শিরোনাম

মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - সিটিআইটি ফেয়ার-২০১৭ কম্পিউটার মেলা শুরু বৃহস্পতিবার | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - চালু হল ঘড়ি বিক্রয়ের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান টাকশাল | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - আরও দ্রুত ডাউনলোড অপেরা মিনিতে | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - স্মার্ট স্টুডেন্টস অ্যাপ বানালো ডিআইইউ’র শিক্ষার্থীরা | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - সিইবিআইটি মেলায় ডিজিটাল রূপান্তরের অংশীদার হুয়াওয়ে | মঙ্গলবার, মার্চ 28, 2017 - বাংলাদেশে উন্মুক্ত হলো অপো সেলফি এক্সপার্ট এফ৩ প্লাস | শনিবার, মার্চ 25, 2017 - ঢাকায় রোজেন বারগার টেকনোলজিষ্টের পার্টনার্স নাইট | বৃহস্পতিবার, মার্চ 23, 2017 - উভয় পাশ স্ক্যান সুবিধার স্ক্যানার আনলো ইপসন | বৃহস্পতিবার, মার্চ 23, 2017 - প্রপার্টি ভাড়া ও কেনা-বেচায় বিপ্রপার্টি ডটকম | বুধবার, মার্চ 22, 2017 - স্বল্পমূল্যের ল্যাপটপ কিনতে সাবধান ! |
প্রথম পাতা / অর্থনীতি / মোবাইল ব্যাংকিং / মোবাইল ব্যাংকিং প্রতারণায় গ্রামীণফোনের ৫ কর্মকর্তা গ্রেফতার
মোবাইল ব্যাংকিং প্রতারণায় গ্রামীণফোনের ৫ কর্মকর্তা গ্রেফতার

মোবাইল ব্যাংকিং প্রতারণায় গ্রামীণফোনের ৫ কর্মকর্তা গ্রেফতার

Untitled-1মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যবহার করে প্রতারণার সাথে জড়িত দেশের শীর্ষ মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনের কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) একই সাথে সংশ্লিষ্ট অভিযোগে আরও জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে সোমবার সিআইডি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে সংস্থার অতিরিক্ত ডিআইজি মো. শাহ আলম এসব তথ্য জানিয়েছনে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেনমো. হাসানুর রাহমান, মো. সাজ্জাদ উল্লাহ দস্তগীর, মো. মুরাদ হাসান, মো. ইমরান হোসেন ওরফে মিরাজ, জাহিদ হাসান, দেলোয়ার হোসেন মোল্লা, মো. মাহবুব শেখ, মো. ওসমান ওরফে সাদ্দাম, তন্ময় হোসেন ওরফে অমি, শ্যামল বাড়ৈ কফিল গাইন। এর মধ্যে গ্রামীণফোনের কর্মকর্তা শ্যামল বাড়ৈ কফিল গাইন রিমান্ডে আছেন। গ্রামীণফোনের কাস্টমার কেয়ার শাখার কর্মকর্তা মো. সাজ্জাদ উল্লাহ দস্তগীর, হাসানুর রহমান মুরাদ বর্তমানে জামিনে আছেন।

ব্যাপারে সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত ডিআইজি মো. শাহ আলম বলেন, ৩১ জানুয়ারি বিকেল ৫টায় ফকিরাপুল রাওয়াহ এন্টারপ্রাইজের মালিক রফিকুল ইসলাম তার দোকানে ব্যবহৃত বিকাশ, ডিবিবিএল, ইউক্যাশ মোবাইল ফাইন্যান্স এজেন্ট একাউন্ট থেকে এক ব্যক্তির নম্বরের অনুকূলে ২৪ হাজার ৫০০ টাকা হাজার টাকা ক্যাশ আউট করেন। একই রাতে অপর আরেকজনের ডাচ বাংলা মোবাইল ফাইন্যান্স মাধ্যমে এক হাজার টাকা ক্যাশ আউট করার পর ডিঅ্যাক্টিভেট দেখায়। এর পর বিষয়টি ব্যাংক মোবাইল অপারেটর কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে তিনি জানতে পারেন তার সিম (০১৭১৫৪১৭১৭০)টি অন্য কেউ ব্যবহার করছেন এবং প্রতারণার মাধ্যমে টাকাও উঠিয়ে নেওয়া হয়েছে। তিনি সিমটি রিপ্লেস করে দেখতে পান সিমে সেই টাকা আর নেই

তিনি আরও জানান, প্রতারকচক্র সংশ্লিষ্ট সিম কোম্পানির কিছু অসাধু কর্মকর্তার সহযোগিতায় এজেন্টের নম্বর প্রথমে ডিএক্টিভেট করে দেয়। পরে তার স্বাক্ষর জাল করে নম্বরটি তুলে নেয়। এরপর বিকাশ বা ইউক্যাশের টাকা তুলে নেয়। ঘটনায় তিনি ফেব্রুয়ারি মতিঝিল থানায় মামলা করেন। সিআইডি তদন্ত শুরু করে। তদন্তে ১১ জনকে গ্রেফতার শেষে জনকে রিমান্ডে নেয় সিআইডি। জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য উঠে আসে

তিনি বলেন, দেশে ২০টি প্রতিষ্ঠানের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস রয়েছে। বিকাশ, ইউক্যাশ ইত্যাদি এগুলোর মধ্যে অন্যতম। চক্রটি মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের কাজ থেকে টাকা উত্তোলন করে অ্যাকাউন্টটি এবং সঙ্গে এর টাকা হাতিয়ে নিত। তবে কাজের সঙ্গে মোবাইল অপারেটরদের কোন কোন কর্মকর্তা জড়িত থাকতে পারেন। বিভিন্ন সময় গ্রেফতার হওয়া অপরাধীদের রোববার রিমান্ডে নেওয়া হয়

 

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top