শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - গাড়ি চালাতে এবার থেকে আর কোনও চাবির প্রয়োজন নেই! | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিজয়ী কাস্টমারদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে সিম্ফনি ঈদ অফার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - বিশ্বব্যাপী সাইবার হামলায় ৬ মাসেই ক্ষতি ৪০০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - এইচটিসি স্মার্টফোন ব্যবসা কিনতে গুগলকে গুনতে হবে ১১০ কোটি ডলার | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - টাকা না পেলে টেলিটক মারা যাবে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেড পরিদর্শনে হিটাচি এক্সক্লুসিভ টিম | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী’র ‘অ্যাসোসিও ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ারটেল’র ‘ইয়োলো ফেস্ট’ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় নতুন দেশি অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 21, 2017 - ড্যাফোডিলে ‘সমন্বিত শিক্ষণ পদ্ধতিতে গুগল ক্লাসরুমের ব্যবহার’ শীর্ষক লেকচার সেমিনার অনুষ্ঠিত |
প্রথম পাতা / প্রডাক্ট রিভিউ / ১০ হাজার টাকার মধ্যে ডিজিটাল ক্যামেরা
১০ হাজার টাকার মধ্যে ডিজিটাল ক্যামেরা

১০ হাজার টাকার মধ্যে ডিজিটাল ক্যামেরা

এখন প্রায় সব মোবাইল ফোনেই আছে ক্যামেরা। তবে এতে তোলা ছবির মান তেমন ভালো হয় না,বড় করে প্রিন্টও করা যায় না।তাই ডিজিটাল ক্যামেরার আবেদন অনেকের কাছেই আছে।শখ করে অনেকে কেনেন ডিজিটাল এসএলআর ক্যামেরা। তবে সেটির দাম অর্ধলক্ষ টাকার বেশি। তাই শখের ছবি তোলা থেকে নিজেকে বঞ্চিত না করতে ফিক্সড ফোকাসের ডিজিটাল ক্যামেরার চাহিদা তুঙ্গে।প্রযুক্তির বাজারে …

