শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 8, 2016 - কম্পিউটার সোর্সে রূপালী চাঁদের ডেল আল্ট্রাবুক | বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 8, 2016 - বিসিএস কম্পিউটার সিটিতে আসুস উইন্টার ফেসটিভ্যাল | বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 8, 2016 - দেশের মোবাইল বাজারে সিম্ফনির নতুন দুটি স্মার্টফোন | বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 8, 2016 - ওয়াই-ফাইয়ের স্মার্ট বাড়ি সজাতে পারেন মনের মত | বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর 8, 2016 - বাংলালিংক এবং সিম্ফনি’র Roar E80 স্মার্টফোন সাথে ১৮জিবি ফ্রি ইন্টারনেট | বুধবার, ডিসেম্বর 7, 2016 - বিয়ে উপলক্ষে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স পণ্যে অফার | বুধবার, ডিসেম্বর 7, 2016 - স্টিভ জবসের নামে নামকরণ ও কর ফাঁকির অভিযোগ | বুধবার, ডিসেম্বর 7, 2016 - মুক্তিযুদ্ধের বীরত্বগাথা নিয়ে গ্রামীণফোনের ডিজিটাল ভিডিও তথ্যভান্ডার | বুধবার, ডিসেম্বর 7, 2016 - বাগডুম ডটকম এর গ্রাহকদের মোবাইল পেমেন্ট সুবিধা দিবে শিওরক্যাশ   | বুধবার, ডিসেম্বর 7, 2016 - ২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আওয়ার অফ কোড |
প্রথম পাতা / ইভেন্ট / ‘আইসিপিসি-২০১৬’ ঢাকা পর্বে শীর্ষ দুটি স্থানই দখল করলো বুয়েট
‘আইসিপিসি-২০১৬’ ঢাকা পর্বে শীর্ষ দুটি স্থানই দখল করলো বুয়েট

‘আইসিপিসি-২০১৬’ ঢাকা পর্বে শীর্ষ দুটি স্থানই দখল করলো বুয়েট

buettttttttttttt

বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ কম্পিউটার প্রোগ্রামিং আয়োজন এসিএম আন্তর্জাতিক কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা (আইসিপিসি) ২০১৬-এর ঢাকা পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) দল ‘বুয়েট রায়ো’। ১১টি সমস্যার মধ্যে ১০টির সমাধান দিয়েছে তারা। এ দলের তিন সদস্য হলেন এম এম হারুন-উর-রশিদ, তন্ময় মল্লিক ও নাজমুর রশীদ। চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বুয়েট রায়োর নাম ঘোষণার পরপরই হারুন-উর-রশিদ প্রথমআলোকে বলেন, ‘চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অনুভূতি অসাধারণ! এখন চূড়ান্ত পর্বের জন্য প্রস্তুতি নিতে চাই।’

রাজধানীর ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকে (ইউএপি) শুক্র ও শনিবার অনুষ্ঠিত হয় এই প্রতিযোগিতা। এবার অংশ নিয়েছে ১২৫টি দল। প্রতি দলে ছিলেন তিনজন করে প্রোগ্রামার এবং একজন করে কোচ। বুয়েটের আরেক দল ‘বুয়েট ওমনিট্রিক্স’ প্রথম রানারআপ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘ডিইউ সেন্সর্ড’ দ্বিতীয় রানারআপ হয়েছে। দুটি দলই নয়টি করে সমস্যার সমাধান দিতে পেরেছে। আগামী বছরের মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠেয় আইসিপিসির চূড়ান্ত পর্বে (ওয়ার্ল্ড ফাইনালস) অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে শীর্ষ তিন দলের।

গতকাল শনিবার ইউএপি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত সমাপনী অনুষ্ঠানে ফলাফল ঘোষণা ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। প্রতিযোগীদের তিনি নিজের জীবনের গল্প শোনান। অনুষ্ঠানের সভাপতি ইউএপির উপাচার্য জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেন, এ প্রতিযোগিতা বাংলাদেশের সফটওয়্যার শিল্পের উন্নতিতে সাহায্য করবে।

এসিএম-আইসিপিসির পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক সি জে হুয়াং। তিনি বলেন, ‘এসিএম-আইসিপিসির ওয়ার্ল্ড ফাইনালসের (চূড়ান্ত পর্ব) স্থান হিসেবে ভবিষ্যতে আমরা বাংলাদেশের কথা বিবেচনা করব।’ তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ বলেন, আইসিপিসির চূড়ান্ত পর্ব আয়োজনে যেকোনো ধরনের সহযোগিতা করবে বাংলাদেশ সরকার। ইউএপির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান কাইয়ুম রেজা চৌধুরী ও সহ-উপাচার্য এম আর কবির অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

এসিএম-আইসিপিসি ঢাকা পর্বের আয়োজক ইউএপি। আয়োজনে সহযোগিতা করছে আইসিটি বিভাগ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল, এথিকস অ্যাডভান্সড টেকনোলজিস লিমিটেড. লিড সফট, দোহাটেক, বিকাশ, এসইএল ও সাউথইস্ট ব্যাংক।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top