শিরোনাম

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - দেশের সবচেয়ে বড় গেমিং প্লাটফর্ম ‘মাইপ্লে’ চালু করলো রবি | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - রাজধানীতে টেকনোর আরও নতুন দুইটি ব্র্যান্ড শপের শুভ উদ্বোধন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে ল্যাপটপ মেলা | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - মোবাইল ইন্টারনেট গতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১২০তম | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - জরুরি সেবা ৯৯৯ এর উদ্বোধন করলেন জয় | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - নতুন অ্যাপ ‘ফাইলস গো’ চালু করেছে গুগল | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বাজারে এলো শাওমির নতুন দুই ফোন | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - বিশ্ব বিখ্যাত পাঁচ রাঁধুনি রোবট | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 12, 2017 - সনি’র দুর্দান্ত এক আপকামিং ফোনের তথ্য ফাঁস | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - বিসিএস এর ২৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত |
প্রথম পাতা / স্থানীয় খবর / রবির গ্রাহকদের জন্য চালু হল ফ্রি ইন্টারনেট
রবির গ্রাহকদের জন্য চালু হল ফ্রি ইন্টারনেট

রবির গ্রাহকদের জন্য চালু হল ফ্রি ইন্টারনেট

বাংলাদেশে ইন্টারনেট এখন বিনামূল্যে। অনেক জল্পনা-কল্পনা ও জটিলতার বৃত্ত পেরিয়ে ফেইসবুকের ইন্টারনেট ডটওআরজি প্রকল্পের মাধ্যমে রোববার দেশে এই বিনামূল্যের ইন্টারনেট চালু করা হয়।

এদিন সকাল থেকেই টেলিকম অপারেটর রবির নেটওয়ার্কে ফ্রি ইন্টারনেটের সুবিধা পাওয়া যাচ্ছিল। এরপর সকাল ১১টায় রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে আনুষ্ঠানিকভাবে ইন্টারনেট ডটওআরজির উদ্বোধন করেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন গ্লোবাল অপারেটিং পার্টনারশিপ অব ইন্টারনেট ডটওআরজির ডিরেক্টর মার্ককু ম্যাকলেইনেন্টো।

বিনামূল্যের ইন্টারনেট পেতে রবি গ্রাহকরা ইন্টারনেট ডটওআরজিতে প্রবেশ করে নির্ধারিত ওয়েবসাইটগুলো পাবেন কোন ডাটা খরচ ছাড়াই। এছাড়া ওআরজি অ্যাপ থেকেও সরাসরি এই সুবিধা পাওয়া যাবে। তবে শুধু রবি গ্রাহকরা ইন্টারনেট ডটওআরজি অ্যাপটি ব্যবহারের সুযোগ পাবেন।

গ্রাহকরা যদি বিনামূল্যে প্রদান করা ওয়েবসাইটগুলোর বাইরে অন্যকোনো সাইট ভিজিট করতে বা ভিডিও দেখতে চান তখন সাধারণ ইন্টারেনট চার্জ প্রযোজ্য হবে বলে নোটিফিকেশন প্রদর্শিত হবে।

কোন ডাটা প্যাক কেনা না থাকলে ইন্টারনেট ডটওআরজি ব্যবহারের সময়ও গ্রাহক তার পছন্দের প্যাকেজটি বেছে নিতে পারবেন। ডাটা প্যাক ছাড়া এবং কোন প্যাকেজ না কিনে গ্রাহক ভিডিও কন্টেন্ট দেখতে চান তবে পে-পার-ইউজের ভিত্তিতে চার্জ প্রযোজ্য হবে।

উদ্বোধনীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পদক্ষেপে এ উদ্যোগ একটি অন্যতম মাইলফলক হয়ে থাকবে। এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই যে ফ্রি ইন্টারনেট একটি জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ও অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সহায়ক হবে।

robi-free

মার্ককু ম্যাকলেইনেন্টো বলেন, বিশ্বের দুই-তৃতীয়াংশ মানুষ ইন্টারনেট সুবিধা বঞ্চিত। এই সুবিধা বঞ্চিতদের কাছে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে ফেইসবুকের প্রকল্প ইন্টারনেট ডটওআরজি। বাংলাদেশে এই প্রকল্প চালুর মধ্য দিয়ে কোটি কোটি মানুষের কাছে ইন্টারনেট সহজলভ্য হলো। এ পদক্ষেপটির মাধ্যমে সাধারণ ইন্টারনেট সেবাগুলো গ্রহণের মাধ্যমে সবাই তাদের জীবনমান উন্নয়নের সুযোগ পাবেন।

রবির চিফ অপারেটিং অফিসার মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ইন্টারনেট ডটওআরজি প্রকল্পের মাধ্যমে দেশে ইন্টারনেট ব্যবহার বৃদ্ধি পাবে। রবির আড়াই কোটির বেশি গ্রাহক এই সেবাটি পাবেন।

