শিরোনাম

বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - জিপি অ্যাক্সেলারেটরের চতুর্থ ব্যাচের জন্য আবেদন গ্রহণ শুরু | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - বিসিএস-এ ‘ব্যবসা সাফল্যে প্রচার এবং প্রসার’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচী অনুষ্ঠিত | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে দারাজের ফিউচার লিডারশীপ প্রোগ্রাম | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ফাঁস হল নকিয়া ৯ এর ফিচার | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ এর সেরা পাঁচে বাংলাদেশের দুই প্রকল্প | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - স্মার্টফোনে চার্জ না থাকার জন্য দায়ী যে সকল অ্যাপ | বৃহস্পতিবার, মে 25, 2017 - ফেসবুকে ভিডিও আপলোডে পুরস্কার | বুধবার, মে 24, 2017 - গ্রাহকের হাতে পণ্য তুলে দিতে সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় মাধ্যম বিক্রয় ডট কম | বুধবার, মে 24, 2017 - জেডটিই এবং বাংলালিংক নিয়ে এলো বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভার্চুয়াল এসডিএম | বুধবার, মে 24, 2017 - ৩৩১০ সহ নকিয়ার তিনটি স্মার্টফোন জুন থেকে দেশের বাজারে পাওয়া যাবে |
প্রথম পাতা / স্থানীয় খবর / শেষ হল জাতীয় হ্যাকাথন
শেষ হল জাতীয় হ্যাকাথন

শেষ হল জাতীয় হ্যাকাথন

সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের (আইসিটি) আয়োজনে অনুষ্ঠিত হল জাতীয় হ্যাকাথন ২০১৬। রাজধানীর মিরপুরের পুলিশ স্টাফ কলেজ কনভেনশন হলে ৬ ও ৭ এপ্রিল অনুষ্ঠিত এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন সারাদেশ থেকে আসা ৩৭০ দলের প্রায় দুই হাজার প্রতিযোগী। টানা ৩৬ ঘণ্টা ধরে এই প্রতিযোগীরা প্রোগ্রাম লিখেছেন, তারপর তৈরি করেছেন মোবাইল ফোনের অ্যাপ। এসব অ্যাপে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনের দশটি বিষয়ের একেকটি সমস্যার সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সঙ্গে হ্যাকাথনের আয়োজন সহযোগী ছিল মোবাইল ফোন সংযোগদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক। এ ছাড়া অনুষ্ঠান পার্টনার ছিল কিউবি।

hakathon-finale

শেষ দিন অর্থাৎ ৭ এপ্রিল হ্যাকাথনের ফলাফল ঘোষণা এবং পুরস্কার বিতরণ করা হয়। ১০টি বিভাগে ১০ দলকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণার পাশাপাশি প্রতিটি বিভাগে ১০টি দলকে প্রথম রানারআপ ও ১০টি দলকে দ্বিতীয় রানারআপ ঘোষণা করা হয়। সমাপনী অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।
কৃষি উৎপাদন বিভাগে সেরা হয়েছে নাল পয়েন্টার দল। পুরস্কারপ্রাপ্ত অন্য দলগুলো হলো নবজাতক ও শিশু বিভাগে অ্যাপসৌল, সড়ক দুর্ঘটনা বিভাগে টিম ফেলোশিপ, শিক্ষায় মানসম্মত শিক্ষক বিভাগে বুয়েট এক্সন, নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা বিভাগে কোড ব্রেকার, জ্বালানি সক্ষমতা বিভাগে টেকনো লাইফ, শহরের পরিবেশ বিভাগে গ্রাফিক পিপল, টেকসই পর্যটন বিভাগে ড্রয়িড ডিগার, সামুদ্রিক সম্পদ বিভাগে কোড ব্রেকার্স এবং দুর্নীতি বিভাগে হেক্সাগন দল।
মোবাইল অ্যাপ, গেম, ওয়েবভিত্তিক ও হার্ডওয়ার নির্ভর প্রযুক্তি উদ্ভাবনে চ্যাম্পিয়ন, প্রথম রানারআপ ও দ্বিতীয় রানারআপ মিলে এই ৩০ টি উদ্ভাবনী প্রকল্প পর্যায়ক্রমে আইসিটি বিভাগের সহায়তা পাবে জাতীয় পর্যায়ে বাস্তবায়নের জন্য।
হ্যাকাথনে সংশ্লিষ্ট সরকারি দপ্তরের ৪৪ জন ডোমেইন বিশেষজ্ঞ ও ৬০ জন বিভিন্ন ক্ষেত্রে আইটি বিশেষজ্ঞ দলের সমন্বয়ে জুড়ি দল যৌথ ভাবে পরিচালনা করেন অঙ্কুর ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহে আলম খান, অধ্যাপক হাসান সারওয়ার ও ইউজার হাবের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ওয়াহিদ আহসান।
পুরস্কার হিসেবে আইসিটি বিভাগের পক্ষ থেকে প্রথম ও দ্বিতীয় রানারআপসহ সব বিজয়ীকে ১০ লাখ টাকা দেওয়া হয়। বাংলালিংক চ্যাম্পিয়ন দলগুলোকে ৫০ হাজার টাকা করে দিয়েছে। প্রথম রানারআপ দলগুলোকে ট্যাবলেট কম্পিউটার দেয় বাংলালিংক। বিজয়ী দলগুলোকে ৮০ হাজার মার্কিন ডলার মূল্যমানের ফেসবুক স্টার্ট সুবিধা দেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। পাঁচ মাসের ইন্টারনেট সংযোগ সুবিধাসহ ১০ চ্যাম্পিয়ন দলকে মডেম দিয়েছে ওয়াইম্যাক্স সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান কিউবি।
উল্লেখ্য, গত ২০ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ২১ মার্চ পর্যন্ত চলে হ্যাকথনে অংশগ্রহনকারীদের নিবন্ধন কার্যক্রম। এরপর জমা হওয়া প্রাথমিক আবেদনের ভিত্তিতে নির্বাচিত ৩৭০টি দলকে অংশ নেওয়ার হ্যাকাথনে সুযোগ দেওয়া হয়। এই দলগুলোর সদস্যরা ৩৬ ঘণ্টার প্রোগ্রামিংয়ের মাধ্যমে উদ্ভাবিত প্রকল্প বিচারকদের সামনে প্রোটোটাইপ বা নমুনা অ্যাপ উপস্থাপন করে।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top