শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - বাংলাদেশেই তৈরি হবে সকল ডিজিটাল ডিভাইস : মোস্তাফা জব্বার | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - যে কারণে অনলাইন অ্যাকাউন্টে কঠিন পাসওয়ার্ড দিবেন | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - ফিশিং জালিয়াতির শিকার হচ্ছেন জিমেইল ব্যবহারকারীরা | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী 19, 2017 - দেশের বাজারে লেনোভোর এইচডি ডিসপ্লের ল্যাপটপ | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - হিটাচি প্রজেক্টরে ম্যাজিক অফার | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - বাংলাদেশে ডি-লিংক কাস্টমার কেয়ার সেন্টারের অংশীদার কম্পিউটার সোর্স | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - অপ্পোর নতুন ২ স্মার্টফোনে গ্রামীণফোনের ফ্রি ইন্টারনেট | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - ওয়েস্টার্ন ডিজিটাল এর পার্টনার মিট | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - ইউটিউবের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে পর্নগ্রাফি ভিডিও | বুধবার, জানুয়ারী 18, 2017 - আসছে স্বল্প মূল্যের অ্যান্ড্রয়েড ওয়ান ফোন |
প্রথম পাতা / ইভেন্ট / হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা শুরু ৮ মে থেকে
হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা শুরু ৮ মে থেকে

হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা শুরু ৮ মে থেকে

শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রামিংয়ে আগ্রহী করতে ৮ মে থেকে শুরু হচ্ছে জাতীয় হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা-২০১৫। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে দেশব্যাপী এই প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দেশের ৭টি বিভাগের ৮টি ভেন্যুতে এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। ভেন্যুগুলো হলো শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রেকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

robi-prog

মে মাসের ৮ থেকে ২০ তারিখ পর্যন্ত এই প্রতিযোগিতার আঞ্চলিক পর্বগুলো অনুষ্ঠিত হবে। আঞ্চলিক পর্যায়ের বিজয়ীদের নিয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৯ মে জাতীয় প্রতিযোগিতা হবে।

এতে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা জুনিয়র এবং দশম থেকে এইচএসসি ও পলিটেকনিক চতুর্থ সেমিস্টারের শিক্ষার্থীরা সিনিয়র ক্যাটাগরিতে অংশ নিতে পারবেন।

প্রতিযোগিতায় বিচার কাজে দেশে তৈরি জাজ ইঞ্জিন কোডমার্শাল ব্যবহার করা হবে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এখন থেকে প্রতিবছর এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে। এ জন্য দেশের প্রতি জেলার শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দিতে একজন নারী শিক্ষক, দুইজন পুরুষ শিক্ষক এবং দুইজন সহকারী প্রোগ্রামারকে মেন্টর হিসেবে নিযুক্ত করা হবে। ইতিমধ্যে মেন্টরদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে।

এছাড়া প্রোগ্রামিং সংক্রান্ত যে কোন বিষয় সম্পর্কে জানাতে রবির সৌজন্যে একটি হেল্পলাইন করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

বুয়েটের শিক্ষক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ বলেন, এ দেশে স্টিভ জবস বা বিল গেটসের মতো প্রতিভা লুকিয়ে আছে। এদের খুঁজে বের করে কাজে লাগাতে হবে। এ জন্য প্রতিবছর এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন) এর সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান জানান, ১৯৯৯ সাল বাংলাদেশে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা হয়। এই পর্যন্ত কোন ধরনের প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতায় ভারত বাংলাদেশকে হারাতে পারেনি।

জাতীয় প্রতিযোগিতায় সারাদেশ থেকে ১৫০ জন প্রতিযোগীকে সুযোগ দেওয়া হবে। এই ঠিকানায় (www.nhpc.org) গিয়ে বিস্তারিত জানা যাবে বলেও জানান তিনি।

প্রতিযোগিতায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সাথে সহযোগিতায় থাকবে মোবাইল অপারেটর রবি, বিডিওএসএন, ধানসিঁড়ি কমিউনিকেশন, দ্বিমিক কম্পিউটিং ল্যাব এবং কোড মার্শাল।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার, রবির প্রধান বিপণন কর্মকর্তা তোফায়েল রশিদ, কোডমার্শালের প্রতিষ্ঠাতা মাহবুবুর রহমান, বিসিসির নির্বাহী পরিচালক আশরাফুল ইসলাম এবং ধানসিঁড়ি কমিউনিকেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শমী কায়সার।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top