শিরোনাম

শনিবার, মে 27, 2017 - অ্যাপেল এর দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় স্টোর এখন সিঙ্গাপুর এ | শনিবার, মে 27, 2017 - নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে এলামনাইদের পুর্নমিলনী | শনিবার, মে 27, 2017 - ন্যাশনাল ডেমো ডে ও স্টার্টআপ এ্যাওয়ার্ড ২০১৭ | শনিবার, মে 27, 2017 - অনলাইন হোটেল বুকিং এ ৯০ শতাংশ ছাড়! | শনিবার, মে 27, 2017 - এখন ও উইন্ডোজ ১০ আপগ্রেড বিনামূল্যে | শনিবার, মে 27, 2017 - হার্ভার্ড থেকে ১৩ বছর পর  ডিগ্রি নিলেন জাকারবার্গ | শনিবার, মে 27, 2017 - দেশের গন্ডি পেরিয়ে পিএমঅ্যাস্পায়ার | শুক্রবার, মে 26, 2017 - স্থগিত হয়ে গেছে বেসিস ২০১৭-১৮ টার্মের ৩ পদে নির্বাচন | শুক্রবার, মে 26, 2017 - রবি’র লোকসান ১৭০ কোটি টাকা | শুক্রবার, মে 26, 2017 - ডোমেইন এবং হোস্টিং এ বিশেষ অফার |
প্রথম পাতা / সাম্প্রতিক খবর / অনুষ্ঠিত হলো নাসার সর্ববৃহত হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা
অনুষ্ঠিত হলো নাসার সর্ববৃহত হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা

অনুষ্ঠিত হলো নাসার সর্ববৃহত হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা

Untitled-1নানা উৎসাহ উদ্দীপনা ও দুই শতাধিক অংশগ্রহণকারীর মাধ্যমে ঢাকায় শেষ হলো যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা আয়োজিত বিশ্বের সর্ববৃহৎ হ্যাকাথন প্রতিযোগিতা ‘নাসা  স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৬’। বিশ্বের ২২০টিরও বেশি নগরীর মতো বাংলাদেশ পর্যায়ে অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতা শনিবার সন্ধ্যায় পুরস্কার বিতরণীর মাধ্যমে শেষ হয়।

ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (আইইউবি)-এ টানা ৩৬ ঘন্টার চূড়ান্ত হ্যাকাথন শেষে আয়োজিত সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। বেসিস সভাপতি শামীম আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইইউবির উপাচার্য প্রফেসর এম ওমর রহমান। যুক্তরাষ্ট্র থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন নাসার প্রধান বিজ্ঞানী এলেন রিনি স্টোফান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বেসিসের পরিচালক ও নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের আহ্বায়ক আরিফুল হাসান অপু।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আমরা দেশে আন্তর্জাতিকমানের উদ্যোগ তৈরিতে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি। ১০০০ উদ্ভাবনী প্রকল্প, কানেক্টিং স্টার্টআপস বাংলাদেশ, ইনোভেশন ফান্ড, ন্যাশনাল হ্যাকাথন, ন্যাশনাল অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট প্রতিযোগিতা, প্রোগ্রামিং কনটেস্টসহ নানা আয়োজন রয়েছে। বেসিসের আয়োজনে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের মাধ্যমে আমাদের তরুণরা মহাকাশ সম্পর্কিত বেশ কিছু ভালো প্রকল্প তৈরি করেছে যেগুলো এই প্রতিযোগিতার আন্তর্জাতিক পর্যায়েও ভালো করবে বলে প্রত্যাশা করি।

বেসিস সভাপতি শামীম আহসান বলেন, দেশে দ্বিতীয়বারের মতো আন্তর্জাতিক এই প্রতিযোগিতা আয়োজন করতে পেরে আমরা আনন্দিত। এবারের আয়োজনে বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি সমস্যা সমাধানে উল্লেখযোগ্য আইডিয়া বের হয়ে এসেছে। আমরা মনে করি সেদিন আর বেশি দুরে নয়, যেদিন বাংলাদেশের তরুণদের উদ্ভাবিত প্রযুক্তি নাসাতে সাড়া ফেলবে। এছাড়া নাসার মতো বড় বড় প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশিদের চাকরি ও অন্যান্য সংশ্লিষ্ঠতা বাড়বে। বাংলাদেশেই তৈরি হবে নাসার মতো প্রতিষ্ঠান।

Comments

comments



মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। Required fields are marked *

*

Scroll To Top