Review Overview

User Rating: Be the first one !
0
এখন প্রায় সব মোবাইল ফোনেই আছে ক্যামেরা। তবে এতে তোলা ছবির মান তেমন ভালো হয় না,বড় করে প্রিন্টও করা যায় না।তাই ডিজিটাল ক্যামেরার আবেদন অনেকের কাছেই আছে।শখ করে অনেকে কেনেন ডিজিটাল এসএলআর ক্যামেরা।
canon_a2500
তবে সেটির দাম অর্ধলক্ষ টাকার বেশি। তাই শখের ছবি তোলা থেকে নিজেকে বঞ্চিত না করতে ফিক্সড ফোকাসের ডিজিটাল ক্যামেরার চাহিদা তুঙ্গে।প্রযুক্তির বাজারে ১০ হাজার টাকার মধ্যে বেশ কিছু র্ব্যান্ডের ডিজিটাল ক্যামেরা কিনতে পাওয়া যায়।চাইলে কিনে নিয়ে ছবি তোলা শুরু করে দিতে পারেন।
ক্যানন
ক্যাননের বেশ কটি ডিজিটাল ক্যামেরা পাওয়া যায় ১০ হাজার টাকার মধ্যে। ১৬ মেগাপিক্সেলের ৫এক্স জুম লেন্সের ক্যানন পাওয়ারশট এ২৩০০ ও এ৩৪০০ ক্যামেরার দাম পড়বে যথাক্রমে আট হাজার ৪০০ ও নয় হাজার ৩০০ টাকা। ১৪.১ মেগাপিক্সেলের পাওয়ারশট এ২২০০, ১৬ মেগাপিক্সেলের ক্যানন এ২৪০০ দাম পড়বে যথাক্রমে নয় হাজার ১০০ ও নয় হাজার ২০০ টাকা।
সনি
বাজারে বেশ কটি মডেলের সনি সাইবার শট ডিজিটাল ক্যামেরা পাওয়া যায়। ১০ হাজার টাকায় কিনতে পারেন হালকা ওজন ও গড়নের ১৬.১ মেগাপিক্সেল ও ৫এক্স অপটিক্যাল জুমের ক্যামেরা সনি ডব্লিউ৬৩০। ১৪.১ মেগাপিক্সেলের দুটি ক্যামেরা হচ্ছে সনি ডব্লিউ৬১০ ও সনি ডব্লিউ৬২০, দাম পড়বে যথাক্রমে আট হাজার ৩০০ টাকা ও নয় হাজার ৫০০ টাকা। সনি ডব্লিউ৫১০ ও সনি ডব্লিউ৭১০ ক্যামেরার দাম পড়বে যথাক্রমে নয় হাজার ৬০০ ও নয় হাজার ৫০০ টাকা। ডব্লিউ৬২০
ক্যামেরা দিয়ে এইচডি ভিডিও ধারণ করা যায়।
নাইকন
১৪ মেগাপিক্সেলের নাইকন এস২৬০০ মডেলের ডিজিটাল ক্যামেরার দাম আট হাজার ৫০০ টাকা।১৬ মেগাপিক্সেলের এইচ৪৩০০, এইচ৩৩০০ মডেলের দাম নয় হাজার ৫০০ টাকা। নাইকন এইচ২৬০০-এর দাম পড়বে আট হাজার ৫০০ টাকা।
স্যামসাং
বাজারে সবচেয়ে কম দামের ডিজিটাল ক্যামেরা স্যামসাং র্ব্যান্ডের। ১৪.২ মেগাপিক্সেল রেজ্যুলেশনের স্যামসাং ইএস৯০ মডেলের ক্যামেরার দাম সাত হাজার টাকা। ১২.২ মেগাপিক্সেলের স্যামসাং ইএস৮০ ক্যামেরার দাম সাত হাজার ৮০০ টাকা, ১৪.২ মেগাপিক্সেলের স্যামসাং পিএল২০ ও এসটি৬৫ মডেলের ক্যামেরার দাম যথাক্রমে আট হাজার ৯০০ ও নয় হাজার ৩০০ টাকা।
অলি¤পাস
১৪ মেগাপিক্সেলের অলি¤পাস ভিজি ১২০ ক্যামেরা ও অলি¤পাস এফই৪০২০ মডেলের ক্যামেরার দাম নয় হাজার ৫০০ টাকা।
ফুজি
১৪ মেগাপিক্সেল রেজ্যুলেশন ও ৫এক্স অপটিক্যাল জুমের ফুজি ফাইন পিক্স জেএক্স৫০০ ক্যামেরার দাম সাত হাজার ৭০০ এবং ১৬ মেগাপিক্সেলের ফুজি ফাইন পিক্স জেএক্স৫৫০ মডেলের দাম আট হাজার ৭০০ টাকা।
খেয়াল রাখুন
মেগাপিক্সেল: ডিজিটাল ক্যামেরার মেগাপিক্সেল যত বেশি হবে, ছবির মানও তত ভালো হবে—এই
ধারণা স¤পূর্ণ ভুল। ছবির আকার নির্ধারণ করে দেয় মেগাপিক্সেল। একটি ৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা
দিয়ে ৪ ী ৬ ইঞ্চি আকারের একটি ছবি তোলা যায়। ১০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরায় ১৩ ী ১৯ ইঞ্চি
আকারের ছবি তোলা যায়।
সেন্সর: ইমেজ সেন্সরের ওপর ছবির মান নির্ভর করে। সেন্সরের আকার যত বড় হবে, ছবির মান
তত ভালো হবে। ডিজিটাল ক্যামেরায় দুই ধরনের ইমেজ সেন্সর দেখা যায়। সিসিডি ও সিএমওএস
নামের সেন্সরে সিএমওএস সেন্সরে কম ব্যাটারি খরচ হয়।
জুম: ক্যামেরাগুলোর অপটিক্যাল ও ডিজিটাল দুই ধরনের জুম থাকে। অপটিক্যাল জুম লেন্সের
ফোকাল দৈর্ঘ্য পরিবর্তন করে বিষয়বস্তুকে কাছে নিয়ে আসে। ফলে ছবির মান অটুট থাকে।
 ওয়ারেন্টির কাগজপত্র খেয়াল করে পূরণ করুন।
 ক্যামেরার খাপ বা ব্যাগ আলাদা কিনতে পাওয়া যায়। সাধারণ ব্যবহারের জন্য ক্যামেরার কভারের
দাম ১২০ থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত।
 ক্যামেরার পর্দা বা লেন্স হাত বা সাধারণ কাপড় দিয়ে না মুছে বিশেষ ধরনের পাতলা কাপড় দিয়ে
পরিষ্কার করুন।
 ক্যামেরার পর্দা বা লেন্সে দাগ যেন না পড়ে, সেদিকে সর্বোচ্চ খেয়াল রাখুন।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top