শিরোনাম

বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলায় কাইজালা উন্মোচন করল মাইক্রোসফট | বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - ওয়ালটনের ফোরজি ফোনে ক্যাশব্যাক | বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - বইমেলায় ড. হাসান বাবুর নতুন বই ‘একটি স্বপ্ন একটি দেশ, ডিজিটাল বাংলাদেশ’ | বুধবার, ফেব্রুয়ারী 21, 2018 - খুলনায় বাংলালিংক এর ফোরজি চালু | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018 - বন্ধ হচ্ছে উইকিপিডিয়ার ডেটা ছাড়া তথ্যসেবা | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018 - বাজারে এলো সিউ কম্প্যাক্ট ডেস্কটপ নেটওয়ার্ক লেবেল প্রিন্টার | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018 - জুতা পরে হাঁটলেই চার্জ হবে ফোন | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018 - নতুন সংস্করণে আসুসের গেইমিং ল্যাপটপ | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018 - টাটা নিয়ে আসছে ড্রাইভারলেস গাড়ি | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2018 - চার মোবাইল অপারেটর পেল ফোরজি লাইসেন্স |
প্রথম পাতা / টিউটোরিয়াল / সহজে আপনিও তৈরি করতে পারবেন কিউআর কোড
সহজে আপনিও তৈরি করতে পারবেন কিউআর কোড

সহজে আপনিও তৈরি করতে পারবেন কিউআর কোড

qrবিভিন্ন পণ্যের গায়ে প্রায়ই দেখা যায় চারদিকে অসংখ্য কালো বিন্দু সহ একটি কালো বাক্স। এই কালো বাক্সটি স্মার্টফোনে স্ক্যান করে বিভিন্ন জিনিস করা সম্বব। বস্তুটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যও মেলে। এটিকে বলে কিউআর কোড। এই বারকোডে সাদা কালো বিন্দুর মধ্যে যে তথ্য সঞ্চিত থাকে তাকে কিউআর মডিউল বলে।

এই বিশেষ কোডের মধ্যে নিউমেরিক, আলফা নিউমেরিক আর বাইনারি পদ্ধতিতে তথ্য সঞ্চিত থাকে। ফলে স্মার্টফোন খুব সহজেই পড়ে ফেলতে পারে কিউআর কোডের তথ্য। বারকোডের থেকে বেশি তথ্য রাখা সম্ভব কিউআর কোডের মধ্যে। বিশেষ করে ভারত বা চিনের মতো দেশে এই কোডের মাধ্যমে অফলাইন পেমেন্ট, ওয়াইফাই শেয়ারিং, টাকা ট্রান্সফার ইত্যাদি করা সম্ভব হচ্ছে এই কোডের মাধ্যমে। এবার দেখে নেওয়া যাক কিভাবে খুব সহজেই তৈরি করবেন কিউআর কোড।

১. প্রথমে একটি ভালো কিউআর কোড জেনারেটার খুঁজে বার করুন। এরকম কিছু কিউআর কোড জেনারেটর হল QR Code Generator, Goqr, Visualead ইত্যাদি।

২. এবার আপনার পছন্দের ইউআরএল সংযুক্ত করে দিন কিউআর কোডের সাথে। কিউআর কোডে আপনার ফেসবুক, ইউটিউব, ইন্সটাগ্রাম সহ যেকোন ইউআরএল যুক্ত করতে পারবেন। এইভাবে আপনি স্ট্যাটিক ও ডাইনামিক দু’ধরনের ইউআরএল যুক্ত করতে পারবেন।

৩. এরপর আপনার ইউআরএল কোড তৈরি হয়ে গেলে দেখে নিন সেটি ঠিকমতো কাজ করছে কি না।

৪. একবার সেটি শেয়ার করে দিলে কোডটি ট্রাক করতে পারবেন। এবং সেটি কতজন স্ক্যান করল তাও দেখতে পারবেন। এইভাবে আপনি আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিস সাধারণ মানুষের মধ্যে সহজেই ছড়িয়ে দিতে পারবেন।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top