ঢাকা | সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ |
৩০ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

আরও ১১৭ কর্মী দক্ষিণ কোরিয়ার শ্রম বাজারে প্রবেশ করলো

আরও ১১৭ কর্মী দক্ষিণ কোরিয়ার শ্রম বাজারে প্রবেশ করলো
৯ মে ২০২২-এ ঢাকা ছেড়ে যাওয়া ১১৭ বাংলাদেশি শ্রমিকদের

অদ্যাবধি ২৩৭১৬ জন ইপিএস কর্মী দক্ষিণ কোরিয়ার শ্রম বাজারে প্রবেশ করেছেন, অদ্য আরও ১১৭ জন কর্মী দক্ষিণ কোরিয়ার শ্রম বাজারে প্রবেশ করলো

বাংলাদেশ সরকার ও দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের মধ্যে সম্পাদিত সমঝোতাচুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল)-এর মাধ্যমে ২০০৮ সন থেকে এমপ্লয়মেন্ট পারমিট সিস্টেম (ইপিএস) কর্মসূচীর আওতায় জি টু জি পদ্ধতিতে স্বল্প ব্যয়ে উচ্চ বেতনে শিল্পখাতে দক্ষিণ কোরিয়ায় কর্মী গমন অব্যাহত আছে।

সৃষ্ট বৈশ্বিক কোভিড অতিমারির কারণে দক্ষিণ কোরিয়া সরকার কর্তৃক বাংলাদেশি নাগরিকদের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় গত এপ্রিল ২০২০ থেকে নভেম্বর ২০২১ পর্যন্ত ইপিএস কর্মীদের কোরিয়ায় গমন বন্ধ ছিল।

বাংলাদেশে কোভিড পরিস্থতির উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নতির প্রেক্ষিতে নির্ধারিত কোভিড বিধি অনুসরণ করে গত ৯ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখে ৪৫ জন কর্মী দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ায় পুনরায় গমনের সূচনা হয়।

সেমতে ১৭তম ব্যাচে অদ্য কোরিয়ান এয়ার কোম্পানির বিশেষ ফ্লাইটে আরও ১১৭ জনসহ মোট ১৮২৮ জন বাংলাদেশি ইপিএস কর্মী দক্ষিণ কোরিয়ায় গমন করেছেন (ডিসেম্বর-২০২১ এ ১১১ জন, জানুয়ারি-২০২২ এ ১৩০ জন, ফেব্রুয়ারি-এ ২০৮ জন, মার্চ-এ ২১৮ এপ্রিল-এ ৬৫৭ জন এবং মে-এ ৫০৪ জন)। বাংলাদেশি ইপিএস কর্মীদের (ভ্যাকসিন ২ ডোজ সম্পন্ন) দক্ষিণ কোরিয়া গমনের পূর্বে বাংলাদেশে নির্ধারিত সঙ্গনিরোধ এবং দক্ষিণ কোরিয়াতে নির্ধারিত সঙ্গনিরোধ সম্পন্ন করতে হয়েছে।

ইপিএস-এর আওতায় দক্ষিণ কোরিয়া সরকার ১৬টি দেশ থেকে প্রতিযোগিতার ভিত্তিতে কর্মী নিয়োগ করে থাকেন। সংশ্লিষ্ট ১৬ দেশের সেন্ডিং এজেন্সির কার্যক্রমের মূল্যায়ন ও দক্ষিণ কোরিয়ায় অবস্থানরত কর্মীদের অবৈধ অবস্থান রোধকল্পে গৃহীত পদক্ষেপের আলোকে দক্ষিণ কোরিয়া সরকার বার্ষিক কোটা নির্ধারণ করে থাকেন। কোরিয়াগামী কর্মীর মূল্যায়নের ভিত্তিতে কোরিয়া সরকার বার্ষিক কর্মসংস্থান কোটা পূরণ করে থাকেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মোতাবেক দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের নিকট থেকে রেমিট্যান্স প্রবাহ সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে যা ২০১৬-১৭ অর্থবছরের ৮০.৬৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে ২০২০-২১ অর্থবছরে ২০৯.১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে।

বাংলাদেশি শ্রমিক,দক্ষিণ কোরিয়া,বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল)
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়