ঢাকা | সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ |
৩০ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

পর্দা নামলো আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ সিজন ১- এর

পর্দা নামলো আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ সিজন ১- এর
পর্দা নামলো আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ সিজন ১- এর

পর্দা নামলো দেশের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতা আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ সিজন ১- এর। শুক্রবার ২৪ ফেব্রুয়ারি বিকেলে রাজধানীর আইইউবিএটি অডিটোরিয়ামে এই কার্যক্রমের গালা রাউন্ড ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ বিজনেস এ্যান্ড টেকনোলজি-এর উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ মোঃ ফায়েজ খান।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেখানো পথ ধরে তাঁর সুযোগ্য কন্যা দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরিত করছেন। বাংলাদেশের তরুণদেরকে যাতে বিশ্বমানের আইটি জ্ঞানসমৃদ্ধ করা যায় সে ব্যাপারে আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ অনেক বেশি ভূমিকা রাখবে বলে আমি আশাবাদী। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন দেশের আইসিটি, শিক্ষা ও গবেষণা সেক্টরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। তাঁদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন- অধ্যাপক ডঃ আলী নূর (প্রো-ভিসি, বিউবিটি), ডঃ নজরুল ইসলাম (উপ-উপাচার্য, নর্দার্ন ইউনিভার্সিটি), নাইম হোসেন (প্রেসিডেন্ট, নাগরিক ঢাকা), আনোয়ার সাদাৎ কবির (নির্বাহী পরিচালক, ব্রাইট স্কিলস), নাজমুল ইসলাম (সিইও, এডুহাইভ), ইশতিয়াক সারওয়ার (এমডি, আমারপে), বিপ্লব ঘোষ রাহুল (সিইও, ই-কুরিয়ার লিঃ)

ক্রিয়েটিভ আইটি ইন্সটিটিউট ও হুইসেল এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় স্কুল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা মোট ছয়টি ক্যাটাগরিতে অংশ নিয়েছেন, যাতে সর্বমোট পঞ্চাশ লক্ষ টাকা সমমূল্যের প্রাইজমানি প্রদান করা হয়। তারুণ্যদীপ্ত এই প্রতিযোগিতাটিতে নলেজ পার্টনার হিসেবে রয়েছে ই-লার্নিং প্রতিষ্ঠান ব্রাইট স্কিলস।

আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ-এর গভর্নিং বডির সদস্য মনির হোসেন বলেন, প্রি-স্কুল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় (পয়ত্রিশ বছর বয়স) পর্যন্ত আইসিটি শিক্ষাকে জনপ্রিয় করে তুলতে আমাদের এই আয়োজন। গভর্নিং বডির আরেক সদস্য মোহাম্মদ শাহরিয়ার খান বলেন, চতুর্থ শিল্প-বিপ্লবে আমাদের শিক্ষার্থীদের সময়োপযোগী করার জন্য এই প্রতিযোগিতাটি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে আমাদের বিশ্বাস। এছাড়াও, এই প্রতিযোগিতায় দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা যাতে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অংশগ্রহণ করতে পারে সেই লক্ষ্যে সারা দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছিলো আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ-এর বুথ। প্রতিযোগিতাটিতে লক্ষাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছে বলে জানান গভর্নিং বডির আরেক সদস্য আশরাফুল ইনসান ইভান।

জানা যায়, আইসিটি খাতে বিশ্বমানের জ্ঞানার্জনের মাধ্যমে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা যাতে এগিয়ে থাকে সেই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখেই আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ এর সিজন-১ আয়োজিত হয়েছে বলে জানান অনুষ্ঠানে উপস্থিত আয়োজকবৃন্দ।

আইসিটি অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ সিজন ১
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
Transcend
Vention