শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - এইচটিসি স্মার্টফোন ব্যবসা কিনতে গুগলকে গুনতে হবে ১১০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - টাকা না পেলে টেলিটক মারা যাবে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড পরিদর্শনে হিটাচি এক্সক্লুসিভ টিম | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী’র ‘অ্যাসোসিও ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ারটেল’র ‘ইয়োলো ফেস্ট’ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় নতুন দেশি অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ড্যাফোডিলে ‘সমন্বিত শিক্ষণ পদ্ধতিতে গুগল ক্লাসরুমের ব্যবহার’ শীর্ষক লেকচার সেমিনার অনুষ্ঠিত | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ভারতে গুগলের মোবাইল পেমেন্ট অ্যাপ ‘তেজ’ উন্মুক্ত | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বাংলাদেশের ডিজিটাল রূপান্তরে নিজেদের সক্ষমতার প্রমাণ দিল এসএপি | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ২০১৭ টিভি লাইন-আপ উদ্বোধনের মাধ্যমে টিভি পিকচার ও ডিজাইনে নতুনত্ব নিয়ে এলো স্যামসাং |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / মোবাইল ডিভাইস এর নিরাপত্তায় ৯ টিপস
মোবাইল ডিভাইস এর নিরাপত্তায় ৯ টিপস

মোবাইল ডিভাইস এর নিরাপত্তায় ৯ টিপস

মাহফুজুর রহমান মুকুলঃআমাদের দেশে এন্ড্রয়েডচালিত স্মার্টফোন এর ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলেছে। স্মার্টফোনের ব্যবহার বৃদ্ধির সাথে সাথে এর নিরাপত্তার বিষয়টিও এখন গুরুত্বপূর্ন হয়ে উঠেছে। ডেস্কটপ কিংবা ল্যাপটপের ইন্টারনেট ভিত্তিক অনেক কাজই এখন মানুষ স্মার্টফোনে সেরে ফেলেন। এতে করে ইন্টারনেট ভিত্তিক বিভিন্ন ভাইরাস স্মার্টফোনে ঢুকে যাওয়ার ঝুঁকিও মারাত্মক আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাছাড়াও ওঁত পেতে থাকা হ্যাকারদের ভয় তো থাকছেই। বিশ্বখ্যাত এন্টিভাইরাস নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাভিরার পক্ষ থেকে মোবাইল ডিভাইসের নিরাপত্তা বিষয়ক ১০টি টিপস প্রকাশ করা হয়েছে যা অনুসরন করে আপনার স্মার্টফোনকে কিছুটা হলেও নিরাপদ রাখতে পারেন।

Android Security

টিপস ১- ডিভাইসে শক্তিশালি পাসওয়ার্ড সেট করা:
পাসওয়ার্ড নির্ধারনের ক্ষেত্রে আপনার ফোন নম্বর, জন্মদিন এর তারিখ কিংবা আপনার বহুল ব্যবহৃত কোন নাম্বার ব্যবহার করবেন না। পাসওয়ার্ডটিতে অবশ্যই সংখ্যা ছোট হাতের এবং বড় হাতের অক্ষরের মিশেল রাখবেন।
টিপস ২-একটি এন্টি-থেপ্ট সল্যুশন সেট করুন:
ল্যাপটপ কিংবা ডেস্কটপ এর তুলনায় স্মার্টফোন খুব হরহামেশাই হারায় কিংবা চুরি হয়ে থাকে। তাই স্মার্টফোনে এন্টি-থেপ্ট সল্যুশন এর ব্যবহার খুবই গুরুত্বপূর্ন। কিছু কিছু মোবাইল ডিভাইসে এই সল্যুশনটি ইনস্টল করাই থাকে। যেমন: আইফোন এ ‘ফাইন্ড মাই আইফোন’। তবে যাদের ফোনে এই ধরনের সল্যুশন থাকে না, তারা অ্যাভিরা ফ্রি মোবাইল সিকিউরিটি টাইপের বিশ্বস্ত কোন ব্রান্ডের মোবাইল সিকিউরিটি ব্যবহার করতে পারেন।
টিপস ৩-অপারেটিং সিস্টেম এর হালনাগাদ ভার্সন ইনস্টল করুন:
কিছু কিছু অপারেটিং সিস্টেম নিজ থেকেই হালনাগাদ হয়ে থাকে। তবে আপনার স্মার্টফোনে সাপোর্ট করে এমন সর্বশেষ হালনাগাদ ভার্সনের অপারেটিং সিস্টেমটি ব্যবহারের চেষ্টা করুন। এতে শুধুমাত্র আপনার অপারেটিং সিস্টেমে নতুন ফিচারই যোগ হবে না, ফোনের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও হালনাগাদ থাকে। ফলে ভাইরাস আক্রমনের স্বীকার হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে।
টিপস ৪- অ্যাপসমূহ হালনাগাদকরন:
অপারেটিং সিস্টেমের মত অ্যাপসগুলোও সবসময় হালনাগাদ রাখতে হবে। অ্যাপসগুলো হালনাগাদ রাখার মাধ্যমেও স্মার্টফোনকে অনেকখানি নিরাপদ রাখা যায়।
টিপস ৫- একটি সিকিউরিটি সল্যুশন ইনস্টল রাখা

অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, বিভিন্ন মোবাইল অ্যাপসগুলো দেখতে যেমন মনে হয়, সত্যিকার অর্থে সেগুলো সেরকম নয়। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, অ্যাপসগুলোতে যেসব ফিচারের কথা বলা থাকে, সেগুলো বাস্তবে সেসব কাজ করে না। তাই, একটি ভালোমানের সিকিউরিটি সল্যুশন ব্যবহারের মাধ্যমে অপরিচিত ম্যালওয়্যারের আশংকা থেকে নিরাপদ থাকা যায়।

টিপস ৬- আনঅফিসিয়াল অ্যাপস্টোর থেকে ডাউনলোড না করা:
স্মার্টফোনে ওয়েব ব্রাউজিং এর সময় এন্ড্রয়েড এর জন্য হাজার হাজার অ্যাপ্লিকেশন এর অফার পাওয়া যায়। কিন্তু, অপরিচিত এবং আনঅফিসিয়াল কোন স্টোর থেকে অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড কিংবা ইনস্টল করা থেকে বিরত থাকতে হবে। কারন, অধিকাংশ আনঅফিশিয়াল অ্যাপ স্টোরগুলোতে ম্যালওয়ার সংক্রমনের সমূহ সম্ভাবনা থাকে।
টিপস ৭- স্মার্টফোনের সকল পার্টস না খোলা:
অনেকে অতিআগ্রহী হয়ে স্মার্টফোনের বিভিন্ন পার্টস সমূহ খুলে নাড়াচাড়া করতে দেখা যায়। এটা করলে ডিভাইসের ওয়্যারেন্টিজনিত সমস্যার পাশাপাশি নিরাপত্তার জনিত সমস্যার দুয়ারও খুলে যেতে পারে।
টিপস ৮- অনিরাপদ ওয়াই-ফাই’তে সংযুক্ত হওয়া থেকে বিরত থাকুন:
বর্তমানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কিংবা স্থানে ওয়াই-ফাই উন্মুক্ত থাকে। আপনি যখনই অনিরাপদ ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে সংযুক্ত হবেন, তখনই আপনার স্মার্টফোনে সংরক্ষিত বিভিন্ন পাসওয়ার্ডসহ গুরুত্বপূর্ন তথ্য প্লেইন ডাটা হিসেবে সেই নেটওয়ার্কে চলে যেতে পারে।
টিপস ৯-নিরাপত্তার বিষয়টি সবসময় মাথায় রাখা:
নন-উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারের ফলে অনেকেই ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি ভুলে যান যা কোনভাবেই কাম্য নয়। কারন, আপনি যেকোন সন্দেহজনক ওয়েবসাইট ব্রাউজিং, ইমেইল এটাচমেন্ট খোলা কিংবা অ্যাপস ব্যবহারের সময় আপনার মনের অজান্তেই ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হতে পারেন কিংবা আপনার গোপন তথ্য অন্যের হাতে চলে যেতে পারে।
তথ্যসূত্র: অ্যাভিরা টেকব্লগ, জার্মানি

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top