ঢাকা | সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯ |
৩০ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

পর্দা নামলো বিডিনগের চতুর্দশ সম্মেলন

পর্দা নামলো বিডিনগের চতুর্দশ সম্মেলন
পর্দা নামলো বিডিনগের চতুর্দশ সম্মেলন

গত ০১ জুলাই ২০২২ তারিখ রোজ শুক্রবার লং বীচ হোটেল, কক্সবাজারে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) ও বিডিনগের যৌথ আয়োজনে চতুর্দশ বিডিনগ সম্মেলন ও প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে।

সম্মেলনে গত ২৭-৩০ জুন ২০২২ তারিখ পর্যন্ত ৪ দিন টেকনিক্যাল কর্মশালা এবং ০১ জুলাই সারাদিন ব্যাপি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠানের প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্যাম সুন্দর সিকদার, চেয়ারম্যান, বিটিআরসি।

তিনি তার বক্তব্যের প্রথমেই সকল আইসপি সদস্যদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রশিক্ষণ আমার ভাল লাগে। টেনিং প্রোগ্রামের মাধ্যমে একে অপরের সাথে তাদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করে।

তিনি বলেন আপনারা যখন ট্রেনিং প্রোগ্রাম করবেন বিটিআরসিকে পাশে রাখবেন। যৌথ ভাবে প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজনে আমাদের নিজেদেরকেও আরো সুসংহত করবে। আইএসপিএবি সভাপতির দাবির প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, আমরা প্রত্যেক বিভাগ বা জেলায় ট্রেনিং প্রোগ্রাম আয়োজনে পার্টনার হিসেবে থাকব এবং আয়োজনে সহযোগীতা করব। আইটিইএস নিয়ে যে সব দাবি উল্লেখ করেছেন আমরা এই যুক্তি সংগত দাবির প্রতি একমত। আইটিইএস দাবি বাস্তবায়নের জন্য আমরা কাজ করব।

মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে আলোচনা করে ডিও লেটার এনবিআর চেয়ারম্যান বরাবর প্রেরণ করা হয়েছে। আমরা যথাযথ চ্যানেলে এনবিআরের সাথে আলোচনা করব। তিনি এ বিষয়ে সবাইকে ধৈর্য্য ধরার আহবান জানান ।

সম্মেলনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠানের বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার মো: মুহিউদ্দিন আহমেদ, কমিশনার, বিটিআরসি, তিনি তার বক্তব্যে সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন সম্মেলনের সাথে বিটিআরসিকে সম্পৃক্ত করায় আমরা গর্বিত। ট্রেনিং ও সেমিনারের মাধ্যমে জ্ঞান চর্চা একটি গুরুত্বপূর্ন বিষয়। এই ট্রেুনিং এর মাধ্যমে যে সকল সুপারিশ আসছে তা বিটিআরসিকে আরো সম্পৃক্ত করেছে। IPv4 থেকে IPv6 এ যাওয়ার জন্য কমিশন অনেক আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। IPv6 দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য বিটিআরসি কাজ করছে।

আইএসপিএবি সভাপতি ইমদাদুল হক বলেন, প্রথম থেকে চতুর্দশ সম্মেলন পর্যন্ত আইএসপিএবি ও বিডিনগ যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছে। গত দুই বছর করোণাকালীন সময়ে আমরা কোন ট্রেনিং করতে পারি নাই। আমরা আশা করি এই প্রশিক্ষণ এর মাধ্যমে দক্ষ প্রকৌশলী তৈরী হবে এবং নেটওয়ার্ক নিরাপত্তায় ভূমিকা রাখবে।

তাছাড়া অয়োজনের সাথে সম্পৃক্ত সকল সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে উপস্থিত প্রধান অতিথির নিকট দাবি উত্তোলন করে বলেন, IPv6 Deployment এর হার খুবই নগণ্য। আমরা চ্ষ্টো করছি, কিভাবে IPv6 Deployment করা যায় আমরা যে রাউটার নিয়ে কাজ করি তার প্রায় ৯০ ভাগ রাউটার ওয়াইফাই সার্পোট করেনা, রাউটারগুলির আমদানী অনুমোদনের সময় IPv6 সার্পোট করে সে সকল রাউটার অনুমোদনের জন্য বিটিআরসিকে অনুরোধ করছি। তিনি বলেন ,সারা বাংলাদেশে আমাদের ২০০০ মেম্বার রয়েছে। বেশির ভাগ মেম্বারই ঢাকার বাহিরে অবস্থিত।

বিটিআরসি যদি প্রত্যেক বিভাগ বা জেলা শহরে সরকারী ভাবে ভেনুর ব্যবস্থা করে দেয় তাহলে প্রশিক্ষণ পরিচালনার মাধ্যমে আমরা দ্রুত IPv6 Deployment করতে পারব বলে আশা করছি। তিনি আরো বলেন ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে আমাদের ইন্টারনেট শিল্পকে আইটিইএস এর আওতায় আনা হয়নি।মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্তে অনুষ্ঠিত গত ডিজিটাল টাক্সফোর্স এর ৩য় সভায় আমার উত্থাপিত ইন্টারনেট সেক্টরকে আইটিইএস এর অর্ন্তরভূক্ত করার প্রস্তাবটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সম্মতি প্রদান করা সত্তেও বাজেটে প্রতিফলিত হয়নি।

আমরা আশা করি, মাননীয় প্রধান অতিথি এ বিষয়ে আমাদেরকে সহযোগিতা করবেন। তাছাড়া ইন্টারনেটের উপর ১০ ভাগ এআইটি আরোপ করায় সারা দেশে এক দেশ এক রেট বাস্তবায়ন হুমকির মূখে পরবে। এবং ইন্টারনেটের দাম বৃদ্ধি পাবে।

সমাপনী অনুষ্ঠানে বিডিনগের সভাপতি এফ এম রাশেদ আমিন বিডিনগ সম্মেলন ০১ থেকে বিডিনগ সম্মেলন ১৪ পর্যন্ত সকল কার্যক্রম তুলে ধরেন।

বিডিনগ,আইএসপিএবি
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়