ঢাকা | রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ |
৩৩ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

বিশ্বব্যাপী ই-কমার্স ফ্যাশন ফটো এডিটিংয়ে আপেল মাহমুদ খানের ১৫ বছর

বিশ্বব্যাপী ই-কমার্স ফ্যাশন ফটো এডিটিংয়ে আপেল মাহমুদ খানের ১৫ বছর
বিশ্বব্যাপী ই-কমার্স ফ্যাশনের বছরে ৭ মিলিয়ন ফটো এবং ভিডিও সম্পাদনা করা বিজেডএম গ্রাফিক্সের প্রতিষ্ঠাতা আপেল মাহমুদ খান

তরুণ প্রজন্মের কাছে স্বাধীন পেশা হিসবে বেশ জনপ্রিয় আউটসোর্সিং। আউটসোর্সিংয়ের বিশাল সমুদ্রে ইমেজ ইডিটিং বা ছবি সম্পাদনা ছোট্ট একটি দ্বিপ মাত্র। তবে আউটসোর্সিংয়ের অন্যান্য ক্ষেত্র থেকে ইমেজ এডিটিং তুলনামলূকভাবে সহজ হওয়ায় তরুণদের মাজে দিনদিন এর প্রতি আগ্রহ বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এই সম্ভাবনাকে মাথায় রেখেই ১৫ বছর আগে ফটো এডিটিংয়ের কাজ শুরু করেন আপেল মাহমুদ খান। এরপর ২০১৫ সালে তিনি এটার প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে বিজেডএম গ্রাফিক্স নামের ইমেজ ইডিটিং ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন। লক্ষ্য দেশের তরুণ সমাজকে তথ্যপ্রযুক্তি পেশায় সংযুক্ত করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন।

শুরুতে মাত্র ৪ জন গ্রাফিক্স ডিজাইনার নিয়ে শুরু করে এখন তার প্রতিষ্ঠিত বিজেডএম গ্রাফিক্স লিমিটেডের ২৫০ জনের বেশি ইমেজ ও ভিডিও এডিটর কাজ করছেন। বাংলাদেশি স্টার্টআপ থেকে শুরু করে বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম সেরা ফটো এবং ভিডিও এডিটিং কোম্পানি বিজেডএম গ্রাফিক্স লিমিটেড দক্ষতা অর্জন করেছে বিশ্বের বৃহৎ কোম্পানিগুলোর সাথে নিজেকে এক কাতারে সামিল করেছে। বিশ্বব্যাপী ই-কমার্স ফ্যাশনের বছরে ৭ মিলিয়ন ফটো এবং ভিডিও সম্পাদনা করা বিজেডএম গ্রাফিক্সের প্রতিষ্ঠাতা আপেল মাহমুদ খান জানিয়েছেন তার স্বপ্নের কথা।

আমার একটি খুব ঐতিহ্যগত শিল্পের পটভূমি ছিল, কিন্তু এমনকি কখনই জানতাম না যে রিটাচিং একটি পেশা ছিল যতক্ষণ না আমি ভারতের একজন অত্যন্ত জনপ্রিয় ফটোগ্রাফারের সাথে কাজ করতে করতে আগ্রহী হয়ে উঠি। শুরুতে আমরা ডেনমার্কের একটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়ে কাজ শুরু করি এবং বিশ্বের নামি দামি ব্রান্ডের ফটো ও ভিডিও সম্পাদনার কাজ করছি। বর্তমানে বিজেডএম গ্রাফিক্স একটি সম্পূর্ণ ভিজ্যুয়াল কন্টেন্ট এডিটিং এবং রিটাচিং স্টুডিও যা ই-কমার্স, প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফার, মডেল ফটোগ্রাফার, ফটোগ্রাফি এজেন্সি, ব্র্যান্ড, এফএমসিজি প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফি কোম্পানি এবং আরও অনেক কিছুতে আমাদের সেবা প্রদান করে থাকি।

