শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 18, 2018 - ওয়ান প্লাসের নতুন পাওয়ার ব্যাংক | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 18, 2018 - স্প্যাম মেসেজ ঠেকাতে হোয়াটসঅ্যাপের নতুন ফিচার | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 18, 2018 - যাত্রা শুরু করলো ওয়ালটনের কম্পিউটার কারখানা | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 18, 2018 - নতুন স্মার্টফোন আনল হুয়াওয়ে অনার | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 18, 2018 - স্বল্প মূল্যের গ্যালাক্সি সিরিজের ফোন ‘অন৭ প্রাইম’ | বুধবার, জানুয়ারী 17, 2018 - একত্রে কাজ করবে এটুআই এবং একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প | বুধবার, জানুয়ারী 17, 2018 - ল্যাপটপের সঙ্গে রাউটার ফ্রি! | বুধবার, জানুয়ারী 17, 2018 - ‘অপো এশিয়ায় সর্বাধিক বিক্রীত স্মার্টফোন’ | বুধবার, জানুয়ারী 17, 2018 - চীনে চালু হচ্ছে গুগলের এআই ল্যাব | বুধবার, জানুয়ারী 17, 2018 - বৈদ্যুতিক গাড়িতে ১১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগে ফোর্ডের আগ্রহ প্রকাশ |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / ফিচার পোস্ট / স্কাইপে,হোয়াটসঅ্যাপ,ভাইবার এর কারনে অপারেটরদের রাজস্ব কমছে
স্কাইপে,হোয়াটসঅ্যাপ,ভাইবার এর কারনে অপারেটরদের রাজস্ব কমছে

স্কাইপে,হোয়াটসঅ্যাপ,ভাইবার এর কারনে অপারেটরদের রাজস্ব কমছে

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা ওটিটি (ওভার দ্য টপ) সেবা গ্রহণের কারণে মোবাইল ফোন অপারেটরদের এসএমএস কমছে।২০১৫ সালের প্রথম প্রহর এবং সারাদিনে মোবাইলফোনের মাধ্যমে শুভেচ্ছা বিনিময়ের তুলনামূলক চিত্র বিশ্লেষণ করে সংশ্লিষ্টরা ব‌‌‌লেছেন, ২০১৪ সালের তুলনায় তা ১৫ থেকে ২০ শতাংশ কম।

হালে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার শুভেচ্ছা বিনিময়ের প্রধান মাধ্যম হয়ে ওঠায় এমএসএস কমতে শুরু করেছে অপারেটরগুলোর। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই তা রাজস্ব অায়ে প্রভাব ফেলছে।

ott

প্রায় একই তথ্য পাওয়া গেল কনটেন্ট প্রোভাইডারদের কাছ থেকেও। এরিনাফোন বিডি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফজলে রাব্বি জানালেন, এসএমএস পাঠানোর হার কমছে। তিনি বলেন, ২০১৪ সালে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য যে পরিমাণ বাল্ক এসএমএস বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান নিয়েছিল এবার তা প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে। গত ২-৩ বছর ধরেই এটা কমছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। দেশে থ্রিজি ও স্মার্টফোনের ব্যবহার বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে হোটয়াসঅ্য‌‌‌াপ, ভাইবারের ব্যবহারও বেড়েছে। ফলে কমছে মোবাইলফোনের এসএমএস।

সংশ্লিষ্টদের অাশঙ্কা, দেশে থ্রিজির ব্যাপক ব্যবহার, স্মার্টফোনের প্রবৃদ্ধির কারণে অাগামীতে মোবাইলফোনের এসএমএস বহুলাংশে কমে যাবে। অপারেটরগুলোর রাজস্ব ঠিক রাখতে হবে ইন্টারনেট সেবা (বিক্রি করে) থেকে।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গ্রামীণফোন ও বাংলালিংকের ১০-১৫, রবির ২০-২৫, এবং এয়ারটেলের ১৫-১৮ শতাংশ এসএমএস কমেছে। বিশেষ করে চলতি বছরের প্রথম প্রহরে মোবাইলফোনে এসএমএস অাদান-প্রদানের হার থেকে এই চিত্র উঠে এসেছে।

যদিও গ্রামীণফোনের হেড অব এক্সটার্নাল কমিউনিকেশনস সৈয়দ তালাত কামাল জানান, এসএমএস একটি জনপ্রিয় যোগাযোগ মাধ্যম। এটির ব্যবহার আগের তুলনায় এখন আরও অনেক বেড়েছে যার প্রধান কারণ হলো নতুন প্রযুক্তির ব্যাপক জনপ্রিয়তা। তিনি বলেন, হোয়াটস অ্যাপ, ভাইবার এবং ফেসবুকের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলো গতানুগতিক এসএমএসকে প্রতিস্থাপিত করেছে। এর ফলে ইন্টারনেটের ব্যবহারও অনেকটা বৃদ্ধি পেয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাংলালিংকের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, হোয়াটস অ্যাপ, ভাইবারে গ্রুপ করা থাকে। কয়েকটি গ্রুপে গিয়ে সবাইকে মেসেজ পাঠানো যায়। ফলে এই সহজ পথটি ছেড়ে কেন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা একেকজনকে ধরে এসএমএস পাঠাবে? উল্টো প্রশ্ন করেন তিনি।

দেশে-বিদেশে বিনামূল্যে কথা বলার মাধ্যম হিসেবে দেশে জনপ্রিয়তা পেয়েছে স্কাইপি, ভাইবার, ট্যাঙ্গো ও হ্যাং অাউট সেবা। ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে এসব ওটিটি (ওভার দ্য টপ) সেবার মাধ্যমে ভয়েস এবং ভিডিও কল করা যায়। করা যায় মেসেজ অাদান-প্রদানও।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দেশে বর্তমানে মোবাইলফোনে ভয়েসসহ অন্যান্য সেবা এবং ইন্টারনেট ব্যবহারে ১০০ গিগা ব্যান্ডউইথ ব্যবহার হয়। এর মধ্যে সরকারি খাতের ২০ এবং বেসরকারি খাতের ৮০ গিগা ব্যান্ডউইথ রয়েছে।

সূত্র জানায়, স্কাইপে, ভাইবার, ট্যাঙ্গো ও হ্যাং অাউটসহ অন্যান্য ও‌‌‌টিটি মাধ্যমে ব্যান্ডউইথ ব্যবহার হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ গিগা।

মোবাইলফোন অপারেটরগুলোর সংগঠন অ্যামটব সূত্রে জানা গেছে, ওটিটিতে যোগাযোগ বাড়লে মোবাইল অপারেটরদের রাজস্ব অায়ে চাপ পড়বে। ওটিটিতে কথা বললে এটা হয়। সংগঠনটি জানিয়েছে, ওটিটি সেবার ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশের মোবাইলফোন অপারেটরগুলোর রাজস্ব অায়ের প্রবৃদ্ধিতে ধীরগতি ভর করেছে।

তবে টেলিযোগাযোগ বিশেষজ্ঞ ও লার্ন এশিয়ার সিনিয়র পলিসি ফেলো অাবু সায়ীদ খান বলেন, নতুন প্রযুক্তি পুরনো প্রযুক্তিতে সরিয়ে জায়গা করে নেবে এটাই স্বাভাবিক। ফলে মোবাইলফোনে এসএমএসও দিন দিন কমবে। জাপানের উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, জাপানে কখনওই এসএমএস ছিল না। সেখানে মাল্টিমিডিয়া মেসেজের (এমএমএস) চল রয়েছে বরাবরই।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top