শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - গাড়ি চালাতে এবার থেকে আর কোনও চাবির প্রয়োজন নেই! | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিজয়ী কাস্টমারদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে সিম্ফনি ঈদ অফার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিশ্বব্যাপী সাইবার হামলায় ৬ মাসেই ক্ষতি ৪০০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - এইচটিসি স্মার্টফোন ব্যবসা কিনতে গুগলকে গুনতে হবে ১১০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - টাকা না পেলে টেলিটক মারা যাবে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড পরিদর্শনে হিটাচি এক্সক্লুসিভ টিম | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী’র ‘অ্যাসোসিও ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ারটেল’র ‘ইয়োলো ফেস্ট’ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় নতুন দেশি অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ড্যাফোডিলে ‘সমন্বিত শিক্ষণ পদ্ধতিতে গুগল ক্লাসরুমের ব্যবহার’ শীর্ষক লেকচার সেমিনার অনুষ্ঠিত |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / মার্চে পিকাসা বন্ধের ঘোষণা গুগলের
মার্চে পিকাসা বন্ধের ঘোষণা গুগলের

মার্চে পিকাসা বন্ধের ঘোষণা গুগলের

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে জনপ্রিয় ছবি ভিউ, সম্পাদনা ও শেয়ারিং অ্যাপলিকেশন পিকাসা। অ্যাপলিকেশনটির সত্ত্বাধিকারী গুগল ঘোষণা দিয়েছে আগামী মাসে (মার্চ) বন্ধ করে দেয়া হবে এটি।

picasa-corporateবর্তমানে গুগলের দুটি ছবি স্টোরেজ ও শেয়ারিং অ্যাপলিকেশন আছে। একটি হলো পিকাসা, অপরটি গুগল ফটোস। তাই গুগল এই অ্যাপটির পেছনে আর বিনিয়োগ করতে চাইছে না।

গুগল ঘোষণা দিয়েছে এ বছরের মার্চ থেকে পিকাসার ডেক্সটপ অ্যাপলিকেশনটি বন্ধ করে দেয়া হবে। যেসব ব্যবহারকারী পিকাসা ওয়েব অ্যালবাম ব্যবহার করতেন তাদের ডাটাগুলো সরিয়ে গুগল ফটোস-এ রাখার পরামর্শ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। যারা এখনো ডাটাগুলো সরিয়ে নেননি তারা এই ঠিকানায় গিয়ে গুগল ফটোস ডাউনলোড করতে পারেন।

বর্তমানে গুগলের এই অ্যাপলিকেশ ব্যবহারকারীরা এটি ব্যবহারে কোনো সমস্যায় পড়বেন না। তবে মার্চে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর থেকে সফটওয়্যারটি আর ডাউনলোড করা যাবে না। আপডেট করা যাবে না এর কোনো ফিচারও।

২০০২ সালে লাইফস্কেপ নামের একটি কোম্পানি পিকাসা তৈরি করে। ২০০৪ সালে এটি কিনে নেয় গুগল। এটির সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে ফেস রিকগনিশেন সিস্টেম। এছাড়া এতে সহজেই ফটো এডিট করা যায়।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top