শিরোনাম

সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - বিসিএস এর ২৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - ‘জিপি লাউঞ্জ’ উদ্বোধন করল গ্রামীণফোন | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - ল্যাপটপ মেলায় আই লাইফের ফ্রী গিফট! | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - শপ আপের নতুন অ্যাড প্ল্যাটফর্মের উদ্বোধন ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - গ্লোবাল ব্র্যান্ড নিয়ে এলো এস সিরিজের নতুন অষ্টম প্রজন্মের নোটবুক | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - অ্যান্ড্রয়েডে আসছে আইফোনের জনপ্রিয় গেম | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - জিপি ওয়াওবক্স ব্যবহারকারীদের জন্য বিশেষ সুবিধা আনল পাঠাও | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - শেষ হলো অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ঢাকা ২০১৭ | সোমবার, ডিসেম্বর 11, 2017 - উন্মোচন হলো দেশে তৈরি প্রথম স্মার্টফোন ওয়ালটন ‘প্রিমো ই৮আই’ | রবিবার, ডিসেম্বর 10, 2017 - টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা পূরণে সহায়তা করবে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল |
প্রথম পাতা / ফ্রিল্যান্সিং / সাম্প্রদায়িকতার স্থান বাংলাদেশে কখনো হয়নি ভবিষ্যতেও হবে না-ইনু
সাম্প্রদায়িকতার স্থান বাংলাদেশে কখনো হয়নি ভবিষ্যতেও হবে না-ইনু

সাম্প্রদায়িকতার স্থান বাংলাদেশে কখনো হয়নি ভবিষ্যতেও হবে না-ইনু

china-edu-expoঢাকায় শুরু হয়েছে দুই দিন ব্যাপী চায়না এডুকেশন এক্সপো ২০১৭।গতকাল বৃহস্পিতবার সকালে রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউতে ডেইলি স্টার ভবনে এই এক্সপো অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

মেলার উদ্বোধন শেষে হাসানুল হক ইনু বলেন, চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক, বানিজ্যিক ও সামাজিক ও শিক্ষা ক্ষেত্রে শক্তিশালি সম্পর্ক রয়েছে। চীন বাংলাদেশের পরিক্ষীত বন্ধু বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রদায়িকতার স্থান বাংলাদেশে কখনো হয়নি ভবিষ্যতেও হবে না। টিপ, টুপি ও ঘোমটা দেখে মানুষের ধর্ম নির্ধারন করা যায় না। দেশের জন্য কিছু করতে হলে সবাইকে মন্ত্রী এমপি হতে হয় না এজন্য দেশ প্রেমিক হতে হয় বলেও মন্তব্য করেন হাসানুল হক ইনু।

এসময় বিদেশে লেখাপড়া করলেও সেই জ্ঞানকে দেশের কল্যানের জন্য কাজে লাগাতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান তথ্যমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় চীনের সাউথ ওয়েস্ট ফরেস্ট্রি ইউনিভার্সিটির ডেপুটি ডীন মিস ইয়াং সিউই বলেন, চীন বাংলাদেশের বন্ধু প্রতিম দেশ তাই বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য চীনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দ্বার অবারিত। এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের কম খরচে পূর্ণ কালীন বৃত্তি নিয়ে চীনে উচ্চতর ডিগ্রি নেয়ার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে চীনের সাউথ এশিয়ান এডুকেশন অ্যাফেয়ার অ্যাডভাইজর ড. পার্থ সারথী গাঙ্গুলিবলেন, এ পর্যন্ত সানজেন ইন্টারন্যাশনালের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে এক হাজার শিক্ষার্থী চীনের বিভিন্ন নামকরা বিশ^বিদ্যালয়ে পড়তে গিয়েছে এবং তারা দেশে ফিরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গুরুত্বের সঙ্গে দেশ সেবায় ব্রত হয়েছে। এটা নিঃসন্দেহে প্রশংসার বিষয় বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বিদেশে উচ্চশিক্ষায় সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান সানজেন ইন্টারন্যাশনালের উদ্যোগে ঢাকায় তৃতীয়বারেরর মতো আয়োজন হচ্ছে চায়না এডুকেশন এক্সপো। বাংলাদেশী এজেন্সীর পাশাপাশি চীনের বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধরাও এসেছেন মেলায়।

এখানে রয়েছে চীনের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলার সুযোগ, স্পট এডমিশন, সার্ভিসের ওপর বিশেষ ছাড় এবং ফাইল ওপেনিংয়ে আকর্ষণীয় গিফটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এতে ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবকরা বিভিন্ন পরামর্শক প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে খোঁজখবর নিচ্ছেন। মেলা চলবে আগামীকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত।

এ প্রসঙ্গে চীনে উচ্চশিক্ষা পরামর্শক প্রতিষ্ঠান সানজেন ইন্টারন্যাশনালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরুল হক বলেন, প্রায় শতভাগ স্কলারশিপের কারণে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের কাছে চীনে লেখাপড়ার আগ্রহ বেশি। মানসম্পন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও ভিসা প্রসেসিংসহ সার্বিক সেবা সুনিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব।

উল্লেখ্য দু’দিন ব্যাপী আয়োজিত এ মেলা শেষ হবে আজ ২৪ নভেম্বর শুক্রবার রাত ৯টায়।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top