ঢাকা | বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮ |
২৮ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্সের আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় মার্কেটিং বিতর্ক উৎসব আয়োজন

ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্সের আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় মার্কেটিং বিতর্ক উৎসব আয়োজন
ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্সের আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় মার্কেটিং বিতর্ক উৎসব আয়োজন

দেশে প্রথমবারের মত 'ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স বাংলাদেশ’ আয়োজন করেছে ইন্টার-ইউনিভার্সিটি মার্কেটিং ডিবেট ফেস্ট-পয়েন্ট কাউন্টার-পয়েন্ট। এই বিতর্কের ফাইনাল বিতর্ক আয়োজিত হয় গত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ রাত ৯ টায়। ফাইনাল বিতর্কে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের এসএমসি লেভি স্কোয়াড টিমকে হারিয়ে বিজয়ী হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম বায! গ্র্যান্ড ফিনালে বিতর্কে বিষয় ছিল "মুনাফা বাড়ানোর পরিবর্তে মার্কেটিং এর উদ্দেশ্য হওয়া উচিত সমাজের সেবা করা।"

ফাইনাল বিতর্কে বিচারক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এবং প্রফেসর মীজানুর রহমান, মার্কেটিং বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, প্রফেসর সৈয়দ ফারহাত আনোয়ার, আইবিএ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং সৈয়দ আলমগীর, ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, আকিজ ভেঞ্চার লিমিটেড। বিতর্কটি মডারেট করেন জনপ্রিয় ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স গালীব বিন মুহাম্মদ, হেড অফ মার্কেটিং, আরলা ফুডস! অনলাইনে অনুষ্ঠিত এই বিতর্ক উৎসবের টাইটেল স্পন্সর এসএমসি প্লাস ইলেট্রোলাইট ড্রিংক এবং পাওয়ার্ড বাই স্পন্সর ইস্পাহানি ও ওয়ালটন।

বিতর্ক শেষে নিজেদের বক্তব্যে এই বিতর্ক আয়োজনের প্রয়োজনীয়তা এবং এর প্রভাব নিয়ে নানামুখী আলোচনা করেন তিন প্রাজ্ঞ বিচারক। ভবিষ্যতে আরও মার্কেটিং বিতর্ক আয়োজনের উপরে জোর দেন তারা।

কর্পোরেট মার্কেটিং পেশাজীবী এবং তরুণ উদ্যমী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যবধান দূর করার লক্ষ্যে ব্র্যান্ড প্র্যাকটিশনার্স বাংলাদেশ জুলাই ২০২১-এ একটি ইন্টার-ইউনিভার্সিটি মার্কেটিং বিতর্ক উৎসব শুরু করার উদ্যোগ নেয়। গত ১৭ জুলাই থেকে শুরু হওয়া যাওয়া এই বিতর্ক উৎসবে মার্কেটিং ক্ষেত্রের সমসাময়িক বিষয়ের উপর ৬৩টি বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। ফেসবুক প্লাটফর্মে আয়োজিত এই উৎসবের মডারেটর এবং বিচারক হিসাবে যুক্ত ছিলেন দেশের সফল এবং প্রতিশ্রুতিশীল ৯০ জন ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স। পাশাপাশি অংশগ্রহণকারী দলগুলোকে তথ্য-উপাত্ত ও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সহযোগিতার জন্য মেন্টর হিসাবেও যুক্ত ছিলেন আরো ৪০ জন মার্কেটিং পেশাজীবী।

এই বিতর্ক উৎসব নিয়ে এসএমসি এন্টারপ্রাইজের জেনারেল ম্যানেজার (মার্কেটিং) খন্দকার শামীম রহমান বলেন, ‘’ একদিন ছাত্র-ছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের গন্ডি পেরিয়ে পেশাদার হিসাবে জব মার্কেটে প্রবেশ করবে বা নিজেদের উদ্যোগ শুরু করবে। দুই ক্ষেত্রেই মার্কেটিং বিষয়ক সম্যক জ্ঞান তাদেরকে সফলতার পথে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে। আমরা আশাকরি, এই উদ্যোগের ফলে তারা বৈশ্বিক এবং দেশীয় মার্কেটিং ট্রেন্ড নিয়ে আরও বেশী জানার সুযোগ পাবে। আমাদের তরুণদের নিয়ে এই আয়োজনের সাথে এসএমসি প্লাস ইলেট্রোলাইট ড্রিংক থাকতে পেরে খুবই ভাল লাগছে।“

দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই প্রতিযোগিতায় বিনামূল্যে অংশগ্রহণ করার জন্যে ১২৭টি টিম থেকে ৬৪টি বাছাই করা হয়েছিল। এই আয়োজন প্রসঙ্গে ওয়ালটনের এর চিফ মার্কেটিং অফিসার ফিরোজ আলম ক্যারিয়ারের শুরুতেই মার্কেটিং বিষয়ে জানার উপর গুরুত্ব দিতে বলেছেন। তিনি বলেন “দেশে আমাদের আরও অনেক সৃষ্টিশীল এবং প্রতিশ্রুতিশীল মার্কেটিয়ার দরকার। ব্যবসায় শিক্ষার পাশাপাশি ইঞ্জিনিয়ার, ডাক্তার এবং মানবিক বিষয়ে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝেও মার্কেটিং বিষয়ক সম্যক জ্ঞান এবং চর্চা বিনিময় এই বিতর্কের মধ্য দিয়েও আরো বেশি আকারে ছড়িয়ে পড়বে বলে আমি বিশ্বাস করি।“

আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় মার্কেটিং বিতর্ক উৎসব-২০২১ নিয়ে ‘ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স বাংলাদেশ’এর প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মির্জা মুহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, ‘ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স বাংলাদেশ’ প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই মার্কেটিং এবং ব্র্যান্ড নিয়ে কাজ করে আসছে। এতদিন পেশাজীবীদের জন্যে নানান ধরনের আয়োজন থাকলেও এই প্রথম ছাত্র-ছাত্রীদের জন্যে কিছু করতে পারছি আমরা। পণ্য, ভোক্তা, মার্কেট ডাইনামিক্স, ট্রেন্ড ইত্যাদিসহ দরকারী বিষয়গুলোতে ছাত্রছাত্রীরা আগ্রহী হয়ে উঠলে সেটা তাদের ক্যারিয়ারে দারুণ কাজে দেবে। ছাত্রাবস্থায় মার্কেটিং এর নানান প্রায়োগিক বিষয়ে ধারণার পাশাপাশি সফল মার্কেটিং পেশাজীবীদের সাথে ছাত্র-ছাত্রীদের একটা সেতুবন্ধন হিসাবেও এই প্রোগ্রাম কাজ করবে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।‘’

আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় মার্কেটিং বিতর্ক উৎসবের স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার : প্রথম আলো ডট কম, টিভি পার্টনার: দীপ্ত টিভি, স্ন্যাকস পার্টনার: বেকম্যান’স, ড্রিংক পার্টনার: এসএমসি মিনারেল ওয়াটার, হাইজেনিক পার্টনার: এসএমসি জার্মকিল, উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট পার্টনার: জয়া স্যানিটারি ন্যাপকিন, ব্যাংক পার্টনার: সোস্যাল ইসলামি ব্যাংক, ডেইরি পার্টনার: ড্যানিশ, স্টেশনারি পার্টনার: গুড লাক, এমএফএস পার্টনার: নগদ, স্কিল পার্টনার: ক্রিয়েটিভ আইটি ইনস্টিটিউট, কমিউনিটি পার্টনার: মার্কেটার’স ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ এবং মার্কটেল কনসাল্টিং গ্রুপ, ইয়ুথ এনগেজমেন্ট পার্টনার: তরুণ ডিজিটাল, নলেজ পার্টনার: রকমারি, ডিজিটাল পার্টনার: অ্যাডফিনিক্স, মিডিয়া পার্টনার: এডস অফ বাংলাদেশ, লাইভ পার্টনার: ভাইসব ডিজিটাল, ক্রিয়েটিভ পার্টনার: বাযুকা কমিউনিকেশন্স, ইভেন্ট পার্টনার: বিটিএল হাউস।

এই বিতর্কের মোট পুরস্কার ১ লাখ ৫ হাজার টাকা। “ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স বাংলাদেশ”-এর ফেসবুক পেজ https://www.facebook.com/BrandPractitionersBD- থেকে বিতর্কগুলোর লাইভ ভিডিও দেখা যাবে। সামনের বছরেও আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় মার্কেটিং বিতর্ক উৎসব আর বড় পরিসরে আয়োজিত হবে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স বাংলাদেশ এর কর্ণধারেরা।

মার্কেটিং,ব্র্যান্ড প্র্যাক্টিসনার্স
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়