শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, জুন 22, 2017 - পাকিস্তানের টাওয়ার কোম্পানি অধিগ্রহণ করছে ইডটকো | বৃহস্পতিবার, জুন 22, 2017 - নোকিয়া ৯ স্মার্টফোনে ৬জিবি এবং ৮জিবি র‌্যাম | বৃহস্পতিবার, জুন 22, 2017 - চীন বানাল বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির সুপার কম্পিউটার | বৃহস্পতিবার, জুন 22, 2017 - পদত্যাগ করলেন উবার প্রধান | বৃহস্পতিবার, জুন 22, 2017 - আসছে উড়ন্ত গাড়ি | বৃহস্পতিবার, জুন 22, 2017 - রাজধানীতে ভিক্ষাতে প্রযুক্তির ছোয়া | বৃহস্পতিবার, জুন 22, 2017 - স্মার্টফোন থেকে মুছে যাওয়া ছবি ফিরে পেতে করনীয় | বুধবার, জুন 21, 2017 - সাকিব আল হাসান ও হুয়াওয়ে ভক্তদের চীন সফর | বুধবার, জুন 21, 2017 - নির্ভরযোগ্য ইন্টারনেটের উন্নততর মানের সূচনা | বুধবার, জুন 21, 2017 - জিপিহাউজে টেলিনর ইয়ুথ ফোরাম নিয়ে রোড শো অনুষ্ঠিত |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / লিনাক্স পাঠশালা তিনটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেছে
লিনাক্স পাঠশালা তিনটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেছে

লিনাক্স পাঠশালা তিনটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেছে

linux

শ্রীলংকা ও নেপালকে পেছনে ফেলে তিনটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেছে মুক্ত সফটওয়্যার লিনাক্সের প্রশিক্ষণদাতা প্রতিষ্ঠান লিনাক্স পাঠশালা।

সম্প্রতি শ্রীলংকার কলম্বোতে অনুষ্ঠিত বার্ষিক সম্মেলনে এ পুরস্কার জিতেছে প্রতিষ্ঠানটি। পুরস্কার ছিল চারটি। তিনটি পুরস্কার গ্রহণ করেন লিনাক্স পাঠশালার প্রধান নির্বাহী নাসির উদ্দিন পাভেল।

২০১৩ সালের ডিসেম্বর থেকে অনুমোদিত রেডহ্যাট ট্রেনিং পার্টনার হিসেবে যাত্রা শুরু করে লিনাক্স পাঠশালা। ট্রেইনার নির্বাচন থেকে শুরু করে প্রতিষ্ঠানটির সব ধরনের কাজ-কর্মই সুষ্ঠুভাবে বিচার বিশ্লেষণ করা হয়।

এরই ধারাবাহিকতায় প্রতিষ্ঠানটি এবার রেডহ্যাট ইন্ডিয়ার আয়োজনে শ্রীলংকায় অনুষ্ঠিত ‘রেডহ্যাট অ্যানুয়াল পার্টনার কনফারেন্স’ – এ ওভারসিজ পার্টনার হিসেবে তিনটি পুরস্কার জিতে নেয়।

রেডহ্যাট প্রতিবছরই চারটি ক্যাটাগরিতে অনুমোদিত ট্রেনিং পার্টনারদের পুরস্কার দিয়ে থাকে। ক্যাটাগরিগর প্রথমটি হলো, আরএইচসিএসএ, দ্বিতীয়টি সিওই (সার্টিফিকেশন অব এক্সপারটাইজ) এবং তৃতীয়টি হলো ম্যাক্সিমাম কোর্স ওয়্যার আর চতুর্থটি হলো ম্যাক্সিমাম ওপেন ব্যাচ।

পুরস্কার পাওয়ার বিষয়ে নাসির উদ্দিন পাভেল বলেন, ‘রেডহ্যাট ইন্ডিয়া রেভিনিউর হিসেবে (আগস্ট থেকে আগস্ট) প্রতি বছরই এ পুরস্কারের আয়োজন করে থাকে। এ বছর চারটা ক্যাটাগরির তিনটি পুরস্কারই লিনাক্স পাঠশালা অর্জন করেছে’।

প্রতিষ্ঠানটিতে যারা কোর্স করতে আসেন তাদের শতকরা নব্বই ভাগই বিভিন্ন ব্যাংক, টেলকো ও অথবা গামের্ন্টস সেক্টরে চাকরিরত। আর অবশিষ্ট ১০ ভাগ হলো শিক্ষার্থী। তবে ট্রেনিং শেষে তাদের সিংহভাগের চাকরির ব্যবস্থা লিনাক্স পাঠশালাই করে থাকে বলে জানালেন পাভেল।

তিনি আরও বলেন, ‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির অবাধ ব্যবহারের ফলে আমাদের দেশে লিনাক্সের ব্যবহার প্রতিনিয়তই বাড়ছে। এখন অনেকেই নিজেকে লিনাক্স এক্সপার্ট হিসেবে গড়ে তুলতে আ্গ্রহ প্রকাশ করছেন। তবে তার পেছনেই রয়েছে দেশের বিভিন্ন সেক্টরে লিনাক্সভিত্তিক সার্ভার ও স্টোরেজের ব্যাপক ব্যবহার। দেশের প্রথম রেডহ্যাট ভার্চুয়ালাইজেশন ও রেডহ্যাট স্টোরেজ সার্ভার ইনস্টল করে এই প্রতিষ্ঠানটি’।

তিনি জানান, দেশে ২৫ জন আরএইচসিএ রয়েছে যার মধ্যে ২০ জনেই হলো এই প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে লিনাক্স পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়েছেন। আর আরএইচসিই রয়েছে প্রায় ৫ হাজার। যার মধ্যে প্রায় ১ হাজার ৪০০ জন লিনাক্স পাঠশালার। এছাড়া আরও অনেকে রয়েছেন যারা দেশের বাইরে লিনাক্স প্রফেশনাল হিসেবে নিজেদের ক্যারিয়ার গড়েছেন। প্রতিষ্ঠানটি লিনাক্স কোর্সের পাশাপাশি সিসকোর বিভিন্ন নেটওয়র্কিং কোর্সও পরিচালনা করে থাকে।

লিনাক্স পাঠশালার বিষয়ে জানতে যেতে হবে: www.linuxpathshala.com এই ঠিকানায়।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top