শিরোনাম

মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - কম্পিউটারের মাধ্যমে ফোন চার্জে বসালে হতে পারে তথ্য চুরি! | মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - যে সব কারণে কিনবেন নোকিয়া ৮ | মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল কলেজে নবীনবরণ অনুষ্ঠিত | মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - কে করবে অস্ত্রোপচার ? | মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - আসছে স্যামসাংয়ের নতুন ট্যাব | মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - চেক লেখার সময়ে এই ভুলগুলি করলেই ফাঁকা হবে অ্যাকাউন্ট! | মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - জিওনির কম বাজেটের নতুন স্মার্টফোন | মঙ্গলবার, আগস্ট 22, 2017 - নিটল ইলেকট্রনিক্স এর শোরুম এখন সিলেটে | সোমবার, আগস্ট 21, 2017 - সীমান্তে অবৈধ টাওয়ার, ১৭ কোটি টাকা জরিমানা গুনতে হবে বাংলালিংককে | সোমবার, আগস্ট 21, 2017 - টাকা ওঠাতে চার্জ বেশি নিচ্ছে বিকাশ |
প্রথম পাতা / টেলিকম / টেলিকম পলিসি / সিটিসেল খুলল না কেন, জানতে চাইল আপিল বিভাগ
সিটিসেল খুলল না কেন, জানতে চাইল আপিল বিভাগ

সিটিসেল খুলল না কেন, জানতে চাইল আপিল বিভাগ

spectramআদালতের নির্দেশনার পরও সিটিসেলকে কেন তরঙ্গ বরাদ্দ দেয়া হয়নি তার ব্যাখ্যা রোববার (৬ নভেম্বর) দুপুরের মধ্যে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার (বিটিআরসির) কাছে জানতে চেয়েছেন আপিল বিভাগ।

রোববার (৬ নভেম্বর) সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এ সময় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল খোন্দকার দিলিরুজ্জামান। সিটিসেলের পক্ষে ছিলেন এ এম আমিনুদ্দিন।

এর আগে গত ৩ নভেম্বর সেলফোন অপারেটর সিটিসেলের তরঙ্গ বরাদ্দ খুলে দেয়ার নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। তবে শর্ত ছিলো আগামী ১৯ নভেম্বরের মধ্যে সেলফোন অপারেটরটিকে পরিশোধ করতে হবে ১০০ কোটি টাকা।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন।

প্রসঙ্গত, তরঙ্গ বরাদ্দ বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত বা পুনরায় তরঙ্গ বরাদ্দের নির্দেশনা চেয়ে গত ২৪ অক্টোবর আবেদন করে সিটিসেল।

বারবার তাগাদা দেয়ার পরও সরকারের পাওনা প্রায় ৪৭৭ কোটি ৫১ লাখ টাকা পরিশোধ করতে না পারায় সিটিসেলের কার্যক্রম বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছিল বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (বিটিআরসি)। পরের মাসে তাদের নোটিসও দেয়া হয়। এর পর ৯ আগস্ট সিটিসেলের আবেদনে সাড়া দিয়ে টাকা পরিশোধসাপেক্ষে কার্যক্রম চালিয়ে যেতে দুই মাস সময় দেয় আপিল বিভাগ।

সিটিসেলের তরঙ্গ স্থগিত করার পর ওই দিন সন্ধ্যায় বিটিআরসির কর্মকর্তারা র‌্যাব-পুলিশ নিয়ে মহাখালীতে সিটিসেলের প্রধান কার্যালয়ে ঢুকে তরঙ্গ বন্ধের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করেন গত ২০ অক্টোবর।

গত ২৫ অক্টোবর তরঙ্গ বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত বা পুনরায় তরঙ্গের সংযোগ দেয়ার নির্দেশ চেয়ে সিটিসেলের আবেদন শুনে চেম্বার আদালত তা ৩১ অক্টোবর পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন।

এর আগে বকেয়া পরিশোধে ব্যর্থতার কারণে গত ৩১ জুলাই প্রতিষ্ঠানটির গ্রাহকদের বিকল্প কোনো সেবা গ্রহণের নির্দেশনা দেয় বিটিআরসি। ওই নির্দেশনায় বলা হয়, সরকারের প্রাপ্য রাজস্ব পরিশোধ না করে অপারেশনাল কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার মাধ্যমে লাইসেন্সের শর্ত ও টেলিযোগাযোগ আইন, ২০০১-এর বিধান লঙ্ঘন করেছে সিটিসেল। এ অবস্থায় প্রতিষ্ঠানটির সেলুলার মোবাইল ফোন অপারেটর লাইসেন্স ও রেডিও কমিউনিকেশন্স ইকুইপমেন্ট লাইসেন্স বাতিল করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top