শিরোনাম

রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা পূরণে সহায়তা করবে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - অপো এফ৫ ৬জিবি’র প্রি-বুকিং-এ আশাতীত সাফল্য | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - মাস্টারকার্ডের সহযোগিতায় প্রিয়শপ ডট কম-এর ‘শায়েস্তা খাঁ অফার’ | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - ‘অ্যাডাল্ট কনটেন্ট’এর হাত থেকে শিশুদের বাঁচাতে যা করবেন | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - “আগামী দিনের দক্ষতা ও চতুর্থ শিল্প বিপ্লব” শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - ইন্টারেস্টিং কোনো অফার পেলে বাংলাদেশি ছবিতে কাজ করবো:নাফিস | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - পিপীলিকা ক্রাউডসোর্সিং প্ল্যাটফর্ম এর যাত্রা শুরু | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - জমকালো আয়োজনে পর্দা নামলো ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের | শনিবার, ডিসেম্বর 9, 2017 - মেটাল বডিতে ফিরছে অ্যাপল | শনিবার, ডিসেম্বর 9, 2017 - বাজারে আসছে এলজি ভি৩০ |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / শিশুদের রেজাল্ট খারাপের জন্য দায়ী মোবাইল
শিশুদের রেজাল্ট খারাপের জন্য দায়ী মোবাইল

শিশুদের রেজাল্ট খারাপের জন্য দায়ী মোবাইল

মোবাইল ডিভাইস নিয়ে অতিরিক্ত সময় ক্ষেপণ করা শিশু শিক্ষার্থীদের খারাপ রেজাল্টের অন্যতম কারণ। সম্প্রতি জাপান সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরিচালিত এক এক জরিপে এমন চিত্রই ফুটে উঠেছে। জরিপে উঠে আসা ফলাফলে দেখা গেছে, স্কুলের শিশু শিক্ষার্থীরা ছোট স্ক্রিনের সম্মোহনে পড়ে বই অবহেলা করছে।

দেখা গেছে, দিনে অন্তত চার ঘন্টা মোবাইল ব্যবহারকারীদের চাইতে এর পেছনে দিনে ৩০ মিনিট ব্যয় করা শিক্ষার্থীরা ক্লাশ টেস্টে ভাল ফল করছে।

child-mobie

জরিপের ফলাফল থেকে জানা যায় , অনুর্ধ ১৫ বছরের শিক্ষার্থীদের প্রতি নয়জনের মধ্যে একজন দিনে অন্তত চার ঘন্টা মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করে। এই ডিভাইস নিয়ে অতিরিক্ত সময় ক্ষেপণকারীদের রেজাল্ট তুলনামূলকভাবে খারাপ হচ্ছে। সব বিষয়ে গড়ে ১৪ পয়েন্ট অর্জন করতেই তারা হিমসিম খাচ্ছে। গণিতে এসব শিক্ষার্থীর ১৮ পয়েন্ট ঘাটতি রয়েছে।

নিম্ম মাধ্যমিকের তৃতীয় বর্ষের প্রায় অর্ধেক শিক্ষার্থী দিনে অন্তত এক ঘন্টা মোবাইল ডিভাইস নিয়ে সময় কাটায়। ১৫% শিক্ষার্থী দিনে এক ঘন্টা করে মোবাইল ডিভাইসে সময় কাটায়। মধ্যে একচতুর্থাংশের কোন মোবাইল নেই। অন্যদিকে, প্রাথমিক শিক্ষার চুড়ান্ত বর্ষে পৌঁছে শিক্ষার্থীদের ৫৪ ভাগ ব্যক্তিগত মোবাইল হাতে পায়।

শিক্ষার্থীরা সাধারণত ওয়েব ব্রাউজিং, ই-মেইল আদান প্রদান এবং গেম খেলতে পছন্দ করে।  জড়িপে আরো দেখা যায়, ১১ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্মার্ট ফোনের চাহিদা বেশি।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top