শিরোনাম

সোমবার, মে 22, 2017 - সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের নির্বাচন | সোমবার, মে 22, 2017 - বেসিসের সদস্য কোম্পানির জন্য  ইউএসডি মাস্টারকার্ড | সোমবার, মে 22, 2017 - লাভা ও মাইক্রোম্যাক্সের সাথে সাশ্রয়ী স্মার্টফোন নিয়ে এলো গ্রামীণফোন | সোমবার, মে 22, 2017 - ১০ হাজার ফ্রিল্যান্সার তৈরির উদ্যোগ কোডার্সট্রাস্টের | রবিবার, মে 21, 2017 - নিজল ক্রিয়েটিভের ৫ম বর্ষপূর্তি উদযাপন | রবিবার, মে 21, 2017 - বগুড়ায় দ্বিতীয় আইইটিএফ আউটরিচ প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত | রবিবার, মে 21, 2017 - স্যামসাং ও গ্রামীণফোনের আকর্ষণীয় অফার | রবিবার, মে 21, 2017 - সাইবার নিরাপত্তা বিধানে গণসচেতনতা অত্যাবশ্যকীয় | রবিবার, মে 21, 2017 - শেষ হলো ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং ক্যাম্প | রবিবার, মে 21, 2017 - ‘রি ডটকন’ চালু করল রবি |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / রিভিউ: আসুস জেনফোন ২ ডিলাক্স
রিভিউ: আসুস জেনফোন ২ ডিলাক্স

রিভিউ: আসুস জেনফোন ২ ডিলাক্স

asus-zenphone2শাহাদাত হোসেন:২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত ইন্টারন্যাশনাল রেডিও শো বা আইএফএ ২০১৫ থেকে আসুস যে কয়টি স্মার্টফোন উন্মুক্ত করে, তার মধ্যে অন্যতম হলো জেনফোন ২ ডিলাক্স। চমকপ্রদ ডিজাইন এবং অত্যাধুনিক সব ফিচারের কারণে স্মার্টফোনটি তখন সবার নজর কেড়েছিল। এই স্মার্টফোনটি মূলত আসুস জেনফোন ২ এর স্টাইলিশ সংস্করণ। অর্থাৎ ফিচারের দিক থেকে জেনফোন ২ এর মতোই তবে ডিজাইনের দিক থেকে আলাদা।

সম্প্রতি বাংলাদেশের বাজারেও এসেছে স্মার্টফোনটি। স্থানীয় ক্রেতাদের কথা মাথায় রেখে আজ স্মার্টফোনটির একটি হ্যান্ডস-অন রিভিউ তুলে ধরা হলো।

ফিচার: প্রথমেই দেখে নেওয়া যাক স্মার্টফোনটির ফিচারগুলো। জেনফোন ২ ডিলাক্সে আছে ৫.৫ ইঞ্চি আইপিএস ডিসপ্লে। ডিসপ্লের সুরক্ষায় ব্যবহার করা হয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস। স্মার্টফোনটিতে রয়েছে কোয়াডকোর প্রসেসর, ইন্টেল অ্যাটম চিপসেট, ৪ গিগাবাইট র‍্যাম। ৬৪ এবং ১২৮ গিগাবাইট স্টোরেজ সমৃদ্ধ ভিন্ন দুটি সংস্করণ রয়েছে স্মার্টফোনটির। এতে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। রয়েছে ৩ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার নন-রিমুভেবল ব্যাটারি।

এবার বিস্তারিত রিভিউ দেখা যাক:

ডিজাইন: আসুসের এই স্মার্টফোনটির সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হলো এর ডিজাইন। এক কথায় বলা যেতে পারে এতে আছে নান্দনিকতার ছোঁয়া। এর ব্যাক কভারটি বেশ আকর্ষণীয় এবং এতে আছে ৫০০’রও বেশি ট্যাকটাইল পলিগন কম্বিনেশন। একেকদিক থেকে এর রঙ একেক রকম মনে হয়। জেনফোন ২ ডিলাক্স এক হাতে ধরে ব্যবহার করতে খুব বেশি সমস্যা হয় না। সাধারণত ৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে সমৃদ্ধ স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এর উপরের দিকে রয়েছে পাওয়ার বাটন। এছাড়া ভলিউম বাটন রয়েছে রিয়ার ক্যামেরার নিচের দিকে। ফলে ব্যবহার করার সময় ভলিউম বাড়াতে কিংবা কমাতে কোনো সমস্যায় পড়তে হয় না। এর সামনের দিকে ডিসপ্লের উপরের অংশে আছে ফ্রন্ট ক্যামেরা এবং সেন্সর। আর পেছনের দিকে নিচের অংশে আছে স্পিকার।

স্মার্টফোনটির আয়তন ৬*৩.০৪*০.৪৩ ইঞ্চি এবং ওজন ১৭০ গ্রাম।

ডিসপ্লে: স্মার্টফোনটিতে আছে ১০৮০ পিক্সেলের ৫.৫ ইঞ্চি আইপিএস ডিসপ্লে। গরিলা গ্লাস ৩ ব্যবহার করা হয়েছে ডিসপ্লেতে। ডিসপ্লের পিক্সেল ঘনত্ব ৪০১ পিপিআই। ডিসপ্লে শার্পনেসও অন্যান্য স্মার্টফোনের তুলনায় ভালো। ডিসপ্লের ভিউইং অ্যাঙ্গেলও চলনসই। ৪৫ ডিগ্রি কোন থেকে দেখলেও তেমন কোনো সমস্যা হয় না।

