ঢাকা | শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮ |
২৮ °সে
|
বাংলা কনভার্টার

ব্যালেন্স ফুরিয়ে গেলে এখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইল রিচার্জ হবে বিকাশে

ব্যালেন্স ফুরিয়ে গেলে এখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইল রিচার্জ হবে বিকাশে
ব্যালেন্স ফুরিয়ে গেলে এখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইল রিচার্জ হবে বিকাশে

মোবাইলে ব্যালেন্স ফুরিয়ে গেলে যেন গ্রাহকের কথা বলা বা ইন্টারনেট ব্রাউজিং বন্ধ না হয়, সেজন্য বিকাশ চালু করলো অটো-রিচার্জ সুবিধা। ফলে এখন থেকে মোবাইল রিচার্জ করা আরও সহজ ও নিরবচ্ছিন্ন হ’ল গ্রাহকদের জন্য।

কোভিডকালীন সময়ে অফিসের কাজ থেকে শুরু করে অনলাইনে স্কুল, সামাজিক যোগাযোগ, বিনোদন, বাজার-সদাই, ইউটিলিটি বিল পরিশোধ ও টেলিমেডিসিন এর মাধ্যমে ডাক্তারের পরামর্শ - এরকম ছোট বড় অসংখ্য কাজে মোবাইল এবং মোবাইল ডাটা হয়ে উঠেছে অপরিহার্য। আর মোবাইলের নিরবচ্ছিন্ন ব্যবহার নিশ্চিত করতে জরুরী হয়ে পড়েছে ঘরে বসে মোবাইল রিচার্জের সুবিধা। গ্রাহকরা তাই বিকাশ ব্যবহার করে যেকোনো সময় দেশের যেকোনো স্থান থেকে অনায়াসে মোবাইল রিচার্জের জরুরী কাজটি সারছেন। এই সেবাটি আরও সহজ করতেই এলো বিকাশ অটো-রিচার্জ। উল্লেখ্য, বাংলালিংক, রবি অথবা এয়ারটেল প্রিপেইড নম্বর দিয়ে বিকাশ অ্যাকাউন্ট চালু করেছেন যে গ্রাহকরা তারাই এ মুহুর্তে সেবাটি পেতে পারেন।

এই সুবিধা পেতে হলে গ্রাহককে অটো-রিচার্জ এক্টিভেট করতে হবে। বিকাশ অ্যাপ থেকে অটো-রিচার্জ চালু করতে হলে হোমস্ক্রিনের মোবাইল রিচার্জ আইকন থেকে মোবাইল নম্বর সিলেক্ট করে ‘অটো-রিচার্জ সেটিংস’ এ ট্যাপ করতে হবে। পরবর্তী ধাপে অটো-রিচার্জের অ্যামাউন্ট ঠিক করে দিয়ে বিকাশ পিন দিলেই অটো-রিচার্জ চালু হয়ে যাবে। অথবা ইউএসএসডি কোড *২৪৭# ডায়াল করে মোবাইল রিচার্জ সিলেক্ট করার পর বাংলালিংক, রবি অথবা এয়ারটেল সিলেক্ট করতে হবে। পরবর্তী ধাপে অটো-রিচার্জ অপশন সিলেক্ট করে ‘এক্টিভেট অটো-রিচার্জ’ অপশন সিলেক্ট করতে হবে। এরপর অটো-রিচার্জের অ্যামাউন্ট ঠিক করে দিতে হবে। সবশেষে বিকাশ একাউন্টের পিন নম্বর দিলেই অটো-রিচার্জ সেবা চালু হয়ে যাবে।

অটো-রিচার্জ চালু হয়ে গেলে মোবাইলের ব্যালেন্স ১০ টাকা অথবা তার কম হলেই গ্রাহকের মোবাইল নম্বরে নির্ধারিত রিচার্জ অ্যামাউন্ট স্বয়ংক্রিয়ভাবে পৌঁছে যাবে। যেকোনো সময় গ্রাহক তার প্রয়োজন অনুযায়ী অ্যামাউন্টটি পরিবর্তন করতে পারবেন।

গ্রাহক শুধুমাত্র নিজের নম্বরেই ২০ টাকা থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত অটো-রিচার্জ করতে পারবেন। গ্রাহকের মোবাইলের ব্যালেন্স ১০ টাকা কিংবা তার কম হওয়া মাত্র অটো-রিচার্জ সুবিধা চালু হয়ে যাবে। এক্ষেত্রে বিকাশ অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত ব্যালেন্স থাকতে হবে। গ্রাহক দিনে সর্বোচ্চ ৩ বার অটো রিচার্জ সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। যদি নির্ধারিত অটো-রিচার্জ পরিমাণের সাথে সংশ্লিষ্ট কোনো রিচার্জ প্যাকেজ থাকে, তবে সেটিও মোবাইল অপারেটর দ্বারা সক্রিয় হতে পারে।

বিকাশ-এর মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইল ব্যালেন্স রিচার্জ করার বিস্তারিত জানতে চাইলে ভিজিট করতে হবে https://www.bkash.com/auto-recharge ওয়েবসাইটে।

উল্লেখ্য, ২৪ ঘন্টাই দেশের যেকোনো স্থান থেকে যেকোনো অপারেটরের নম্বরে রিচার্জ-এর সুযোগ থাকায় বিকাশ মোবাইল রিচার্জ সেবাটি গ্রাহকদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এই মুহূর্তে দেশের মোট মোবাইল রিচার্জের প্রায় ২৫ ভাগই হয়ে থাকে বিকাশের মাধ্যমে। সারাদেশের ২ লাখ ৪০ হাজার এজেন্ট পয়েন্ট থেকে ক্যাশ ইন করার পাশাপাশি ২৯টি ব্যাংক এবং ভিসা ও মাস্টারকার্ড থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্টে অ্যাড মানি করে সহজেই কোথাও না গিয়ে, ঘরে বসেই নিরবচ্ছিন্ন মোবাইল রিচার্জ সেবা উপভোগ করতে পারছেন গ্রাহকরা।

স্বয়ংক্রিয়মোবাইল রিচার্জ,বিকাশ
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়