বাংলাদেশে এ প্রকল্পের যাত্রার শুরুতে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ব্যবসা-বাণিজ্য, খেলাধুলা, আবহাওয়া, সংবাদ, সরকারি সেবা সাইট, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু ওয়েবসাইট বিনামূল্যে পাওয়া যাবে। তবে পর্যায়ক্রমে সরকারের সব সেবা সাইট ও গুরুত্বপূর্ণ নাগরিক সেবার কনটেন্ট এতে যুক্ত হবে।

বিনামূল্যের ইন্টারনেটে যুক্ত হওয়া ওয়েবসাইটগুলোর মধ্যে রয়েছে, ফেইসবুক, ইএসপিএন ক্রিকেইনফো, প্রথম আলো, বিডিনিউজ টোয়োন্টিফোর ডটকম, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ, সন্ধান ডটকম, সোশ্যাল ব্লাড, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, ম্যাসেঞ্জার, মায়া, হেলথপিরিওর, শিক্ষকডটকম, ক্যাবিনেট ডিভিশন, বিডিজবস, বিক্রয় ডটকম, বিং, উইকিপিডিয়া, অ্যাকুওয়েদার,আমার দেশ বুটিক, আস্ক , বেবি সেন্টার অ্যান্ড মামা, ক্রিটিক্যাল লিংক, ফ্যাক্টস ফর লাইফ, ওয়াটপ্যাড, ইওরমানি, গার্ল ইফেক্ট, কৃষি মন্ত্রণালয় , প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাইনেট।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, তথ্যপ্রযুক্তি সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, রবির এমডি ও সিইও সুপুন বীরাসিংহে ও চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড পিপল অফিসার মতিউল ইসলাম নওশাদ।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের মে মাসে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী সিলিকন ভ্যালির ফেইসবুক কার্যালয় সফরে গেলে ফেইসবুক কর্মকর্তা আঁখি দাসকে বাংলাদেশে ফ্রি ইন্টারনেট চালুর বিষয়ে প্রথম প্রস্তাব দেন।

এরপর ধারাবাহিক যোগাযোগ চালিয়ে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে এই ফ্রি ইন্টারনেট চালুর বিষয়ে ফেইসবুক কর্মকর্তাদের সাথে জোর আলোচনা চালান পলক। তখন বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশের মতো বাংলাদেশেও ইন্টারনেট ডটওআরজি প্রকল্প চালুর প্রতিশ্রুতি দেন ফেইসবুকের কর্মকর্তা আঁখি দাস।

পরে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ফেইসবুকসহ সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে নিয়ে প্রকল্প চালুর বিষয়টি চূড়ান্ত করেন। গত ২১ এপ্রিল প্রকল্পটি চালুর সিদ্ধান্ত হয়। সেভাবে অনুষ্ঠান আয়োজনেরও উদ্যোগ নেয়া হয়। কিন্তু প্রকল্পটির সাথে যুক্ত হতে মোবাইল আপারেটরদের রেগুলেশন সংক্রান্ত জটিলতা ও কনটেন্ট প্রোভাইডারের অভাবে সে উদ্যোগও ভেস্তে যায়।

ফলে প্রকল্প প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা ঢাকায় এসে সমস্যা সমাধানে নতুন করে আলাপ-আলোচনা চালান । অবশেষে পলকের নির্দেশনায় রোববার এই প্রকল্পটি চালু হয়।

ফেইসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ বিশ্বের ইন্টারনেট সুবিধাবঞ্চিত মানুষের দোরগোড়ায় ইন্টারনেট সেবা দিতে ইন্টারনেট ডটওআরজি প্রতিষ্ঠা করেন। এটি একটি বৈশ্বিক অংশিদারিত্বমূলক উদ্যোগ। এশিয়া, আফ্রিকাসহ বিভিন্ন মহাদেশের ইন্টারনেট সুবিধাবঞ্চিত মানুষের কাছে ইন্টারনেট পৌঁছানোই এর মূল লক্ষ্য।

ইতিমধ্যে এ প্রকল্প তানজানিয়া, কেনিয়া, কলাম্বিয়া, ঘানা, জাম্বিয়া ও ভারতে শুরু হয়েছে।

মূলত স্যামসাং, এরিকসন, মিডিয়াটেক, ওপেরা সফটওয়্যার, কোয়ালকম, নকিয়া এবং ফেইসবুক এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। তবে প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছাড়াও অন্যান্য মোবাইল প্রযুক্তি কোম্পানির সাথে এই ইন্টারনেট সেবা নিয়ে সামগ্রিক সহযোগিতার উদ্যোগটিই ইন্টারনেট ডটওআরজি। বিশ্বের ৪শত কোটি মানুষকে অনলাইনে আনতে কাজ করছেন তারা।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top