প্রসেসর: জেনফোন ২ ডিলাক্সে আছে ২.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর। এতে ব্যবহার করা হয়েছে ইন্টেল অ্যাটম জেড৩৫৬০ চিপসেট। ফলে হাই কোয়ালিটি গেমিং কিংবা ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে পাওয়া যাবে নতুন অভিজ্ঞতা।

র‍্যাম ও রম: জেনফোন ২ ডিলাক্সে আছে ৪ গিগাবাইট ডিডিআর৩ র‍্যাম। আগেই বলেছি এর ফিচার প্রায় জেনফোন ২-এর মতোই। ৬৪ গিগাবাইট ৮ ১২৮ গিগাবাইট স্টোরেজ ক্যাপাসিটির ভিন্ন দুটি ভ্যারিয়েন্ট আছে এর। যদিও বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে এর ১২৮ গিগাবাইট ভ্যারিয়েন্টটি। ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার সুবিধা রয়েছে স্মার্টফোনটিতে।zenphone-model

ক্যামেরা: জেনফোন ২ ডিলাক্সে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা। পর্যাপ্ত আলোর উপস্থিতিতে ক্যামেরায় তোলা ছবি বেশ ভালো। তবে স্বল্প আলোতেও ছবি মোটামুটি চলনসই। রিয়ার ক্যামেরায় আছে দুটি এলইডি ফ্ল্যাশলাইট। বিভিন্ন ধরনের ছবি তোলার জন্য এর ক্যামেরা অ্যাপে আছে বিভিন্ন ফিচার। আছে বিভিন্ন মোড, ফিল্টার এবং টুইকস যার মাধ্যমে ক্যামেরায় ব্যবহারকারীর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকে। ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরাও কাজ চালিয়ে নেওয়ার জন্য যথেষ্ট। সেলফি ক্যামেরার ডিফল্ট সেটিং হিসেবে বিউটিফিকেশন মোড রয়েছে যাতে আছে সেলফ টাইমার। তবে এর চেয়ে অটো মোড ব্যবহার করলে বাড়তি কিছু ফিচার ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

ইউজার ইন্টারফেস: আসুসের অন্যান্য স্মার্টফোনের মতো এই স্মার্টফোনটিতেও আছে জেনইউআই। অ্যান্ড্রয়েডের স্টক রমের তুলনায় অনেক বাড়তি ফিচার যুক্ত করা হয়েছে এতে। স্মার্টফোনটিতে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের থিম ব্যবহারের সুবিধা। নিজের পছন্দমতো থিম ডাউনলোড করে নেওয়া যাবে এতে।

সাউন্ড ও মাল্টিমিডিয়া: গান শোনা কিংবা ভিডিও দেখার জন্য স্মার্টফোনটি আদর্শ একটি ডিভাইস। এর সাথে যে হেডফোনটি রয়েছে, তার সাউন্ড কোয়ালিটি এক কথায় অসাধারণ।

গেমিং: ৪ গিগাবাইট র‍্যাম এবং ইন্টেল চিপসেট ব্যবহার করায় গেমিংয়ের জন্য ডিভাইসটি অতুলনীয়। বিভিন্ন ধরনের হাই ডেফিনেশন গেম এতে স্মুথলি খেলা যায়। গ্র্যান্ড থেফট অটো, অ্যাসফাল্ট ৮ কিংবা ফিফা ১৬ কোনো ল্যাগিং ছাড়াই এতে খেলা যায়।

ব্যাটারি: স্মার্টফোনটিতে আছে ৩ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার নন-রিমুভেবল ব্যাটারি। অন্যান্য স্মার্টফোনের তুলনায় অনেক কম সময়ে স্মার্টফোনটি সম্পূর্ণ চার্জ দেওয়া যায়। এ জন্য স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে আসুস বুস্ট মাস্টার প্রযুক্তি। এর সাহায্যে মাত্র ৩৯ মিনিটে ৬০ শতাংশ চার্জ হয় স্মার্টফোনটি। একবার পুরোপুরি চার্জ দিলে একদিন অনায়াসেই কাটিয়ে দেওয়া সম্ভব। এছাড়া ব্যাটারির চার্জ সংরক্ষণের জন্য আছে কয়েকটি পাওয়ার সেভিং মোড।

কানেক্টিভিটি: আসুসের এই স্মার্টফোনটি ৪জি সমর্থিত। দুটি সিম ব্যবহারের সুবিধা আছে এতে। এর একটি সিম স্লট কেবলমাত্র টু’জি হলেও অপর স্লটটিতে থ্রিজি এবং ৪জি ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে। এছাড়াও ফোন থেকে লেনদেন ব্যবস্থার জন্য আছে এনএফসি। অন্যান্য সাধারণ ফিচার তো আছেই।

অপারেটিং সিস্টেম: এর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে আছে অ্যান্ড্রয়েড ৫.০ ললিপপ। তবে শীঘ্রই এতে অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ মার্শম্যালো আপডেট পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

মূল্য: দেশের বাজারে স্মার্টফোনট পাওয়া যাচ্ছে ৪০ হাজার টাকায়। সাদা এবং পার্পল, এই দুটি রংয়ে এটি পাওয়া যাবে।

স্মার্টফোনটির ভালো ও খারাপ দিক: জেনফোন ২ ডিলাক্সের আকর্ষণীয় দিক হলো এর ডিজাইন। এছাড়া পারফরমেন্স এবং ডিসপ্লে কোয়ালিটিও এর দুটি ভালো দিক। তবে এতে অসংখ্য ব্লোটওয়্যার রয়েছে যা অনেকের কাছেই বিরক্তিকর মনে হতে পারে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top