ঢাকা | মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ |
২৯ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

‘এরিনা অব ভেলোর’ এর অংশীদার ইনফিনিক্স

‘এরিনা অব ভেলোর’ এর অংশীদার ইনফিনিক্স
‘এরিনা অব ভেলোর’ এর অংশীদার ইনফিনিক্স

বাংলাদেশের স্মার্টফোনের বাজার মাতাচ্ছে প্রিমিয়াম স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্সের হট সিরিজের সর্বাধুনিক সংস্করণ ‘হট ১১এস’। আকর্ষণীয় এই ডিভাইসটিকে ইতোমধ্যে দেশের শীর্ষ টেক রিভিউয়ার ও গেমিংভক্তরা ‘সাশ্রয়ী মূল্যে সেরা গেমিং স্মার্টফোন’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। যারা মোবাইলে দ্রুতগতির এবং ভারী ভারী গেম খেলে অভ্যস্ত, তাদের জন্য এই স্মার্টফোনে রয়েছে শক্তিশালী হেলিও জি৮৮ ডুয়েল-চিপ অক্টা-কোর প্রসেসর। ডিভাইসটিতে আরো আছে, ৯০ হার্টজ এফএইচডি+ আল্ট্রা স্মুথ ডিসপ্লে, ট্রিপল এআই নাইটস্ক্রেপ ক্যামেরা এবং ৫০০০এমএএইচ এর দীর্ঘস্থায়ী ও নির্ভরযোগ্য ব্যাটারি লাইফ।

ইনফিনিক্স বাংলাদেশ জনপ্রিয় মোবাইল ই-স্পোর্টস প্রতিযোগিতা ‘এরিনা অব ভেলোর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ’ এর সঙ্গে অংশীদারিত্ব গড়েছে। এই প্রতিযোগিতা ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনায় অনলাইন এবং অফলাইন দু’ভাবেই অনুষ্ঠিত হবে এবং এটির লিভারেজিং পার্টনার ইনফিনিক্স। বিগত বছরের ২৫ ডিসেম্বর প্রতিযোগিতাটি শুরু হয়, যেখানে ঢাকায় নিবন্ধিত দল ছিল ১৯০টিরও বেশি এবং বাকি শহরগুলো থেকে অনলাইনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা দল ছিল ৩২টি করে। সর্ববৃহৎ এই অফলাইন গেমিং ইভেন্টে নিবন্ধিত হয়ে প্রতিযোগীরা অন্যান্য আকর্ষণীয় পুরস্কারের সঙ্গে জিতে নিয়েছেন ইনফিনিক্স হট ১১এস ডিভাইসও। আগামী ২১ জানুয়ারি টুর্নামেন্টের বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ ঢাকা সিটি ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে যমুনা ফিউচার পার্কে। ইনফিনিক্স এক্স-ফ্যান’রা টুর্নামেন্ট পরিদর্শন করতে পারবেন ও সেরা বাজেট গেমিং স্মার্টফোন হট ১১এস এর অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন । এছাড়া ভেন্যু ক্যাম্পেইনে অংশ নিয়ে তারা আরো জিতে নিতে পারবেন বিভিন্ন ফ্রি গিফটও।

ইনফিনিক্স হট ১১এস একইসঙ্গে সহজে ব্যবহারযোগ্য ও গেমিং এর জন্য উপযুক্ত। ডুয়েল সিমের এই বাজেট গেমিং স্মার্টফোনে রয়েছে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সম্বলিত ৬.৭৮” ইঞ্চির ফুল এইচডি ডিসপ্লে এবং ১৮০হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট। এছাড়া, মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৮ ডুয়েল-চিপ প্রসেসরকে বিবেচনা করা হয়ে থাকে উচ্চ-ক্ষমতাসম্পন্ন চিপসেট হিসেবে, যেটি দুটি আর্ম কর্টেক্স-এ৭৫ সিপিইউ এর মাধ্যমে মোবাইলের সক্ষমতা বাড়ায় সর্বোচ্চ ২ গিগাহার্জ পর্যন্ত এবং দ্রুত অ্যাপ লোডিং ও ক্যামেরায় ছবি তোলার ক্ষেত্রে এটিকে আরও ‘রেসপন্সিভ’ অর্থাৎ দ্রুত কর্মক্ষম করে তোলে।

এই স্মার্টফোনের ৯০হার্টজ আল্ট্রা স্মুথ ডিসপ্লে টেকপ্রেমী স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য যেন বাড়তি পাওয়া। কারণ বৃহৎ আকারের ডিসপ্লের স্পর্শে কমনীয় অনুভূতি পাওয়া যায় ও পাশাপাশি কোনো ‘ল্যাগিং’ অর্থাৎ ‘ত্রুটি’ অথবা ফ্রেম ড্রপ পরিলক্ষিত হয় না। ‘হট ১১এস’ এ আরও রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল এআই নাইটস্কেপ ক্যামেরা। প্রাইমারি ক্যামেরায় রয়েছে এফ ১.৬ ওয়াইড-অ্যাপারচার সমৃদ্ধ ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল লেন্স সক্ষমতায় ছবি তোলার ব্যবস্থা। এর ফলে ব্যবহারকারীরা কম আলোতেও দিন অথবা রাতে যে কোনো সময়ে অসাধারণ সব ছবি ক্যামেরায় বন্দি করতে পারেন। ‘হট ১১এস’ এ আরো রয়েছে টাইপ-সি চার্জার, যেটি ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জ সক্ষমতাযুক্ত। অত্যাধুনিক এই ডিভাইসটির ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬ জিবি র‌্যামের দুটি ভার্সন আছে এবং উভয় ভার্সনেই রয়েছে ১২৮ জিবি রম।

বাজার আসার পর হতে গেমিংভক্তদের কাছে সাড়া ফেলতে শুরু করে ‘ইনফিনিক্স হট ১১এস’ এবং এখন পর্যন্ত এই ডিভাইসের চাহিদা বেড়েই চলেছে। সর্বাধুনিক প্রযুক্তি, কাঙিক্ষত ফিচার ও সাশ্রয়ী দামের দৃষ্টিনন্দন এই ডিভাইসটি গ্রাহকদের সেরা স্মার্টফোন অভিজ্ঞতা দিয়ে যাচ্ছে। উচ্চ-পারফরম্যান্স ও প্রযুক্তির মিশেলে ভারসাম্যপূর্ণ এই মোবাইল সেটটি ‘গেম অন’ স্লোগানে আলোচনার ঝড় তুলেছে ইনফিনিক্স ভক্তদের মধ্যে ও বাংলাদেশের স্মার্টফোন বাজারে।

এরিনা অব ভেলোর,ইনফিনিক্স
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়