আপেল মাহমুদ খান বলেন, আমরা সব ধরনের ব্যবসার জন্য বিশেষজ্ঞ ভিজ্যুয়াল কনটেন্ট এডিটিং সেবা দিতে পেরে গর্বিত। আমাদের পেশাদারদের দল অত্যন্ত দক্ষ এবং দক্ষতার একাধিক ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সার্টিফিকেশন ধারণ করে, আমাদের ক্লায়েন্টরা সর্বোত্তম সম্ভাব্য পরিষেবা এবং ফলাফলগুলি পান তা নিশ্চিত করে। ফটো এডিটিং এর ব্যাপারে আপেল মাহমুদ খান বলেন, গ্রাফিক্স ডিজাইন আউটসোর্সিং এর বড় একটি খাত। বর্তমানে ই-কমার্স খাত দাড়িয়ে আছে ভিজুয়ালের উপর। তাদের প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রয়োজন যুতসই ছবি। সেই হিসেবে এই খাতে আমাদের যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে তবে বাংলাদেশ দক্ষ লোকবলের অভাবে ফিলিপাইন,ভিয়েতনাম ও ইন্দোনেশিয়া থেকে আমরা অনেকটা পিছিয়ে আছি।

আপেল মাহমুদ বলেন, একজন ক্রেতাকে পুনরায় ফেরত আনার ব্যাপারে ইমেজ এডিটিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। দিন শেষে একজন ক্রেতা কিন্তু ছবির পণ্যটির সাথে বাস্তব পণ্যের মিল দেখে।সে ক্ষেত্রে ইমেজ এডিটিং বড় একটি ভূমিকা পালন কর। আউটসোর্সিং এর দুনিয়ায় বাংলাদেশের একটি সুনাম রয়েছে আর তা হল আমরা সবসময়ই কাজের গুনগত মান ধরে রাখতে সক্ষম। দক্ষতার একাধিক ক্ষেত্রে কাজ করার অভিজ্ঞতার সাথে, আমরা বিস্তৃত পরিসরের পরিষেবা প্রদানের জন্য আমাদের দক্ষতাকে সম্মানিত করেছি। আমাদের বিশেষজ্ঞ পরিষেবাগুলির মধ্যে মৌলিক সংস্কার থেকে শুরু করে আরও জটিল কাজ যেমন ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভাল, শ্যাডো মাস্কিং, কালার কারেকশন, ইমেজ মাস্কিং, থ্রিডি, ভিজুয়াল সার্চ, ভিডিও এডিটিং এবং ক্লায়েন্টের চাহিদা অনুযায়ী ডিজাইন করা সবকিছুই অন্তর্ভুক্ত। আমরা আমাদের ক্লায়েন্টের প্রত্যাশা পূরণ করে এবং অতিক্রম করে এমন উচ্চ-মানের ফলাফল সরবরাহ করতে সর্বশেষ প্রযুক্তি এবং কৌশলগুলি ব্যবহার করি।

বিজেডএম গ্রাফিক্স লিমিটেডে আমরা বুঝি যে প্রতিটি ক্লায়েন্টের চাহিদা অনন্য এবং আমরা সেই চাহিদাগুলি পূরণ করে এমন কাস্টমাইজড সমাধান প্রদানের জন্য নিবেদিত। আমরা আমাদের ক্লায়েন্টদের সাথে তাদের লক্ষ্য এবং দৃষ্টিভঙ্গি বোঝার জন্য ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করি, নিশ্চিত করে যে আমরা তাদের প্রত্যাশার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ একটি সমাপ্ত পণ্য সরবরাহ করি। আমাদের পোর্টফোলিও অত্যাশ্চর্য ভিজ্যুয়াল সমাধান প্রদান করার ক্ষমতা প্রদর্শন করে যা আমাদের ক্লায়েন্টের বার্তা যোগাযোগ করে এবং তাদের দর্শকদের সাথে অনুরণিত হয়। বাংলাদেশের ইমেজ এডিটিং এর সম্ভাবনার কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমেরিকা বা ইউরোপের সাথে টাইম জোনের তফাৎ আমাদের জন্য একটি আশীর্বাদ।তাছাড়া অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে একটি নতুন প্রতিষ্ঠান তৈরি ও উৎপাদন খরচ এখনো অনেক কম। সেজন্য বিদেশি ক্লায়েন্টের নজরও কিন্তু বাংলাদেশের উপর আছে।

৭ মিলিয়ন ফটো,বিজেডএম গ্রাফিক্স,আপেল মাহমুদ খান
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
Transcend