শিরোনাম

বুধবার, মে 24, 2017 - ৩৩১০ সহ নকিয়ার তিনটি স্মার্টফোন জুন থেকে দেশের বাজারে পাওয়া যাবে | বুধবার, মে 24, 2017 - ফেইসবুকের দেখা, না দেখা | বুধবার, মে 24, 2017 - চলতি বসরে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া স্মার্টফোনসমূহ | বুধবার, মে 24, 2017 - জাতীয় ইন্টারনেট সপ্তাহ শুরু | বুধবার, মে 24, 2017 - ডাক্তারদের জন্য ই-প্রেসক্রিপশান সফটওয়্যার | মঙ্গলবার, মে 23, 2017 - বেসিস নির্বাচন :লটারিতে বাদ পড়েছেন মোস্তাফা জব্বার, রাসেল ও ফারহানা | মঙ্গলবার, মে 23, 2017 - গাজীপুরে স্যামসাং এর ৫০তম ব্র্যান্ড শপ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, মে 23, 2017 - ঢাকা বিভাগে পুরোদমে চলছে রবি-এয়ারটেল নেটওয়ার্কের সমন্বয় | মঙ্গলবার, মে 23, 2017 - ঈদের আনন্দ দ্বিগুণ করতে হুয়াওয়ের আকর্ষণীয় অফার | মঙ্গলবার, মে 23, 2017 - আইসিটি স্কলার ফেলোশিপ |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / মিয়ানমারের টেলিযোগাযোগ সেবা উন্নয়নের ঘোষণা দিল ইডটকো
মিয়ানমারের টেলিযোগাযোগ সেবা উন্নয়নের ঘোষণা দিল ইডটকো

মিয়ানমারের টেলিযোগাযোগ সেবা উন্নয়নের ঘোষণা দিল ইডটকো

মিয়ানমারে সমৃদ্ধ যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে সম্প্রতি দেশটিতে কার্যক্রম পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে মোবাইল ফোন টাওয়ার কোম্পানি ইডোটকো গ্রুপ (ইডটকো)। এ উপলক্ষ্যে একটি কৌশলগত লক্ষ্যও উন্মোচন করেছে কোম্পানিটি।

e.co-myanmar-corporateমিয়ানমারে স্থানীয় অংশীদার ইওমা স্ট্রাটেজিক হোল্ডিংস লিমিটেডের সাথে যৌথভাবে তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রমের বিস্তার ঘটাবে ইডটকো। গ্রাহকদের স্বার্থে স্থানীয় বাজার সম্পর্কে ইওমার অভিজ্ঞতা এবং মোবাইল টাওয়ার ও অবকাঠামো ভাগাভাগির ব্যাপারে ইডটকোর দক্ষতার সম্মিলনে নতুন এই বাজারের কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। আগামী তিন বছরে ৫ হাজার টাওয়ার নির্মাণ ও অধিগ্রহণ করার লক্ষ্যে ৫ বছরে ২০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ইডটকো।

ইডটকোর গ্রুপ চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার সুরেশ সিধু বলেন, ‘আমরা মিয়ানমারে উচ্চ মানসম্মন্ন টেলিযোগাযোগ নেটওয়ার্ক স্থাপনে বদ্ধপরিকর। বিকল্প জ্বালানি ব্যবস্থা, দ্বি-মুখী সুবিধা কাঠামো এবং আমাদের নিজস্ব ইকো রিমোট পর্যবেক্ষণ ও ব্যবস্থাপনা প্রক্রিয়ার মত স্থিতিশীল ও মূল্য-সংযোজক সেবা চালুর মাধ্যমে এ লক্ষ্য অর্জন করব। পরোক্ষ টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো স্থাপন ও এর কার্যকর ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছে নির্ভরযোগ্য ও সেরা নেটওয়ার্ক সেবা পৌঁছানোর লক্ষ্যে সারা দেশে সংযোগ স্থাপন করব আমরা।’

“মিয়ানমারের টেলিযোগাযোগ সেবার উন্নয়নের অংশীদার হতে পেরে এবং আমাদের আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন সেবা ও অভিজ্ঞতা দিয়ে দেশটির অগ্রগতিতে ভূমিকা রাখার সুযোগ পেয়ে আমরা আনন্দিত। এশিয়ার বেশ কয়েকটি উন্নয়নশীল দেশে বিস্তর অভিজ্ঞতা এবং সমৃদ্ধ যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপনে আমাদের সাফল্যের ভিত্তিতে মিয়ানমারের অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও মানুষের উন্নয়নে ইডটকো উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারবে।”

ইওমা স্ট্রাটেজিক’র চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার মেলভিন পুন বলেন, ‘ইডটকোর সাথে আমরা মিয়ানমারের টেলিযোগাযোগ খাতে বিনিয়োগের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। দেশব্যাপী নির্ভরযোগ্য টেলিযোগাযোগ নেটওয়ার্কের উপস্থিতি মিয়ানমারের অধিবাসীদের জীবনমান উন্নয়নে কার্যকর ভূমিকা রাখবে এবং আমরা সে উন্নয়নের অংশীদার হতে পেরে গর্বিত।’

নতুন এই বাজারে ইডটকো মিয়ানমারের টেলিযোগাযোগ শিল্পের অগ্রগতিতে স্ট্রাটেজিক পার্টনার হিসাবে ভূমিকা রেখে মূলত দেশটির সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রার অংশীদার হবে। উন্নত ইকো সেন্টার স্থাপনসহ মিয়ানমারের টাওয়ার সেবায় আঞ্চলিক অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে সামগ্রিক প্রযুক্তি স্থাপন করবে।

দেশটিতে মোট টাওয়ার সংখ্যা বর্তমানে ৭ হাজার ৯০০ থেকে বেড়ে ২০২৪ সাল নাগাদ ২৯ হাজারে উন্নীত হবে বলে প্রত্যাশ করা হচ্ছে। মিয়ানমারে সমৃদ্ধ যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে সম্প্রতি দেশটিতে কার্যক্রম পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে মোবাইল ফোন টাওয়ার কোম্পানি ইডোটকো গ্রুপ (ইডটকো)।

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top