ঢাকা | বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ |
২০ °সে
|
বাংলা কনভার্টার
walton

চট্টগ্রাম আইটি ফেয়ার উদ্বোধনকালে শিক্ষা উপমন্ত্রী

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে আইটি সেক্টরের ভূমিকা রয়েছে

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে আইটি সেক্টরের ভূমিকা রয়েছে
চট্টগ্রাম আইটি ফেয়ার উদ্বোধন করছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী

বিজনেস সেক্টর অটোমেশনের আওতায় আনা প্রয়োজন। এজন্য চট্টগ্রামের বিভিন্ন উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে কর্মীদেরকে দক্ষ করে গড়ে তোলার উদ্যোগ নিতে হবে।

শনিবার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে আয়োজিত দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও সোসাইটি অব চিটাগাং আইটি প্রফেশনালসের (এসসিআইটিপি) যৌথ আয়োজনে ৩ দিনব্যাপী ৪র্থ চট্টগ্রাম আইটি ফেয়ারের উদ্বোধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ কনসেপ্ট এখন জনপ্রিয়। সর্বক্ষেত্রে আধুনিক প্রযুক্তি এবং ডিজিটাইজেশনের ফলে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়িত হয়েছে। বর্তমান সরকারের লক্ষ্য এখন স্মার্ট বাংলাদেশে পরিণত করা। এজন্য সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রয়েছে আইটি সেক্টরের।

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে আয়োজিত এ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে চেম্বার সিনিয়র সহ-সভাপতি তরফদার মো. রুহুল আমিন ও সোসাইটি অব আইটি প্রফেশনালসের সভাপতি আবদুল্লাহ ফরিদ ও ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার মো. জাকির হোসেন বক্তব্য রাখেন।

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, জাতীয় অর্থনীতিতে আইসিটি সেক্টর বড় ধরনের ভূমিকা রেখে আসছে, যা বড় উদাহরণ হলো ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। বাস্তবায়িত ডিজিটাল বাংলাদেশকে স্মার্ট বাংলাদেশে পরিণত করতে হলে স্মার্ট মানবসম্পদ গড়ে তুলতে হবে। এজন্য আইটি সেক্টরের পাশাপাশি জ্ঞান ও বুদ্ধিভিত্তিক মানবসম্পদ গড়ে তুলতে হবে।

সংগঠনটির সিনিয়র সহ-সভাপতি তরফদার মো. রুহুল আমিন বলেন, দেশের ভবিষ্যত বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের অন্যতম আইটি সেক্টরের সম্প্রসারণে চেম্বার গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও আইটি ফেয়ারের আয়োজন করেছে। এর মাধ্যমে এ খাতের বিনিয়োগকারী, এসএমই উদ্যোক্তা, আইটি প্রফেশনাল এবং তরুণ উদ্যোক্তাদের মধ্যে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে।

সোসাইটি অব আইটি প্রফেশনালসের সভাপতি আবদুল্লাহ ফরিদ বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্যে আইটি সম্প্রসারণ এখনো পরিপূর্ণভাবে হয়ে ওঠেনি। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে শতভাগ ডিজিটাইজেশনে আনার জন্য চেম্বারকে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে।

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী মেলায় বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। মেলার আয়োজকরা জানান, এই মেলা আগামী ২৩ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সকল শ্রেণি- পেশার দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

স্মার্ট বাংলাদেশ
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়