শিরোনাম

রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা পূরণে সহায়তা করবে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - অপো এফ৫ ৬জিবি’র প্রি-বুকিং-এ আশাতীত সাফল্য | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - মাস্টারকার্ডের সহযোগিতায় প্রিয়শপ ডট কম-এর ‘শায়েস্তা খাঁ অফার’ | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - ‘অ্যাডাল্ট কনটেন্ট’এর হাত থেকে শিশুদের বাঁচাতে যা করবেন | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - “আগামী দিনের দক্ষতা ও চতুর্থ শিল্প বিপ্লব” শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - ইন্টারেস্টিং কোনো অফার পেলে বাংলাদেশি ছবিতে কাজ করবো:নাফিস | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - পিপীলিকা ক্রাউডসোর্সিং প্ল্যাটফর্ম এর যাত্রা শুরু | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - জমকালো আয়োজনে পর্দা নামলো ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের | শনিবার, ডিসেম্বর 9, 2017 - মেটাল বডিতে ফিরছে অ্যাপল | শনিবার, ডিসেম্বর 9, 2017 - বাজারে আসছে এলজি ভি৩০ |
প্রথম পাতা / অর্থনীতি / মোবাইল ব্যাংকিং নভেম্বরে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা লেনদেন
মোবাইল ব্যাংকিং নভেম্বরে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা লেনদেন

মোবাইল ব্যাংকিং নভেম্বরে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা লেনদেন

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে গ্রাহক সংখ্যা নতুন রেকর্ড করল। গত নভেম্বর মাস শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৫৩৩ কোটি টাকা। ১ কোটি ১৫ লাখ গ্রাহক এ পরিমাণ অর্থের লেনদেন করেছেন।
বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ তথ্য মতে, নভেম্বর মাস শেষে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের গ্রাহক সংখ্যা দাঁড়িযেছে ১ কোটি ১৫ লাখ। যা আগের মাসের তুলনায় ১৫ লাখ বেশি। এ সময় মোট লেনদেন, গ্রাহক সংখ্যা, এজেন্ট সংখ্যা সবই বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে।

mobile-banking

বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী মুখপাত্র এএফএম আসাদুজ্জামান বলেন, নভেম্বর মাসে দেশে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের এজেন্ট সংখ্যা এক লাখ ৬০ হাজারের কাছাকাছি দাঁড়িয়েছে। যা অক্টোবর মাসে ছিলো ১ লাখ ৪৬ হাজার।

তিনি আরো জানান, নভেম্বর মাসে মোট লেনদেনের পরিমাণ ২ কোটি ৬৭ লাখ ৮৯ হাজার ৫৮০ টাকা। আর মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৫৩৩ কোটি টাকা। অর্থাৎ প্রতিদিন গড়ে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। যার প্রবৃদ্ধির হার ৮ দশমিক ৫৯ শতাংশ।

হালনাগাদ তথ্য মতে, নভেম্বর মাসে সচল হিসাব সংখ্যা ছিলো ৫৭ লাখ ৭৩ হাজার। যা তার আগের মাসের তুলনায় প্রায় ৪১ দশমিক ২২ শতাংশ বেশি।
বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে, নভেম্বর মাস পর্যন্ত ২৮টি ব্যাংককে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে ১৯টি ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু করেছে।

এর আগে গত এপ্রিল শেষে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস তথা মোবাইল ব্যাংকিং এর গ্রাহক সংখ্যা ৫০ লাখ ছাড়িয়ে যায়। গত সেপ্টেম্বর শেষে তা ৭৪ লাখে দাঁড়ায়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান রোববার বলেন, দরিদ্র ও ব্যাংকিং সেবা বহির্ভূত জনগণকে ব্যাংকিং সেবা প্রদান করার লক্ষ্যে এবং প্রবাসীদের কষ্টার্জিত অর্থ দ্রুত, সহজ ও নিরাপদে গ্রামীণ এলাকায় বসবাসরত উপকারভোগীদের কাছে পৌঁছানোর জন্য ২০১০ সালে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস কার্যক্রম শুরু করা হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের এ উদ্যোগে ব্যাপকভাবে সাড়া দিয়েছে তফসিলি ব্যাংকগুলো। যার ফলে আমরা এ ক্ষেত্রে নতুন মাইলফলক ছুঁয়েছি।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top