি প্রায় ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়। রয়েছে ২ জিবি র‌‌্যাম। এই ফোন ১.৯ গিগাহার্জ Quad-Core এবং ১.৬ গিগাহার্জ Octa-Core. এই দু’ধরনের প্রসেসর ব্যবহার করবে। মডেল ভেদে প্রসেসর পাল্টে যাবে।

আইফোন ৫-এর সঙ্গে লড়াইয়ে স্যামসাঙের ঘোড়া এই ফোন। ছবি- স্যামসাং।

S4-এ আছে ২০০০ mAh ব্যাটারি। এই ব্যাটারি S III.-এর থেকে ২০ শতাংশ বড়। ফোনটি চলবে অ্যানড্রয়েড ৪.২.২ অপারেটিং সিস্টেমে। আছে দু’টি ক্যামেরা। পিছনের ক্যামেরাটি ১৩ মেগাপিক্সেলের, সামনেরটি ২ মেগাপিক্সেলের। সামনের ক্যামেরায় রয়েছে ফ্ল্যাশ, অটোফোকাস ও জিরো শাটার ল্যাগের সুবিধা। সামনের ক্যামেরাও @৩০এফপিএস পুরোপুরি এইচডি রেকর্ড করতে পারে। এই ক্যামেরারও জিরো শাটার ল্যাগ। এ ছাড়া জিও-ট্যাগিং, ফেস-স্মাইল ডিটেক্টশন ইমেজ স্টেবিলাইজেশনের মতো সুবিধাও থাকছে। Galaxy S4-এ পাবেন ‘Sound and Shot’। এতে কোনও ছবি তোলার আগে কয়েক সেকেন্ড শব্দ রেকর্ড করা যাবে।
ফলে কোনও ছবির সঙ্গে আবহ-শব্দ শোনা যেতে পারে। ‘Drama Shot’-এ কোনও চলমান বস্তুর পর পর অনেকগুলি ছবি তুলে সেগুলিকে একটি ছবিতে মিশিয়ে দেওয়া হয়। ফলে সময়ে সঙ্গে সঙ্গে বস্তুটির পরিবর্তন দেখা যাবে।

মজা হল এই ফোনে সামনের ও পিছনের ক্যামেরায় এক সঙ্গে রেকর্ডিং করা যায়। ভিডিও তোলার সময়ে নানান ফ্রেম এবং এফেক্টস বেছে নিতে পারেন। দু’টি ক্যামেরার ছবি মেশানো, একটির মধ্যে আর একটির ছবি ছোট করে নেওয়ার মতো প্রায় আট ভাবে দু’টি ক্যামেরার ছবি মেশানো সম্ভব। এ ফোনে ভিডিও চলবে চোখের ইশারায়। অর্থাৎ আপনি যদি স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকেন তবেই ভিডিও চলবে। চোখ সরালে বন্ধ হয়ে যাবে। ছবি থেকে গান বা গান থেকে ছবিতে যেতে গেলে হাত নাড়ানোই যথেষ্ট। কোনও ই-মেল বা ছবির অ্যালবামের উপর আঙুল নাড়ালেই ই-মেলে কী লেখা আছে বা অ্যালবামের ছবিগুলির ঝলক দেখা যাবে। অর্থাৎ এই ফোনে ‘মোশন কন্ট্রোল’ অনেক কাজ করা যাবে।

Galaxy S4 HSPA-এ ৪২ এমবিপিএস স্পিডে নেট সংযোগ করা যায়। আছে ৪ জি-র LTE-এর সুবিধা। তা ছাড়া ওয়াই-ফাই, ব্লু-টুথ ৪.০ (LE)ও আছে।

স্যামসাং সূত্রে খবর, এ ফোনের এমআরপি ৪২ হাজার টাকা হলেও বাজারে তা মিলবে ৪০ হাজারের কমে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top